সাকিবের শাস্তি কমাতে আপিল করেছে মোহামেডান

সাকিব বিতর্কের সুরাহা করতে ম্যাচ রেফারির রিপোর্টের অপেক্ষায় সিসিডিএম

প্রথমে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ থেকে লাথি দিয়ে ভাঙলেন স্টাম্প, পরে বৃষ্টির কারণে কাভার দিয়ে উইকেট ঢাকতে বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে তুলে ফেললেন স্টাম্প। আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে শুক্রবার এমন বিতর্কিত কান্ডে সাজা পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ হওয়ার সাথে জরিমান গুনতে হচ্ছে পাঁচ লাখ টাকা। এই সাজার বিরুদ্ধে অবশ্য আপিল করেছে মোহামেডান।

সাকিবের শাস্তি কমানোর জন্য ডিপিএল আয়োজক সিসিডিএম (দ্য ক্রিকেট কমিট অব ঢাকা মেট্রপলিস) এর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আপিল করেছে মোহামেডান ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রিকেট কমিটির প্রধান মাসুদুজ্জামান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সাকিবের শাস্তি কমানোর বিষয়টি নিয়ে আমরা সিসিডিএমের কাছে আপিল করেছি। গতকা রাত সাড়ে ৯টার দিকে আমরা সিসিডিএমকে মেইল করেছি। যেহেতু সিদ্ধান্তটি পেতে দেরি হয়েছে। এরপর আমাদের ক্লাব কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আপিলের। এটি আর্কাইভ করে পাঠাতে একটু দেরি হয়ে গেছে। কালকে রাতেই মেইল করেছি। আজকে সরাসরি চিঠি গেছে।’

মোহামেডান আপিল করার কথা বললেও সিসিডিএম এখনো কোন আপিল পায়নি বলে জানিয়েছে।

উল্ললখ্য, ঘটনার সূত্রপাত ১১ জুন ম্যাচে আবাহনী ইনিংসের ৫ম ওভারে। মোহামেডানের দেওয়া ১৪৬ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ৯ রানে ৩ উইকেট নেই আবাহনীর। ইনিংসের ৫ম ওভারে বল হাতে নিয়ে মুশফিকুর রহিমের বিপক্ষে এলবিডব্লিউউর আবেদন সাকিবের। পরিষ্কার আউট মনে হলেও আম্পায়ার ইমরান পারভেজ নাকচ করে দেন। তাতে অসন্তোষ প্রকাশ করে সাকিব লাথি মেরে ভাঙেন স্টাম্প, বাগ বিতন্ডায় জড়ান আম্পায়ারের সাথে।

পরের ওভারে আরও বড় বিতর্ক, ৬ষ্ঠ ওভারের ৫ম বল শেষে বৃষ্টির সম্ভাবনায় আম্পায়ার খেলা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু তাতে কোনো কারণে আবারও অসন্তোষ সাকিবের। এবার এক প্রান্তের তিনটি স্টাম্প উপড়ে ফেলেন, আম্পায়ারের সাথে বাগ বিতন্ডা হয় আরেক দফা। আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের সাথে কথা কাটাকাটিও হয়। যদিও পরে সুজনের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন সাকিব, আবাহনী ড্রেসিং রুমে এসে দুঃখ প্রকাশও করে। ক্ষমা চেয়ে নিজের ফেসবুকেও দেন স্ট্যাটাস।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আবাহনীর পর ওল্ড ডিওএইচএসকেও হারাল মোহামেডান

Read Next

মুনিম শাহরিয়ারের ব্যাটে চড়ে প্রাইম ব্যাংককে হারাল আবাহনী

Total
19
Share