জিম্বাবুয়ে সফরে নান্নুর আশাবাদ, নান্নুর ভয়

জিম্বাবুয়ে সফরে নান্নুর আশাবাদ, নান্নুর ভয়
Vinkmag ad

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের একমাত্র টেস্টে মাঠে নামার ২৪ ঘন্টাও বাকি নেই। ৮ বছর পর আফ্রিকান দেশটিতে সফর করা টাইগাররা ভালো করবে বলে বিশ্বাস প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর। বিশেষে করে দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটে-বলে ক্রিকেটারদের দাপুটে পারফরম্যান্সই আশাবাদী করছে তাকে। তবে জিম্বাবুয়ে তাদের নিজেদের কন্ডিশনে খেলবে বলেই কাজটা খুব সহজ হবেনা বলে মত তার।

এবার জিম্বাবুয়ে সফরেও পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। সফরের একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি আগামীকাল (৭ জুলাই) থেকে হারারে স্পোর্টস গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে। পর্যায়ক্রমে থাকছে সমান তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ সিরিজ।

গত ২৯ জুন দেশ ছাড়া টেস্ট স্কোয়াড ইতোমধ্যে অনুশীলনের সাথে খেলে ফেলেছে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও। যেখানে ব্যাট হাতে ফিফটি হাঁকিয়েছেন সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত ও সাকিব আল হাসান। বল হাতেও সাকিব ছিলেন উজ্জ্বল, মেহেদী হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলামরাও নিজেদের কাজ করেছেন ঠিকঠাক।

মূল ম্যাচের একদিন আগে আজ (৬ জুলাই) মিরপুরে সংবাদ মাধ্যমকে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচে প্লেয়ারদের অবস্থা ভালো ছিল। আশা করি সবাই যদি তাদের ব্যক্তিগতভাবে সেরাটা দিতে পারে, ভালো কিছু হবে।’

তবে চোটের কারণে অনিশ্চিত তামিম ইকবালকে নিয়ে চিন্তিত নান্নু, ‘এটা অবশ্যই একটা চিন্তার বিষয়। কারণ একটা সেরা প্লেয়ার টিমে না থাকলে…তারপরও আমি মনে করি হয়তো আজকে বোঝা যাবে। আজকে প্র্যাক্টিস সেশনের পর বোঝা যাবে কোন অবস্থায় আছে। আগাম কিছু বলা যাবে না।’

টেস্ট ক্রিকেটই যে আসল খেলা তা ক্রিকেটারদের বুঝতে হবে বলছেন জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক, ‘টেস্ট ম্যাচে যখনই সুযোগ পাই, সেরা ক্রিকেটটা খেলতে হবে। কারণ এটাই তো আসল খেলা। এই ফরম্যাটে আমাদের ভালো করতেই হবে। আশা করব আমাদের প্লেয়াররা এটা বুঝতে হবে। যদি বেস্ট পারফরম্যান্সটা যদি জিম্বাবুয়েতে দিয়ে আসতে পারি, পরেরগুলো ভালো করব।’

এদিকে নিজেদের কন্ডিশনে খেলা বলে জিম্বাবুয়েকে শক্ত প্রতিপক্ষ ভাবছেন নান্নু। অবশ্য ৮ বছর আগেও পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে গিয়ে কোনো ফরম্যাটে ট্রফি জিততে না পারাটাও তার প্রমাণ দেয়।

প্রধান নির্বাচক এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘যেকোনো হোম টিম নিজেদের মাঠে সবসময় কঠিন। সে হিসেবে আমি মনে করি জিম্বাবুয়ে তাদের মাঠে অবশ্যই শক্তিশালী। আমাদেরও যথেষ্ট অভিজ্ঞতা আছে, সেটা যদি কাজে লাগাতে পারি। গত সিরিজ যেটা খেলেছি অনেকদিন আগে, ১-১ ছিল। এখন আমাদের দল অনেকগুলো টেস্ট খেলে এক্সপেরিয়েন্স নিয়েছে। সেই হিসেবে মনে করি প্লেয়াররা যদি সেরাটা দিতে পারে, তাহলে সেরা খেলাটাই কিন্তু হবে।’

‘জিম্বাবুয়ে সিরিজ সবসময় চ্যালেঞ্জিং। কারণ হারারেতে ওয়েদার কন্ডিশন, উইকেটের অবস্থা…। আমাদের প্লেয়াররটা এখানে ভিন্ন কন্ডিশনে খেলে গেছে, ওখানে কিন্তু যথেষ্ট ঠাণ্ডা। আশা করি প্লেয়াররা যদি তাদের সেরাটা দিতে পারে, ভালো হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

রানাতুঙ্গার মন্তব্য নিয়ে এবার ক্ষোভ প্রকাশ কানেরিয়ার

Read Next

ইংল্যান্ডের নয়া ওয়ানডে স্কোয়াডে ‘৯’ আনক্যাপড ক্রিকেটার

Total
19
Share