নারী ক্রিকেট দিয়ে অলিম্পিক পদকের আক্ষেপ ঘুচাবে বাংলাদেশ

বেড়েছে নারী দলের বেতন ও ম্যাচ ফি, কার্যকর চলতি মাস থেকেই

গত বেশ কয়েক বছর ধরেই অলিম্পিকে নানা ইভেন্টে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। তবে এখনো ঘুচেনি পদক জয়ের আক্ষেপ। ২০২৮ অলিম্পিকে নারী ও পুরুষদের ক্রিকেট ইভেন্ট যোগ করতে চায় আইসিসি। বিসিবির সাবেক সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী মনে করেন বাংলাদেশ প্রথম পদকের দেখা পেতে পারে নারীদের ক্রিকেট দিয়ে।

বাংলাদেশ নারী দলের বিস্তৃতি এখনো সেভাবে বাড়েনি। তবে ইতোমধ্যে জয় করেছে নারীদের এশিয়া কাপ। আছে ছোট ছোট বেশ কিছু সাফল্য। যদিও সালমা খাতুন, জাহানারা আলমদের নিয়ে পরিকল্পনার জায়গাগুলো এখনো সেভাবে পূর্ণতা পাচ্ছে না। দেশের ছেলে ক্রিকেটের সাথে বৈষম্যটা এখনো চোখে পড়ার মতই।

তবে নারীরাই বাংলাদেশকে প্রথম অলিম্পিক পদক এনে দিবে বিশ্বাস সাবের হোসেনের। আজ (২২ আগস্ট) রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে সাবেক নারী ক্রিকেটার মনোয়ার আনিস খান মিনুর লেখা ‘নারীরাও পারে’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে এমনটা জানান সাবের।

তিনি বলেন, ‘অলিম্পিকে এখনো পর্যন্ত আমরা কোনো পদক পাইনি। আমরা বোধহয় ১০ টা অলিম্পিকে অংশ নিয়েছি। একটাতেও কোনো পদক পাইনি। আমি মনে করি নারী ক্রিকেটারদের হাত ধরে আমরা প্রথম পদকটা পেতে পারি।’

পদক পেতে সঠিক পরিকল্পনার শুরু করতে হবে এখনই মনে করেন সাবেক এই বিসিবি সভাপতি, ‘এখন থেকে যদি আমরা পরিকল্পনাগুলো হাতে নিই, বিশেষ করে স্কুল পর্যায়ে নারী ক্রিকেটটাকে যদি প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব হয়…। আমি মনে করি এটা কিন্তু অনেক বড় একটা সম্ভাবনা আছে। সঠিক পরিকল্পনা থাকলে অবশ্যই সম্ভব।’

উল্লেখ্য, ১২৪ বছরের অলিম্পিক ইতিহাসে মাত্র একবারই ক্রিকেট ছিল। ১৯০০ সালে অনুষ্ঠিত প্যারিস অলিম্পিকে কেবল পুরুষরাই অংশ নিয়েছিল। এবার আইসিসি ক্রিকেট ফেরানোয় বদ্ধপরিকর, থাকছে নারী ও পুরুষ দুই দলের প্রস্তাবনাই। সব কিছু ঠিক থাকলে ২০২৮ লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিকে আবারও যুক্ত হচ্ছে ক্রিকেট ইভেন্ট।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘দ্য হান্ড্রেড’এর চ্যাম্পিয়ন সাউর্দান ব্রেভ ও ওভাল

Read Next

আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে খেলবেন জশ হ্যাজেলউড

Total
1
Share