রয় কায়ার বোলিং অ্যাকশন অবৈধ

জিম্বাবুয়ের রয় কায়ার বোলিং অ্যাকশন সন্দেহজনক

২৯ বছর বয়সী জিম্বাবুয়ের রয় কায়ার বোলিং অ্যাকশন অবৈধ বলে বিবেচিত হয়েছে। জুলাই মাসে হারারেতে বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে তার বোলিং অ্যাকশন সন্দেহজনক বলে অভিযোগ উঠেছিল।

আইসিসি (দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) আজ ঘোষণা করেছে যে রয় কায়ার বোলিং অ্যাওশন অবৈধ। যেকারণে এখন থেকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি আর বোলিং করতে পারবেন না।

আইসিসি রেগুলেশন্স ফর দ্য রিভিউ অব বোলারস রিপোর্টেড উইত সাসপেক্ট ইললিলাগ বোলিং অ্যাকশন্স এর ১১.১ ধারা অনুযায়ী রয় কায়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সাথে তার দেশে ঘরোয়া ক্রিকেটেও নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকার কথা।

তবে অনুচ্ছেদ ১১.৫ অনুযায়ী ও জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের মত বিবেচনায় এনেছে আইসিসি। তাই জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের পৃষ্ঠপোষকতায় কায়া ঘরোয়া ক্রিকেটে বল করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, জুলাইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে অভিযুক্ত হয় রয় কায়ার বোলিং অ্যাকশন।

অভিযোগের ভিত্তিতে বিশেষজ্ঞ প্যানেল তার বোলিংয়ের ফুটেজ পরীক্ষা করে। করোনার কারণে আইসিসির অনুমোদন পাওয়া সেন্টারে তার বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা করা যায়নি।

বিশেষজ্ঞ প্যানেল তার বোলিংয়ের ফুটেজ পরীক্ষা করে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে বল করার সময় তার কনুই ১৫ ডিগ্রির চেয়ে বেশি ভাঙে। এবং তার বোলিং অ্যাকশন অবৈধ।

আইসিসির রেগুলেশন মেনে কায়া অবশ্য তার বোলিং অ্যাকশন শুধরে এই নিষেধাজ্ঞা সরাতে আবেদন করতে পারবেন।

২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র ওয়ানডে খেলেছিলেন কায়া। টেস্ট অভিষেকও চলতি বছরে পাকিস্তানের বিপক্ষে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ২২০ রানে হারা ম্যাচে রয় কায়া ২৩ ওভার বল করে উইকেটশুন্য থাকেন। ব্যাট হাতেও দুই ইনিংসে রানের খাতা খুলতে পারেননি তিনি।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ঢাকায় পৌঁছেছে নিউজিল্যান্ড দল

Read Next

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য পাপুয়া নিউ গিনির দল ঘোষণা

Total
4
Share