দুঃসময় কাটিয়ে লিটনের ফেরার নৈপথ্যে স্ত্রী, পরিবারের সমর্থন

দুঃসময় কাটিয়ে লিটনের ফেরার নৈপথ্যে স্ত্রী, পরিবারের সমর্থন

ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত পারফর্মার, ব্যাটিংয়ে যার শিল্পের ছোঁয়া। সেই লিটন দাস আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুরুর সময়টা দারুণ অধারাবাহিকতার নিদর্শন দেখিয়েছেন। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অবশ্য ভিন্ন কিছুর আভস মিলেছে। বিশেষ করে করোনার ভয়াল থাবা পড়ার আগের সময়টায় সেরা ছন্দে ছিলেন। করোনা পরবর্তী লিটন যেন আবার বিবর্ণ, এত কিছুর ভীড়েও পরিবার, স্ত্রীর সমর্থন একটুও কমেনি। তার ফল পাচ্ছেন চলতি জিম্বাবুয়ে সফরে, আজও হাঁকালেন সেঞ্চুরি।

করোনা প্রভাব বিস্তারের আগের সিরিজে সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতে লিটনের দুই সেঞ্চুরি। ১৭৬ রানের ইনিংসটিতে আবার গড়েছেন রেকর্ড, দেশের হয়ে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস।

করোনা পরবর্তী সময়ে লিটন আবার নিজেকে খুঁজে ফিরছিলেন। ৮ ওয়ানডে ইনিংসে সাকূল্যে রান ১০১! তিনবার শূন্য রানে আউট হয়েছেন, সর্বোচ্চ রানের ইনিংস ২৫।

তবে আজ হারারেতে লিটন খেললেন দারুণ এক ইনিংস। বিপর্যয়ে পড়া দলকে টেনে তুললেন জিম্বাবুয়ে পেসারদের শুরুর দাপট সামলে। ব্যাটিং সহায়ক উইকেট না হলেও ক্রিজে টিকে এরপর রানের গতি বাড়িয়েছেন। ৭৪ রানে ৪ উইকেট হারালেও তার ১০২ রানের ইনিংসে ভর কর দল পেয়েছে ২৭৬ রানের পুঁজি।

জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং ব্যর্থতা আর সাকিব আল হাসানের ৫ উইকেট শিকারে জয়ও এসেছে বড় ব্যবধানে। ১৫৫ রানের জয়টি দেশের বাইরে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জয়।

ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতা লিটন জানালেন খারাপ সময় মাড়িয়ে নিজেকে স্থির রেখে কিভাবে এমন ইনিংস খেললেন। জিম্বাবুয়ে সফরের একমাত্র টেস্টেও তার ৯৫ রানের ইনিংসে বিপর্যয় কাটিয়েছিল বাংলাদেশ। সাফল্যের পেছনে পরিবার, স্ত্রী, সতীর্থ, সিনিয়র ক্রিকেটারদের সমর্থনের কথাই বললেন লিটন।

তিনি বলেন, ‘আমার চাওয়া তো সবসময়ই রান করা। শুধু আমি না প্রতিটা ব্যাটসম্যানই চাইবে যখনই ক্রিজে যায় রান করবে। কিন্তু কোভিডের আগে আমি একটা ভালো ধারাবাহিকতা পেয়েছিলাম। ওই সময় কোভিড না হয়ে যদি স্বাভাবিক খেলা চলত তাহলে হয়তবা সুযোগ ছিল ভাল পারফর্ম করার। কারণ ওই সময় আমার পিক টাইম চলছিল।’

‘কোভিডের পর আন্তর্জাতিকে ফেরাটা একটু কঠিন হয়ে গেছে কারণ মাথায় অনেক চিন্তা ছিল যে পারফর্ম করতে হবে পরিস্থিতিও কঠিন ছিল। এভাবে দেখতে দেখতে আটটা ইনিংস গেছে। চেষ্টা করেছি যত ইনিংসই খেলিনা কেন যেন ভালো করতে পারি, দলকে কিছু দিতে পারি। পাশাপাশি বড়রা সমর্থন দিয়ে গেছেন। পরিবার, বিশেষ করে স্ত্রীর কাছ থেকে সমর্থন এসেছে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ওয়ানডেতে টেস্টের প্রক্রিয়া প্রয়োগ করে সফল হলেন লিটন

Read Next

ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা

Total
6
Share