পিএসএল ৬ এর শিরোপা জিতল মুলতান সুলতান্স

পিএসএল ৬ এর শিরোপা জিতল মুলতান সুলতান্স
Vinkmag ad

হায়দার আলির বদলে পাকিস্তানের ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের স্কোয়াডে যুক্ত হয়েছেন শোয়েব মাকসুদ, জাতীয় দলে ডাক পাবার দিন দারুণভাবে স্মরনীয় করে রাখলেন তিনি। পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) ৬ এ নিজের ৫ম ফিফটি তুলে নিয়ে দল মুলতান সুলতান্সকে শিরোপা জিতিয়েছেন তিনি।

শোয়েব মাকসুদ ও রাইলি রুশোর দাপুটে ব্যাটিংয়ের দিনে ফাইনালে পেশোয়ার জালমিকে ৪৭ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুলতান সুলতান্স।

একদফা জীবন পেয়ে সেটা দারুণভাবে কাজে লাগান মাকসুদ। ৬ টি চার ও ৩ টি ছক্কায় ৩৫ বলে ৬৫ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। ব্যাট হাতে আরও বিদ্ধংসী ছিলেন মুলতানের দক্ষিণ আফ্রিকান রিক্রুট রাইলি রুশো। ৫ টি চার ও ৩ টি ছক্কায় ২১ বলে ৫০ রান করেন তিনি। এবারের টুর্নামেন্টে এর আগে কোন ফিফটি না পেলো মূল মঞ্চে ঠিকই জ্বলে ওঠেন তিনি।

২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে রেকর্ড ২০৬ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে মুলতান সুলতান্স। মাকসুদ-রুশো ছাড়াও রান পান শান মাসুদ, মোহাম্মদ রিজওয়ান। ২৯ বলে ৩৭ রান করেন শান, ৩০ বলে ৩০ রান করেন রিজওয়ান। শেষদিকে নেমে ৫ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন খুশদিল শাহ।

পেশোয়ার জালমির পক্ষে ২ টি করে উইকেট নেন শামিন গুল ও মোহাম্মদ ইমরান।

লক্ষ্য তাড়ায় নামা পেশোয়ার জালমির কাজটা শুরু থেকেই ছিল কঠিন। সেই কাজ আরও কঠিন করে দেন ব্লেসিং মুজারাবানি। ফর্মে থাকা হযরতউল্লাহ জাজাইকে ৬ রানের বেশি করতে দেননি তিনি। তিনে নামা জোনাথন ওয়েলসও ৬ রান করেন, কাটা পড়েন রান আউটে।

শুরুটা দারুণ করলেও ৩৬ এ থামেন কামরান আকমল। ২৮ বলে ৫ চার ও ১ ছয়ে ৩৬ রান করা কামরানকে বোল্ড করেন ইমরান খান সিনিয়র।

ধুকতে থাকা পেশোয়ারের ইনিংসে প্রাণ আনে শোয়েব মালিক ও রবম্যান পাওয়েলের জুটি। ৪র্থ উইকেটে দুজনে মিলে ৬৬ রান যোগ করেন। তবে তাদের প্রতিরোধ যথেষ্ট হয়নি। দুজনের বিদায়ের পর আর তাল মেলাতে পারেনি ওয়াহাব রিয়াজরা। ২৮ বলে ৩ টি করে চার ও ছক্কায় পেশোয়ারের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন শোয়েব মালিক। ১৪ বলে ২৩ রান করেন রবম্যান পাওয়েল। শেরফানে রাদারফোর্ডের ব্যাট থেকে আসে ১৮ রান।

২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৫৯ রানে থামে পেশোয়ারের ইনিংস। মুলতানের হয়ে বল হাতে ৩ উইকেট নেন ইমরান তাহির। ২ টি করে উইকেট পান ইমরান খান ও ব্লেসিং মুজারাবানি, সোহেল তানভীরের শিকার ১ উইকেট।

৪৭ রানে জিতে প্রথমবারের মত পিএসএলের শিরোপা নিজেদের ঘরে নেয় মুলতান সুলতান্স। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয়াংশে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় মোহাম্মদ রিজওয়ানের নেতৃত্বাধীন দল। করোনার প্রভাবে পাকিস্তানে হতে থাকা পিএসএল স্থগিত হবার সময় ৫ নম্বরে ছিল দলটি, সংযুক্ত আরব আমিরাতে এসে দলটি হয়ে গেল চ্যাম্পিয়ন।

ফাইনালে অপরাজিত ফিফটি করে শোয়েব মাকসুদ হয়েছেন ম্যান অব দ্য ফাইনাল, ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্টও হয়েছেন তিনি। জিতেছেন টুর্নামেন্ট সেরা ব্যাটসম্যানের ট্রফিও।

টুর্নামেন্টের সেরা বোলার হয়েছেন শাহনেওয়াজ ধানি, সেরা ইমার্জিং ক্রিকেটারের তকমাও পেয়েছেন তিনি। ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের ইফতিখার আহমেদ হয়েছেন টুর্নামেন্ট সেরা ফিল্ডার।

মুলতানকে দারুণ নেতৃত্বগুণে শিরোপা জেতানো মোহাম্মদ রিজওয়ান হয়েছেন টুর্নামেন্টের সেরা উইকেটরক্ষক। টুর্নামেন্ট সেরা ক্রিকেটারদের নির্বাচন করেছেন ডেভিড গাওয়ার, নাদিম খান, পমি এমবাঙ্গুয়া, রমিজ রাজা ও সানা মির।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

মুলতান সুলতান্স ২০৬/৪ (২০), মাকসুদ ৬৫*, রুশো ৫০, মাসুদ, ৩৭, রিজওয়ান ৩০; শামিন ২৬/২, ইমরান ৪৭/২

পেশোয়ার জালমি ১৫৯/৯ (২০), মালিক ৪৮, আকমল ৩৬, পাওয়েল ২৩, রাদারফোর্ড ১৮; তাহির ৩৩/৩, মুজারাবানি ২৬/২, ইমরান ২৭/২

ফলাফলঃ মুলতান সুলতান্স ৪৭ রানে জয়ী

ম্যান অব দ্য ফাইনাল ও টুর্নামেন্টঃ শোয়েব মাকসুদ (মুলতান সুলতান্স)

ব্যক্তিগত পুরষ্কার জিতলেন যারাঃ

টুর্নামেন্ট সেরা ব্যাটসম্যান- শোয়েব মাকসুদ (৪২৮ রান, ৪৭.৫৫ গড়, ১৫৬.৭৭ স্ট্রাইক রেট)
টুর্নামেন্ট সেরা বোলার- শাহনেওয়াজ ধানি (মুলতান সুলতান্স, ২০ উইকেট)
টুর্নামেন্ট সেরা উইকেটরক্ষক- মোহাম্মদ রিজওয়ান (মুলতান সুলতান্স, ২০ ডিসমিসাল)
টুর্নামেন্টের সেরা ইমার্জিং ক্রিকেটার- শাহনেওয়াজ ধানি
টুর্নামেন্ট সেরা ফিল্ডার- ইফতিখার আহমেদ (ইসলামাবাদ ইউনাইটেড, ৯ ক্যাচ)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

প্রিটোরিয়াসের সর্বনাশে মুলডারের পৌষ মাস

Read Next

পিএসএল ৬: টিম অব দ্য টুর্নামেন্ট

Total
19
Share