জিম্বাবুয়েতে প্রিন্সের মন কেড়েছেন আফিফ-সোহান

জিম্বাবুয়েতে প্রিন্সের মন কেড়েছেন আফিফ-সোহান

জিম্বাবুয়ে সফরে বাংলাদেশের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পান অ্যাশওয়েল প্রিন্স। সফরে আফিফ হোসেন ও নুরুল হাসান সোহান আলাদা নজর কেড়েছেন সাবেক এই দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যানের।

প্রিন্সের সাথে চুক্তির মেয়াদ বাড়তে পারে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তবে জিম্বাবুয়ে থেকে বাংলাদেশে আসেননি এই প্রোটিয়া, থাকছেন না অস্ট্রেলিয়া সিরিজে।

প্রাথমিকভাবে কেবল জিম্বাবুয়ে সফরে নিয়োগ পাওয়া প্রিন্সকে দারুণভাবে মুগ্ধ করেছে আফিফ ও সোহান। দুজনের ভয়ডরহীন ক্রিকেটে মজেছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। পছন্দ হয়েছে সদ্য অভিষেক হওয়া শামীম হোসেনকেও।

ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ও শেষ ম্যাচে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন আফিফ। লম্বা বিরতির পর জাতীয় দলের জার্সিতে সুযোগ পেয়ে ঝলক দেখান উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান সোহানও।

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ক্রিকবাজকে’ অ্যাশওয়েল প্রিন্স বলেন, ‘সাদা বলের ক্রিকেটে সমন্বয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনার কাছে এমন ব্যাটসম্যান আছে যারা টপ অর্ডারে টোন সেট করে দিতে পারে এবং মিডল অর্ডারে এমন কেউ আছে যারা দলকে গন্তব্যে পৌঁছে দিতে পারে।’

‘তাদের দুজনের (আফিফ ও সোহান) উপর আমি বেশ মুগ্ধ হয়েছি। তারা সাসহী, ভয়ডরহীন এবং নির্দিষ্ট করে আফিফের কথা বলতেই হয়, পরিস্থিতি সামাল দেয় ঠান্ডা মাথায়। তারা সাদা বলের ফরম্যাটে দলকে অনেক কিছু দিতে পারে।’

নিজের অভিষেক সিরিজেই সহজাত ব্যাটিং ঝলক দেখান যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য শামীম হোসেন। খেলেছেন দুইটি টি-টোয়েন্টি, দলের খারাপ সময়ে নেমে অভিষেক ম্যাচে ১৩ বলে ২৯ ও নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ১৫ বলে অপরাজিত ৩১ রানের ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলেন। যদিও এখনই ফিনিশার ট্যাগ দিতে আপত্তি অ্যাশওয়েল প্রিন্সের।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি সে দারুণ এক প্রতিভা। আবারও বলতে হয় সোহান ও আফিফের মত, সাহসী এবং ভয়ডরহীন। দলের কেউ তাকে ট্যাগ দিচ্ছে না। যদি এটা ঘটে থাকে তবে সম্ভবত দলের বাইরের পরিবেশে কোথাও ঘটছে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা পেয়ে খুশি অস্ট্রেলিয়া

Read Next

ক্রিকেট থেকে বিরতি নিলেন বেন স্টোকস

Total
89
Share