যে দু’টি বড় স্বপ্ন রয়েছে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার

যে দু'টি বড় স্বপ্ন রয়েছে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার

সম্প্রতি লাসিথ মালিঙ্গার ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিওতে হাজির শ্রীলঙ্কার লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। আইপিএল খেলার ব্যাপারে তাঁর অবস্থান এবং ক্রিকেট জীবনের সবচেয়ে বড় দুটি স্বপ্নের কথা প্রকাশ করেছেন তিনি। ইমরান তাহির ও রাশিদ খানকে নিজের আদর্শ হিসেবে মানেন ওয়ানিন্দু।

২০১৯ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি অভিষেক হয় হাসারাঙ্গার। সবশেষ ভারতের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা বল হাতে নায়ক হয়ে ওঠেন। ৪ ওভারে ৯ রান খরচ করে একাই তুলে নেন ৪ উইকেট। যা তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার। সবমিলিয়ে সিরিজে ৭ উইকেট নিয়ে তিনিই সিরিজের সেরা খেলোয়াড়। আর তাতেই শ্রীলঙ্কার তারকা স্পিনার আইসিসির টি-টোয়েন্টি বোলারদের তালিকায় ২ নম্বরে উঠে এলেন।

ক্রিকেটে তাঁর রোল মডেল সম্পর্কে বলতে গিয়ে, হাসারাঙ্গা দু’জন লেগ-স্পিনারের নাম উল্লেখ করেন, যাদের তিনি অনুসরণ করতেন।

‘আমি ইমরান তাহির এবং রাশিদ খানকে খুব কাছ থেকে অনুসরণ করতাম কারণ তারা আমার বোলিং স্টাইলের অনুরূপ এবং তাঁরা আমার মতোই গতিতে বোলিং করে। এমনকি যখন তারা কোন লিগে, আন্তর্জাতিক খেলা বা ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলে, আমি অবশ্যই তাঁদের খেলা দেখি, কিছু শিখতে চেষ্টা করি।

ভারতের বিরুদ্ধে নজরকাড়া পারফরম্যান্সের পরেই বড়সড় সুখবর পেতে চলেছেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা হাসারাঙ্গার ওপর নজর রাখছে। এরমধ্যে কয়েক ফ্র‍্যাঞ্জাইজি তাঁর সঙ্গে যোগাযোগও শুরু করেছে।

এই বছর আইপিএলে যোগ দেবেন কিনা এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে হাসারাঙ্গা জবাব দিলেন, আইপিএলে যোগ দিতে খুব আগ্রহী তিনি। ক্রিকেটে তাঁর দুটি স্বপ্নের মধ্যে আইপিএলে খেলা একটি বড় স্বপ্ন।

‘ক্রিকেটে আমার দুটি স্বপ্ন আছে। একটি হল আইপিএলে খেলা এবং অন্যটি ইংল্যান্ডের একটি কাউন্টি দলের হয়ে খেলতে চায়। ভারত সিরিজের পর আইপিএলের দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি আমার সঙ্গে কথা বলেছিল। এখনও কিছু নিশ্চিত করা হয়নি, আলোচনা চলছে। যদি আমাকে সুযোগ দেওয়া হয় আমি আইপিএলে খেলব। কারণ লিগ ক্রিকেটে আমার তেমন অভিজ্ঞতা নেই। আমি কেবল টি-টেন লিগে খেলেছি। যদি আইপিএল খেলতে পারি, আমি বিশাল এক্সপোজার পেতে পারি যা বিশ্বের অন্য কোন লিগে খেলে হবে না। আরেকটি বিষয় হল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সংযুক্ত আরব-আমিরাতে, যেখানে আইপিএলও অনুষ্ঠিত হবে। কন্ডিশন ভালোভাবে জেনে আমি আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার প্রতিনিধিত্ব করলে এটা আমার জন্য সুবিধা হবে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মুস্তাফিজের কাছ থেকে কাটার রপ্ত করছেন শরিফুলও

Read Next

শরিফুলের চোখে যুব বিশ্বকাপ ও অস্ট্রেলিয়া সিরিজ জয় সমান

Total
8
Share