তবে কি পরবর্তী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন না নাজমুল হাসান পাপন?

তবে কি পরবর্তী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন না নাজমুল হাসান পাপন?

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ হচ্ছে শীঘ্রই। আজ (২৬ আগস্ট) শেষ হয়েছে বোর্ডের বর্তমান মেয়াদের শেষ বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম)। প্রায় ৪ বছর পর অনুষ্ঠিত এই এজিএম শেষে নাজমুল হাসান পাপন জানালেন পরবর্তী মেয়াদে তাকে দেখা যাবে কিনা সেটা অনিশ্চিত।

রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলে অনুষ্ঠিত এজিএম শেষে সংবাদ সম্মেলন করেন পাপন। এজিএমে যেসব এজেন্ডা নিয়ে কথা হয়েছে সেসবের বাইরে নির্বাচন ইস্যু নিয়েও কথা বলেন।

তৃতীয় মেয়াদে তাকে দেখা যাবে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি জানান ক্রিকেট তার অনেক সময় নিয়ে নিচ্ছে। একজন সাংসদ ছাড়াও ঔষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালকও পাপন।

এ ছাড়া বাংলাদেশ দলের হার সহ্য করা তার জন্য কষ্টকর হয়। শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে ক্রিকেট থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে তার চিকিৎসকই।

তবে আসন্ন নির্বাচনে তার অংশ নেওয়া না নেওয়ার বিষয়টি অবশ্য পরিষ্কার করেননি। কৌশলী উত্তরে তার না থাকার ইঙ্গিতে অবশ্য উপস্থিত কাউন্সিলররা জানান তারা পাপনকে ছাড়তে চান না। সভাপতি পদে তাকেই দেখতে চান।

পরবর্তী মেয়াদে সভাপতি থাকছেন কিনা এমন প্রশ্নে নাজমুম হাসান পাপন নিজে বলেন, ‘ভেরি ডিফিকাল্ট এটা বলা। কারণ আসলে এবার বোর্ড মিটিংয়ে (১ তারিখ বা ২ তারিখ যখনই হয়) সেদিন একটু ভিন্নতা পাবেন আপনারা ইলেকশন নিয়ে এটাতে কোন সন্দেহ নেই। এবারের ইলেকশনটা একটু ডিফারেন্ট হবে। অন্যান্যবারের মত নাও হতে পারে। আশা করি এটা এক্সেপ্টেড হবে, যেমনটা আমি প্রপোজ করব।’

‘নাম্বার টু, ক্রিকেটটা ইজ টেকিং টু মাচ টাইম। আজকে এটা আমি এজিএমেও বলেছিলাম- ইট ইজ টেকিং টু মাচ টাইম। টু মাচ টাইম বলতে জালাল ভাই গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড, তারপর ববি ভাই গেলো জিম্বাবুয়ে। ওনারা জানে, ওনারা অবাক হয়ে যান। ভোর থেকে তো খেলা দেখেছিই, সারারাত জেগে ওরা কখন ঘুম থেকে উঠবে, কখন ওদের ওখানে সাতটা বাজবে ব্রেকফাস্টের আগে সবার সাথে কথা বলা, তারপর টিম নিয়ে কথা বলা। আবার যে এসব শুরু হয়েছে, আসলে ক্রিকেট ইজ টেকিং টু মাচ টাইম সো ফার।’

বিসিবি সভাপতি যোগ করেন, ‘আমার একটা খারাপ দিক হচ্ছে হারলে হারটা আমি মেনে নিতে পারি না। বাংলাদেশ হারলে মেজাজ খারাপ হয়ে যায়, আমার বৌ-বাচ্চারা সামনে আসেনা। ডাক্তার আমাকে বারবার বলেছে ক্রিকেট থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দূরে সরে যেতে।’

বোর্ডে থাকলেও অন্তত সভাপতি পদে থাকতে চাননা এমন আভাসই দিয়েছেন টানা দুই মেয়াদের বিসিবি প্রধান নির্বাচিত হওয়া পাপন।

‘অন্তত বোর্ডে থাকলেও এই জিনিসগুলো যেনো না করি। আপনাদের ইনফরমেশনের জন্য বললাম, বলে রাখলাম। সো আমি এখনও জানি না।’

‘আমি বলছি যে আমার মত অনেকেই আছে যারা হার মেনে নিতে পারে না। আমার জন্য যেটা হচ্ছে এটা এত বেশি টাইম নিয়ে নিচ্ছে যেটার ধারণা আগে আমার ছিল না। সত্য বলতে আমার ধারণা ছিল না যে এত টাইম নিয়ে নিবে। মাঝখানে ১ বছর কিন্তু আমি কিছুতে ছিলাম না, আমি ভালোই ছিলাম। আবার যখন আগের মত হলাম তখন দেখলাম এটা অনেক সময় নিয়ে নিচ্ছে। আপনারা অনেকেই কিন্তু আমাদের মত আছেন, হার মানতে পারেননা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যে ৪-১ এ জিতলাম অনেকে ভাবছে একটা হারলাম কেনো। এই হল অবস্থা, এটা আমাদের সবারই। কি করব এখন, ক্রিকেট এমন একটা জায়গায় আসছে। ‘

উল্লেখ্য, অক্টোবর-নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে পারে আসন্ন বিসিবি নির্বাচন। তারিখ সহ অন্যান্য বিষয় চূড়ান্ত হবে সেপ্টেম্বরে শুরুর দিকে অনুষ্ঠিতব্য বোর্ড সভায়।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অভিমানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ছেন শন উইলিয়ামস

Read Next

সাকিব, রাসেলদের সঙ্গে আইপিএল মাতাবেন টিম সাউদি

Total
1
Share