সিরিজে সমতা ফেরাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

সিরিজে সমতা ফেরাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

নিকোলাস পুরান এবং জেসন হোল্ডারের হাফ সেঞ্চুরির কল্যাণে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে সমতা এনেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শনিবার ব্রিজটাউনে ২য় ওয়ানডেতে ক্যারিবিয়ানরা জয় পায় ৪ উইকেটের ব্যবধানে। এর আগে প্রথম ম্যাচে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া জয় পেয়েছিল ১৩৩ রানে। সিরিজের ৩য় ও শেষ ম্যাচ একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে ২৭ জুলাই।

ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ২২ জুলাই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের একজন স্টাফের করোনা পজিটিভ আসায় সেদিন টসের পরই খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে সবার কোভিড পরীক্ষায় নেগেটিভ আসায় এদিন খেলা অনুষ্ঠিত হয়। তবে ইনজুরির কারণে এদিন ম্যাচ থেকে ছিটকে যান জশ হ্যাজেলউড। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল খেলোয়াড় পরিবর্তনের সম্মতি দিলে ওয়েস অ্যাগারকে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়।

১৮৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শাই হোপ ছাড়া শুরুর দিকের ব্যাটসম্যানরা আসা যাওয়ার মধ্যে ছিলেন। মিচেল স্টার্কের বোলিং তোপে ম্যাচের ৩য় ওভারেই চলে যান এভিন লুইস এবং ড্যারেন ব্রাভো। বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি জেসন মোহাম্মদ এবং অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডও। ইনজুরিতে থেকে ফিরে প্রথমবার সুযোগ পেয়ে ভালোই খেলছিলেন শাই হোপ। তবে ব্যক্তিগত ৩৮ রান করে তিনিও বিদায় নেন।

৭২ রানে ৫ উইকেট হারালেও পরের গল্পটা আনন্দের ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য। সাবেক অধিনায়ক জেসন হোল্ডারকে নিয়ে ৯৩ রানের জুটি গড়েন নিকোলাস পুরান। দুইজনই দেখা পান হাফ সেঞ্চুরির। হোল্ডার ৫২ রানে আউট হলেও ৫৯ রানে অপরাজিত থেকে ১২ ওভার বাকি থাকতে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন পুরান। নিজে পান ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

স্টার্ক ৩টি এবং অ্যাডাম জাম্পা ২টি উইকেট পান।

এর আগে টসজয়ী অস্ট্রেলিয়া ব্যাটিংয়ে নেমে ক্যারিবিয়ান স্পিনার আকিল হোসেন ও পেসারদের বোলিং তান্ডবে ৪৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে। তবে সেখান থেকে ২০০ রানের কাছাকাছি দলকে পৌঁছে দেওয়ার কৃতিত্ব দুই বোলার অ্যাগার ও জাম্পার। অ্যাগার সর্বোচ্চ ৪১ এবং জাম্পা ও ম্যাথু ওয়েড দুইজনই করেন ৩৬ রান। শেষ পর্যন্ত ১৮৭ রানে অলআউট হয় অজিরা।

আকিল হোসেন ও আলজারি জোসেফ ৩টি এবং শেলডন কটরেল ২টি উইকেট পান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

অস্ট্রেলিয়াঃ ১৮৭/১০ (৪৭.১), ফিলিপ ১৬, ম্যাকডারমট ০, মার্শ ৮, হেনরিকস ৪, ক্যারি ১০, টার্নার ১, ওয়েড ৩৬, স্টার্ক ১৯, জাম্পা ৩৬, অ্যাগার ৪১, মেরেডিথ ০*; কটরেল ৮-১-২৯-২, হোল্ডার ৭-০-৪১-১, জোসেফ ৮.১-০-৩৯-৩, আকিল ১০-০-৩০-৩, ওয়ালশ জুনিয়র ১০-০-৩২-১

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৯১/৬ (৩৮), লুইস ১, হোপ ৩৮, ব্রাভো ০, জেসন ১১, পুরান ৫৯*, পোলার্ড ২, হোল্ডার ৫২, জোসেফ ৫*; স্টার্ক ১০-১-২৬-৩, জাম্পা ৯-১-৪৩-২, টার্নার ৬-০-৩৭-১

ফলাফলঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ নিকোলাস পুরান (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

অধিনায়কের ব্যাটে চড়ে আইরিশদের হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা

Read Next

অলিখিত ফাইনালে আগে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

Total
17
Share