বুমরাহর মাঝে নিজের যে প্রবণতা দেখেন শোয়েব

বুমরাহ'র আবদার রাখল বিসিসিআই

বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে দ্রুতগতির বোলার পাকিস্তানের শোয়েব আখতার ক্যারিয়ার জুড়ে অসংখ্য ইনজুরির শিকার হয়েছিলেন। ভারতের পেসার জাসপ্রীত বুমরাহর মাঝেও তেমন ইনজুরি প্রবণতা দেখতে পাচ্ছেন তিনি। তার মতে, বুমরাহ যদি ঠিকভাবে খেলার চাপ সামাল দিতে না পারে, তবে সেও বারবার ইনজুরির শিকার হবে।

শোয়েব বলেন, বুমরাহর অদ্ভুতুড়ে বোলিং অ্যাকশনও তাকে আরও বেশি ইনজুরিতে আক্রান্ত করতে বাধ্য করবে, যদি তাকে দিয়ে অতিরিক্ত ম্যাচ খেলানো হয়। ২০১৯ সালে পিঠের ইনজুরিতে ভুগেছিলেন বুমরাহ এবং সে কারণে ১২ মাস মাঠের বাইরে ছিলেন তিনি। শোয়েব বলেন, বুমরাহর অ্যাকশনে সামনের দিকে কেন্দ্র করে হয় এবং পিঠের উপর মারাত্নক চাপ সৃষ্টি করে।

‘তার বোলিংটা মুলত সামনের দিকে কেন্দ্র করে হয়। এমন বোলিংয়ের ক্ষেত্রে কাঁধ ও পিঠে প্রচণ্ড চাপ অনুভূত হয়। পাশ থেকে বোলিং করলে আরামবোধ হয়। তবে সামনের অ্যাকশনের ক্ষেত্রে আপনি সেই আরামবোধ পাবেন না। যদি আপনার পিঠে চাপ বেশি হয় হয়, আপনি যতই চেষ্টা করুন না কেন, অমন অ্যাকশনে কার্যকরভাবে বোলিং করতে পারবেন না,’ স্পোর্টস তাক নামে অনুষ্ঠানে বলেন শোয়েব।

উদাহরণ হিসেবে ইয়ান বিশপ এবং শেন বন্ডের কথা উল্লেখ করেন শোয়েব৷ ক্যারিয়ার জুড়ে এমন অ্যাকশনের জন্য তারাও বারবার ইনজুরির শিকার হয়েছিলেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বুমরাহর জন্য নির্দিষ্ট করে ম্যাচ রাখার পরামর্শ দেন শোয়েব। যদি বুমরাহকে পুরো ক্যারিয়ারে ইনজুরি মুক্ত থাকতে হয়, তবে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৩টি ম্যাচ খেলার পরামর্শ দেন তিনি। এছাড়াও শর্ট রান আপের মত জোর দিতে বলেছেন তিনি।

‘আমি এমন করে ইয়ান বিশপের বোলিং দেখেছিলাম। এমনকি শেন বন্ডের বোলিংও একই রকম ছিল। বুমরাহকে এখন এ বিষয়ে ভাবতে হবে। একটি ম্যাচ খেলে বিরতি নিয়ে পূনর্বাসনে থাকতে হবে ওকে। এভাবে তাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।’

‘যদি এক বছরে বুমরাহকে অনেক ম্যাচ খেলানো হয়, সে সম্পূর্ণভাবে ভেঙে পড়বে। ৫ ম্যাচের মধ্যে ৩ ম্যাচ খেলিয়ে তাকে বিশ্রাম দিতে হবে। বুমরাহকে বুঝতে হবে, সে তার ক্যারিয়ার দীর্ঘায়িত করতে চায় কীনা,’ বলেন শোয়েব।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বায়ো-বাবলে বিষিয়ে ওঠা টাইগারদের মূল্যায়ন করার অনুরোধ ববির

Read Next

দীর্ঘ সময়ের নিষেধাজ্ঞা ও বড় অঙ্কের জরিমানা করতে বোর্ডকে সুপারিশ

Total
1
Share