মুনরো-খাজা ঝড়ে ইসলামাবাদের রেকর্ড গড়া জয়

মুনরো-খাজা ঝড়ে ইসলামাবাদের রেকর্ড গড়া জয়

পিএসএলে কোয়েট্টা গ্ল্যাডিয়েটর্সকে ১০ উইকেটে হারিয়ে উড়িয়ে দিল ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। ব্যাটে কিংবা বলে, কোনো বিভাগেই তাদের কাছে পাত্তা পায়নি সরফরাজের দল। ১৩৪ রানের লক্ষ্য ১০ ওভারেই টপকিয়ে যায় ইসলামাবাদের দুই ওপেনার কলিন মুনরো ও উসমান খাজা। রেকর্ড গড়ে বড় জয়ের দিন ম্যাচ সেরা ৯০ রানের ইনিংস খেলা মুনরো।

টস হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো কোয়েট্টা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে কেউই বড় স্কোর করতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন জ্যাক ওয়েদারেল্ড। এছাড়া আজম খানের ব্যাট হাতে আসে ২৬ রান। ওপেনার উসমান খান করেন ১৪ রান।

ফাফ ডু প্লেসিস বোল্ড হন ৫ রানে। অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ এদিন ব্যর্থ (২)। দারুণ শুরুর পরেও ইনিংস বড় হয়নি আন্দ্রে রাসেলের (১৩)। আর তাতেই নির্ধারিত ২০ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে কোয়েট্টা গ্ল্যাডিয়েটর্স স্কোরবোর্ডে জমা করে ১৩৩ রান।

ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বোলারদের মধ্যে হাসান আলি, মোহাম্মদ ওয়াসিম ও মোহাম্মদ মুসা ২টি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়া শাদাব খান ও আকিফ জাভেদের ঝুলিতে ১টি করে উইকেট আসে।

এরপর কলিন মুনরোর ব্যাটিং ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে যায় কোয়েট্টার বোলিং লাইন। পাওয়ার প্লে-তে দুই ওপেনার কলিন মুনরো ও উসমান খাজার ব্যাটে ৯৭ রান তোলে ইসলামাবাদ, যা পিএসএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ সংগ্রহ। একাধিক রেকর্ড গড়ার দিনে ১০ ওভার বাকি থাকতেই (পিএসএল ইতিহাসে প্রথমবার) কোন উইকেট না হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইসলামাবাদ ইউনাইটেড।

৩৬ বলে ৯০ রানে অপরাজিত থাকেন কলিন মুনরো। আরেক ওপেনার উসমান খাজা ২৭ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন। ১২ চার ও ৫ ছয়ে ৯০ রানের ইনিংস সাজানো কলিন মুনরো পেয়েছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

কোয়েট্টা গ্ল্যাডিয়েটর্সঃ ১৩৩/১০ (২০ ওভার) জ্যাক ৪৩, আজম ২৬, উসমান ১৪, রাসেল ১৩, সরফরাজ ২; ওয়াসিম ২/১২, হাসান ২/২৪, মুসা ২/৩৮, আকিফ ১/১৮, শাদাব ১/৩৩

ইসলামাবাদ ইউনাইটেডঃ ১৩৭/০ (১০ ওভার) কলিন মুনরো ৯০, উসমান খাজা ৪০

ফলাফলঃ ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ১০ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ কলিন মুনরো (ইসলামাবাদ ইউনাইটেড)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দুই ফিফটিতে ভালো অবস্থানে নিউজিল্যান্ড

Read Next

সাকিবকে ‘ভিলেন’ বানানোর চেষ্টা হচ্ছে মনে করেন শিশির

Total
24
Share