বাংলাদেশের যে দিকটি রোমাঞ্চিত করছে অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে

বাংলাদেশের যে দিকটি রোমাঞ্চিত করছে অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে

বাংলাদেশ ক্রিকেটে সিনিয়রদের আধিক্যতা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে। ম্যাচ জয়ে ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে তরুণ ও অনভিজ্ঞরাও। আর এটিই সবচেয়ে বেশি রোমাঞ্চিত করছে টাইগার ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে।

সিনিয়র ক্রিকেটারদের ছাড়াই এখন নিয়মিত জয় পাচ্ছে বাংলাদেশ। সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে ও অস্ট্রেলিয়া সিরিজেই মিলেছে তার প্রমাণ। চোট পুনর্বাসনে তামিম ইকবাল ও পারিবারিক কারণে মুশফিকুর রহিম ছিল না জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে। চোটে পড়ে ছিলেন না নিয়মিত ওপেনার লিটন দাসও।

অই সিরিজেই হাল ধরেছেন নাইম শেখ, সৌম্য সরকার, নুরুল হাসান সোহান, শামীম হোসেনরা। তাদের সাথে অভিজ্ঞ সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদতো ছিলেনই।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়েও তামিম, মুশফিক, লিটনকে ছাড়া খেলতে হয়েছে বাংলাদেশকে। যে সিরিজে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দেন নাসুম আহমেদ, আফিফ হোসেন, শরিফুল ইসলামরা। যেখানে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। বল হাতে আলো ছড়ান সাকিব, গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্যাট হাতে হাল ধরেন অধিনায়ক রিয়াদ।

তরুণ ও অভিজ্ঞদের এমন সংমিশ্রণ নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগে রোমাঞ্চিত করছে ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে।

আজ (২৮ আগস্ট) বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘এই দলের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর দিক হচ্ছে অভিজ্ঞ ও তরুণদের মিশ্রণ। শুধু ব্যাটিংয়ে নয়, বোলিং বিভাগেও আপনি এটা দেখতে পাবেন। দলে কিছু তরুণ ক্রিকেটার আসছে যারা অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতেছে।’

‘ওরা তরুণ এবং বড় টুর্নামেন্ট জেতার যে অভিজ্ঞতা সেটাও তাদের আছে। এই মিশ্রণটা জরুরী। আর প্রতিটি বিভাগে আছে মানসম্মত ক্রিকেটার। ফাস্ট বোলিং, স্পিন বোলিং, ব্যাটিং – সব বিভাগে যে মানের ক্রিকেটার আছে সেটা আমাকে রোমাঞ্চিত করছে।’

এদিকে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে না থাকা মুশফিক-লিটনকে কিউইদের বিপক্ষে পাচ্ছে টিম বাংলাদেশ। যা দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলছেন টাইগার ব্যাটিং কোচ।

প্রিন্স যোগ করেন, ‘লিটন ও মুশফিকের ফেরা দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দুজনের মধ্যে আমরা অভিজ্ঞতা ও তারুণ্যের রোমাঞ্চ পাচ্ছি। তরুণ যারা আছে তাদের জন্যও ভালো। ওরা অভিজ্ঞদের কাছ থেকে অনেক কিছুই শিখতে পারবে।’

‘লিটন, মুশফিক অস্ট্রেলিয়া সিরিজে খেলেনি, তাদের সাথে অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে নেওয়া হচ্ছে। যদিও এই কন্ডিশনে তারা অনেক অভিজ্ঞ। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের কোন কোন জায়গায় নিউজিল্যান্ড সিরিজে উন্নতি করতে হবে এসব নিয়ে কথা হচ্ছে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ভারতকে ইনিংস ব্যবধানে হারাল ইংল্যান্ড

Read Next

মুস্তাফিজকে হুমকি মানলেও উল্টো চাপে রাখতে চায় নিউজিল্যান্ড

Total
3
Share