তামিমের বিশ্রাম প্রয়োজন ‘৮’ সপ্তাহ

ব্যাটিংয়ে মুমিনুলরা, খেলছেন না তামিম-মুশফিক
Vinkmag ad

হাঁটুর চোটে তামিম ইকবাল খেলতে পারেননি ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগ। জিম্বাবুয়ে সফরের আগেও কিছুটা শঙ্কা ছিল। জিম্বাবুয়ে পৌঁছে একমাত্র টেস্টের আগে শঙ্কাটা আরও গাঢ় হচ্ছে। বিসিবির মেডিকেল টিম বলছে ৭ জুলাই থেকে শুরু হওয়া টেস্টে তামিম খেলবেন কিনা সে সিদ্ধান্ত নিবে ফিজিও, টিম ম্যানেজমেন্ট ও তামিম নিজে।

তবে জিম্বাবুয়ে সফরে প্রথম টেস্টে না খেলার আভাসই মিলছে। শেষ পর্যন্ত খেললেও ৮ সপ্তাহের বিশ্রামে থাকতে হবে। তখন ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি সিরিজও অনিশ্চয়তায়। আর পুরো সিরিজের ব্যাপারেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে তামিমকে। নিজের অবস্থা সম্পর্কে তার চাইতে ভালো জানার কথা নয় অন্যদের।

জিম্বাবুয়ে পৌঁছে অনুশীলনে ভালো বোধ করননি তামিম। দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচেও শুরুতে নাম ছিলনা, শেষদিকে কেবল ঘন্টাখানেক ব্যাটিং করেছেন। জাতীয় দলের ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতো পাসপোর্ট জটিলতায় এখনো যোগ দিতে পারেননি। ফলে দায়িত্ব সামলাচ্ছেন বিসিবির ফিজিও বায়েজিদ ইসলাম খান।

মুঠোফোনে ‘ক্রিকেট৯৭’ থেকে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কিছুই বলতে নারাজ। তবে বিসিবির মেডিকেল বিভাগের একটি সূত্র ‘ক্রিকেট৯৭’ কে জানিয়েছে তামিমের চোটের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যত সম্পর্কে।

তিনি (সূত্র) বলেন, ‘তামিম ইকবালের হাঁটুর যে চোট সেটা আসলে এখনো পর্যবেক্ষণে আছে। সিদ্ধান্তটা এখন ফিজিও, উনি নিজে এবং টিম ম্যানেজমেন্ট বসেই নিবে। আজ অনুশীলনের পর বোঝা যাবে কি অবস্থায় আছে। স্বাভাবিকভাবে এসব চোট সারতে অন্তত ৮ সপ্তাহের বিশ্রাম লাগে। সে ক্ষেত্রে উনি খেললেও খেলার পরে এই ৮ সপ্তাহের বিশ্রাম নিতে হবে।’

তার কথায় আভাস মেলে জিম্বাবুয়ে সফরে কোনো নির্দিষ্ট ফরম্যাটে ঠিকই খেলা হচ্ছে না তামিমের। যদিও পুরো সিদ্ধান্তটা তামিম ও টিম ম্যানেজমেন্টের ওপরই বর্তান সূত্রটি।

‘অনেক সময় এসব ক্ষেত্রে খেলোয়াড় নিজেই সিদ্ধান্ত নেয়, নিজের অবস্থাটা বুঝতে পারে, ধরতে পারে। এর বাইরে ফিজিওতো সার্বক্ষণিক দেখভাল করছেন, মূলত আজই উনার ফিটনেস টেস্ট, ম্যাচ খেলার মত কতটা ফিট এসব দেখে একটা সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

হেরাথের মানসিকতায় মুগ্ধ মিরাজ

Read Next

টেইলরের হ্যাটট্রিকের দিনে পাকিস্তানের হারের হ্যাটট্রিক

Total
1
Share