জিম্বাবুয়েতে রুবেলের বাজি ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে

জিম্বাবুয়েতে রুবেলের বাজি ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে

জিম্বাবুয়ে সফরে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। তবে শক্তিমত্তা বিচারে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সিরিজ জয়ে বাজি ধরছেন পেসার রুবেল হোসেন। তার মতে টেস্টেও ইতিবাচক ফল হতে পারে, ভয়টা জিম্বাবুয়ে নিজেদের কন্ডিশনে খেলবে বলেই।

রুবেল হোসেন ডাক পেয়েছেন কেবল ওয়ানডের স্কোয়াডে। ৭ জুলাই শুরু হতে যাওয়া একমাত্র টেস্ট সামনে রেখে টেস্ট স্কোয়াড দেশ ছাড়ে গত ২৯ জুন। তবে ওয়ানডে স্কোয়াড দেশ ছাড়বে ৭ জুলাই।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

তার আগেই অবশ্য আজ (৫ জুলাই) থেকে মিরপুরে অনুশীলন শুরু করেছে দেশে থাকা ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডের সদস্যরা। এক ভিডিও বার্তায় পেসার রুবেল জানান সফরে নিজেদের সম্ভাবনা প্রসঙ্গে।

তিনি বলেন, ‘আমার কাছে ব্যক্তিগতভাবে ভালো–বিগত কয়েকবছর ধরে ওয়ানডেতে ভালো ক্রিকেট খেলছি, তাই আমার মনে হয় ওয়ানডেতে আমাদের খুবই ভালো সম্ভাবনা আছে। এবং টি–টোয়েন্টিতেও আমাদের যে টিম–আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডে ও টি–টোয়েন্টিতে যথেষ্ট সম্ভাবনা আছে। আর টেস্টের কথা যদি বলেন, তাদের হোম কন্ডিশনে খেলা, আমরা যদি আমাদের দায়িত্ব অনুযায়ী ভালো খেলতে পারি, তাহলে টেস্টেও পজিটিভ কিছু আশা করতে পারি।’

‘লাস্ট আমরা যখন জিম্বাবুয়ে গিয়েছি আমরা ট্রফিটা আনতে পারিনি। যদিও ইন শা আল্লাহ এবার আমাদের টিমটা ভালো। ব্যালেন্স টিম। ভালো ভালো ক্রিকেটার আমাদের টিমে আছে। আমরা যদি ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি–তাহলে ট্রফিটা এবার ইন শা আল্লাহ বাংলাদেশ নিয়ে আসবে।’

এদিকে বেশ কিছুদিন ধরে পিঠের চোটে ভোগা রুবেল এখন পুরোপুরি ফিট। সদ্য সমাপ্ত  ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) অবশ্য কিছুটা অস্বস্তিতে ছিলেন। যদিও বল হাতে সেটির জানান দিয়েছেন কমই, প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে নিয়েছেন ১১ ম্যাচে ১৭ উইকেট।

নিজের ফিটনেস নিয়ে ৩১ বছর বয়সী এই পেসার যোগ করেন, ‘আমি সুস্থ ও ফিট আছি। লাস্ট ডিপিএলে আমার একটু….সমস্যা ছিল। এখন হান্ড্রেড পার্সেন্ট ফিট আছি। যদি সুযোগ পাই শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করব।’

জিম্বাবুয়ের কন্ডিশনে পেসারদের বড় ভূমিকা দেখেন রুবেল, ‘যেহেতু আমাদের এরকম ঠাণ্ডা কন্ডিশনে আমরা অনেক ট্যুর করেছি। পেস বোলারদের জন্য একটু চ্যালেঞ্জিং। যদিওবা পেস বোলারদের অনেক বড় ভূমিকা রাখতে হবে জিম্বাবুয়ে সিরিজে। পেসাররা যদি টিমের প্লান অনুযাায়ী দায়িত্ব নিয়ে বোলিং করতে পারি–তাহলে ইন শা আল্লাহ আমার মনে হয় পেসাররা অনেক সফল হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের আগ্রহ দেখিয়েছে ‘১৭’ দেশ

Read Next

শামীমকে নিয়ে আশাবাদী রুবেল, ভাগাভাগি করবেন অভিজ্ঞতা

Total
21
Share