ম্যাচসেরা রোহিতের চোখে আসল ম্যাচসেরা শারদুল ঠাকুর

featured updated v 2

ওভাল টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ১২৭ রানের জন্য ওপেনার রোহিত শর্মা ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন, অন্যদিকে শারদুল ঠাকুর উভয় ইনিংসে অর্ধশতক হাঁকানোর পাশাপাশি তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট দখলে নেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়ে দুজনেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন, কিন্তু ম্যাচের পর পুরস্কার জেতা রোহিত শর্মা বলেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার শারদুলের পাওয়া উচিত ছিল।

সদ্য শেষ হওয়া ওভাল টেস্টে শারদুল ঠাকুরের আবির্ভাব হয়েছে ভারতীয় দলের ‘ক্রাইসিস ম্যান’ হিসেবে। দলের প্রয়োজনে তিনি ঠিক পারফর্ম করেছেন। রূপ নিয়েছেন এক পরিপূর্ণ অলরাউন্ডারে। সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ম্যাচ সেরা হলেও রোহিত শর্মা মানছেন, ম্যাচের নায়ক শারদুল ঠাকুরই।

ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা বিসিসিআই টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন,

‘আমার মতে শারদুলের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ পুরস্কার জেতা উচিত ছিল। ওর কারণেই মূলত দল জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায়। ইংল্যান্ডের ওপেনাররা ১০০ রানের পার্টনারশিপ করে দারুণভাবে লক্ষ্যে এগোচ্ছিল, সেই পার্টনারশিপটা ভাঙা অত্যন্ত জরুরি ছিল যা শারদুল করে দেখায়। পাশপাশি জো রুটের উইকেটের গুরুত্বটা অপরিসীম। তাঁরা সেইসময়ও একটা পার্টনারশিপ গড়ছিল। কিন্তু প্রথম ওভারেই শারদুল রুটকে আউট করে।’

ইতিহাসের ষষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে আট নম্বরে ব্যাট করে একই টেস্টের দুটি ইনিংসে অর্ধশতরান করার নজির গড়লেন। শারদুল ঠাকুর প্রথম ইনিংসে ৫৭ রান এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৬০ রান করেন। এছাড়া তিনি তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেটও নিয়েছেন। এই অলরাউন্ডার শারদুল ঠাকুরের প্রশংসায় পঞ্চমুখ রোহিত শর্মা,

 ‘ওর (শারদুল) ব্যাটিং নিয়ে আলাদা করে কী বা বলতে পারি। যে পজিশনে নেমে ৩১ বলে অর্ধশতরান করা একেবারেই মুখের কথা নয়। ও নিজের ব্যাটিং নিয়ে প্রচুর কাজ করেছে। আমি ওকে খুবই কাছ থেকে নিজের ব্যাটিং নিয়ে খাটতে দেখেছি। ও ব্যাট করতে প্রচন্ড ভালবাসে এবং যে কোন পরিস্থিতিতে, যে কোন সময়ে ও ব্যাট হাতে নিজের দক্ষতা প্রমাণ করতে সবসময়ই চেষ্টা করে। আমরা প্রথম ইনিংসে ১৩০-৪০ রানে আউট হয়েই যেতে পারতাম, তবে ওর ব্যাটিং দলকে মোমেন্টাম দেয়। এর ফলে আমরা ১৫০ এর বদলে ১০০ রান পিছিয়ে ছিলাম।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মিসবাহ’র জায়গায় বসতে দৌড়ে এগিয়ে পিটার মুরস

Read Next

মিরপুরে রান বের করতে লিটনের মত একই পথ দেখালেন প্রিন্স

Total
1
Share