সাকিব-তাসকিনে ম্যাচের লাগাম টাইগারদের হাতে

সাকিব-তাসকিনে ম্যাচের লাগাম টাইগারদের হাতে
Vinkmag ad

অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলরের উইকেট হারানোর পরও বেশ ভালো অবস্থানে থেকে লাঞ্চে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। তবে চা বিরতির আগের সেশনে সাকিব আল হাসান ও তাসকিন আহমেদের তোপে নাজুক অবস্থায় স্বাগতিকরা। সেশনে উইকেট হারিয়েছে তিনটি, রান উঠেছে মাত্র ৩৫!

চা বিরতির আগে জিম্ববাবুয়ের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৪৪। এখনো ২২৪ রানে পিছিয়ে থাকা জিম্বাবুয়েকে আশা দেখাচ্ছেন অভিষিক্ত ওপেনার তাকুজওয়ানাশে কাইতানো। অন্য প্রান্তে মিডল অর্ডারের ধস দেখলেও নিজে আছেন অবিচল। অপরাজিত আছেন ৮২ রানে, খেলছেন পুরোদস্তুর টেস্ট মেজাজে। তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন উইকেট রক্ষক রেগিস চাকাবভা (১০*)

২ উইকেটে ২০৯ রান নিয়ে লাঞ্চে যায় স্বাগতিকরা। ৩৩ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটি কাইতানো ও ডিওন মায়ের্সের। কাইতানো ৬৩ ও মায়ের্স অপরাজিত ছিলেন ২১ রানে।

কিন্তু লাঞ্চের পর ৮ম ওভারেই ফিরতে পারতেন কাইতানো। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ লুফে নিতে ব্যর্থ লিটন দাস। অবশ্য নিচু হওয়া বলটি গ্লাভস বন্দী করা সহজ হতনা অন্য কারও জন্যও। কাইতানোর রান তখন ৬৫।

তবে জুটিকে ৪৯ রানের বড় হতে দেননি সাকিব। নিজের ২৬তম ওভার করতে এসে ডিওন মেয়ার্সকে মেহেদী হাসান মিরাজের ক্যাচে পরিণত করেন টাইগার অলরাউন্ডার। তার গুড লেংথে পড়া বলকে সুইপ করে বাউন্ডারি পার করতে চান মেয়ার্স, ফলাফল মিরাজের হাতে ক্যাচ। ৬৫ বলে তার ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান।

কাইতানোর সাথে নতুন ব্যাটসম্যান টিমিসেন মারুমার জুটি জমেনি ৩ রানের বেশি। দ্বিতীয় নতুন বলে ভালোই ভুগিয়েছেন তাসকিন। ইনসুইং, আউট সুইংয়ে বিভ্রান্ত করেছেন কয়েক দফা। তার করা ৮৪তম ওভারের শেষ বলে মারুমার বিপক্ষে কট বিহাইন্ডের জোরালো আবেদন নাকচ করে দেন আম্পায়ার।

কিন্তু নতুন বলে উইকেট তুলে আবারও আসল কাজটা সারলেন সাকিব। এবার সুইপ খেলতে গিয়ে মারুমা খালি হাতে ফিরলেন এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে। দুই বলের ব্যবধানে তাসকিন ফেরান রয় কায়াকে। তাসকিনের ভেতরে ঢোকা বলে কোনো রান না করে ক্যাচ দিয়েছেন উইকেটের পেছনে। ২ উইকেটে ২২৫ থেকে ৫ উইকেটে ২২৯ রানে পরিণত হয় স্বাগতিকরা।

অন্য প্রান্তে দ্রুত উইকেট পতন হলেও নিজের খেলায় মনযোগ হারাননি অভিষিক্ত কাইতানো। রেগিস চাকাবভাকে নিয়ে ১৫ রানের জুটিতে অবিচ্ছেদ্য আছেন। ২৮২ বল খেলে চা বিরতির আগে অপরাজিত ৮২ রানে। ৩২ বলে চাকাভা অপরাজিত ১০ রানে। ৯৬ ওভার খেলে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৪৪।

বাংলাদেশের হয়ে এখনো পর্যন্ত সফল বোলার ৩২ ওভারে ৭৪ রান খরচায় ৩ উইকেট নেওয়া সাকিব।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (৩য় দিন, চা বিরতি পর্যন্ত):

বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৪৬৮/১০ (১২৬), সাইফ ০, সাদমান ২৩, শান্ত ২, মুমিনুল ৭০, মুশফিক ১১, সাকিব ৩, লিটন ৯৫, মাহমুদউল্লাহ ১৫০*, মিরাজ ০, তাসকিন ৭৫, এবাদত ০; মুজারাবানি ২৯-৪-৯৪-৪, এনগারাভা ২৩-৫-৮৩-১, টিরিপানো ২৩-৫-৫৮-২, নিয়াউচি ১৭-১-৯২-২।

জিম্বাবুয়ে ১ম ইনিংসে ২৪৪/৫ (৯৬), শুম্বা ৪১, কাইতানো ৮২*, টেইলর ৮১, মায়ের্স ২৭, মারুমা ০, কায়া ০, চাকাবভা ১০*; তাসকিন ২৪-১০-৪৬-১, সাকিব ৩২-৯-৭৪-৩, মিরাজ ২৪-৩-৬৭-১

বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ২২৪ রানে এগিয়ে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিনা বেতনে লঙ্কান যুবাদের কোচ হচ্ছেন জয়াবর্ধনে

Read Next

বদলে গেল এলপিএল এর সূচি

Total
1
Share