এমন উইকেটেও সফল হবার উপায় জানালেন লিটন দাস

নিউজিল্যান্ড

মিরপুরের মন্থর উইকেট টি-টোয়েন্টির জন্য আদর্শ নয় কোনভাবেই। যেখানে প্রতিপক্ষ শিবিরের মত টাইগার ব্যাটসম্যানরাও রান করতে ঘাম ঝরাচ্ছেন। কাজটা বেশ কঠিনই হচ্ছে বলছেন বাংলাদেশ ওপেনার লিটন দাস। তবে এমন উইকেটে সফল হওয়ার উপায় ধরতে পেরেছেন লিটন, দিয়েছেন সে অনুসারে পরামর্শও।

এমনিতেই মিরপুরের উইকেট রহস্য নিয়ে হাজির হয়। তার উপর অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকেই কন্ডিশনের ফায়দা লুটতে গিয়ে পুরোপুরি স্পিন নির্ভর উইকেট বানাচ্ছে বাংলাদেশ। তাতে দলীয় সাফল্য আসলেও ব্যাটসম্যানদের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচেতো হারতে হয়েছে ৫২ রানের বিশাল ব্যবধানে। যেখানে ১২৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে কিউই স্পিনারদের ঘূর্ণিতে খাবি খেয়ে মাত্র ৭৬ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

আজ (৬ সেপ্টেম্বর) বিশ্রামের দিনে বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় লিটন দাস কথা বলেন উইকেট নিয়ে। ব্যাটসম্যানদের জন্য কতটা চ্যালেঞ্জ মিরপুরে রান করা তুলে ধরেছেন সেটি।

তিনি বলেন, ‘ব্যাটিং কন্ডিশন একটুতো চ্যালেঞ্জিং কারণ গত ৩ টা ম্যাচেই দেখেন লো স্কোরিং ম্যাচ হয়েছে। তো আমরা না শুধু তাদের ব্যাটসম্যানরাও সাফার করছে। এটাতো চ্যালেঞ্জিং বিষয় কারণ, টি-টোয়েন্টিতে সবসময় মাইন্ড সেটাপ থাকে বড় স্কোর করার বা স্ট্রাইক রেটটা মেইনটেইন করার।’

‘যেহেতু এ জিনিসটা হচ্ছে না গেমটা ওভাবে চেঞ্জ করতে হচ্ছে। কিন্তু এটা টাফ, এটা ইজি না যে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এরকম উইকেটে ম্যানেজ করে নেওয়া একটু কঠিন। কারণ প্রতিটি ব্যাটসম্যানই একটু আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকে।’

তবে এমন পিচে সফল হতে বাউন্ডারির চেয়ে সিঙ্গেলসে নজর দেওয়ার পরামর্শ লিটনের, ‘আমার কাছে যে জিনিসটা মনে হয়, যেহেতু লো স্কোরিং ম্যাচ হচ্ছে তো স্কোর করাটা এত সহজ না। বাউন্ডারি মারাটা আরও কঠিন, ওভার বাউন্ডারি বা এমনি বাউন্ডারি মারাটাই অনেক কঠিন। আমার কাছে মনে হয় সিঙ্গেলে একটু বেশি ফোকাস দিতে হবে। রানিং বিটুইন দ্য উইকেট টা একটু বেশি ফোকাস দিতে হবে।’

সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। চতুর্থ ম্যাচটি মাঠে গড়াবে দুইদিনের বিরতি শেষে ৮ সেপ্টেম্বর। যেখানে পঞ্চম ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ১০ সেপ্টেম্বর।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘মাসকো-সাকিব’ ক্রিকেট একাডেমির বোলিং কোচ হচ্ছেন সৈয়দ রাসেল

Read Next

‘এ’ দলের স্কোয়াডে মিঠুন-ইমরুল

Total
2
Share