বাংলাদেশের স্পিন উইকেটে খেলার আগে রোমাঞ্চিত অ্যাশটন টার্নার

বাংলাদেশের স্পিন উইকেটে খেলার আগে রোমাঞ্চিত অ্যাশটন টার্নার

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে সরাসরি বাংলাদেশে এসেছে অস্ট্রেলিয়া দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্লো উইকেটে খেলার সুবিধা বাংলাদেশ সফরের পাশাপাশি আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কাজে লাগবে, এমনটি আগেই বলেছেন অজি উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান ম্যাথু ওয়েড। এবার বাংলাদেশে এসেও একই সুরে কথা বললেন অলরাউন্ডার অ্যাশটন টার্নার। স্পিন উইকেটে খেলার সুযোগ পেয়ে রোমাঞ্চিত এই অফ স্পিনার।

অস্ট্রেলিয়ার পেস বান্ধব উইকেটে খেলে অভ্যস্ত অজি স্পিনাররা মুখিয়ে থাকে উপমহাদেশ সহ বিশ্বের স্পিন নির্ভর উইকেটগুলোতে। সদ্য সমাপ্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে অজিরা পেয়েছে খানিকটা সেরকম উইকেটই। অ্যাশটন আগার, অ্যাশটন টার্নার, অ্যাডাম জাম্পারা কাজেও লাগিয়েছে সেটি। ৪-১ ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের পর অবশ্য ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল ওয়ানডে সিরিজ।

ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ৫ ম্যাচ খেলা অ্যাশটন টার্নার অবশ্য দুই ওয়ানডেতে বল হাতে নেন। শিকার করেছেন ২ উইকেট।

ওয়েস্ট ইন্ডিজে খুব বেশি বল করার সুযোগ না পেলেও এই অজি অলরাউন্ডার বাংলাদেশে সুযোগ পেলে ভালো করতে মুখিয়ে আছেন। একজন স্পিনার হিসেবে স্পিন নির্ভর উইকেট পেয়ে রোমাঞ্চিতও।

বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থান করা অজিরা ৩ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে আজ (১ আগস্ট) বিকেলে প্রথমবার অনুশীলনে নামবে।

তার আগে এক ভিডিও বার্তায় টার্নার বলেন, ‘আমি রোমাঞ্চিত, প্রথমবার বাংলাদেশে এসেছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজেও প্রথমবার সফর করে এলাম। এখানে যারা আগে খেলেছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে যা বুঝলাম, ওয়েস্ট ইন্ডিজে যেসব উইকেটে খেলেছি, এখানে খুব ভিন্ন কিছু হবে না।’

‘অস্ট্রেলিয়া থেকে সফরে এসে, এই শীতকালে (অস্ট্রেলিয়ান মৌসুম) এমন অনেক উইকেটেই খেলতে হবে, যেখানে স্পিন ধরে। স্পিনার হিসেবে আমি রোমাঞ্চিত যে এরকম উইকেট পাব, যেখানে স্পিনারদের সহায়তা থাকে। অস্ট্রেলিয়ায় এটা সবসময় পাওয়া যায় না।’

২০১৭ সালে সর্বশেষ বাংলাদেশ সফরে এসেছিল অজিরা। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলে যাওয়া সেই দলের অ্যাশটন আগার, জশ হ্যাজেলউড, ম্যাথু ওয়েডরা আছেন এবারে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে। যদিও স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও চোটের কারণে নিয়মিত অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চসহ বেশ কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার ছাড়াই এবার বাংলাদেশে এলো অস্ট্রেলিয়া।

এখনো মিরপুরের উইকেট না দেখা অজিরা নিজেদের প্রস্তুত করতে মুখিয়ে আছে উল্লেখ করে অলরাউন্ডার টার্নার বলেন, ‘এখনও মাঠে যাইনি। ঢাকায় আসার পর প্রথম তিন দিন আইসোলেশনে ছিলাম। আজকে বিকেলে আমাদের অনুশীলন আছে। দলের কয়েকজন আগের সফরগুলোয় এই মাঠে খেলেছে। কন্ডিশন দেখতে, অনুশীলন করতে এবং মঙ্গলবারের (৩ আগস্ট) ম্যাচের জন্য নিজেদের যতটা সম্ভব প্রস্তুত করে তুলতে মুখিয়ে আছি।’

নিজেদের কন্ডিশন ও শক্তির জায়গা বলে স্পিন নির্ভর উইকেট বানানোর পথেই হাঁটতে পারে বাংলাদেশ। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের স্পিনারদের সামনেও ভালো পরীক্ষা দিতে হবে অজি ব্যাটসম্যানদের।

২৮ বছর বয়সী অজি অলরাউন্ডার অ্যাশটন টার্নার স্বীকারও করে নিলেন সেটি, ‘ব্যাটসম্যান হিসেবেও আমরা জানি যে, দারুণ কিছু স্পিনারদের মুখোমুখি হতে হবে আমাদের এবং কোনো সংশয় নেই যে তারা অনেক ওভার বোলিং করবে।’

উল্লেখ্য, ৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ মাঠে গড়াচ্ছে ৩ আগস্ট থেকে। সিরিজের বাকি ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ৪, ৬,৭ ও ৯ আগস্ট।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধান নির্বাচক বেইলি

Read Next

অজিদের বিপক্ষে ওপেন করবেন সাকিব-মিঠুন!

Total
6
Share