নতুনদের জন্য জাতীয় দলের পথ কঠিন হচ্ছে

নতুনদের জন্য জাতীয় দলের পথ কঠিন হচ্ছে

ঘরোয়া ক্রিকেটের কোনো নির্দিষ্ট আসরে ভালো করেই জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন এমন নজির আছে বহু। তবে এ পথে হাঁটতে গিয়ে হোঁচট খেতে হয়েছে টাইগার নির্বাচকদের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খাপ খাওয়াতে না পেরে অল্প দিনেই যাত্রার অবসান ঘটেছে অনেকের। কিন্তু এবার আর তেমন কিছুর ভাবনা নেই নির্বাচকদের। চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) থেকে সরাসরি জাতীয় দলের জন্য বিবেচিত হতে হলে করতে হবে অতি অসাধারণ কিছু।

জাতীয় দলের নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক জানালেন আগে থেকেই রাডারে থাকা ক্রিকেটারদের দিকেই থাকবে নজর। সেখান থেকে ভালো পারফর্ম করাদের জন্যই আসন্ন সিরিজগুলোর দরজা খুলবে। নতুন কাউকে সে দরজায় টোকা দিতে হলে করতে হবে বেশ দুর্দান্ত কিছু। যদিও মাত্রই তিন রাউন্ড শেষ হওয়ায় কাউকে নিয়ে আলাদা করে বলার সময় আসেনি বলেও জানান দিলে রাজ্জাক।

শনিবার মিরপুরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সাবেক এই বাঁহাতি স্পিনার বলেন, ‘নির্বাচনের ব্যাপারটা সবসময় একই, পারফর্ম করবে যারা তাদেরই বিবেচনা করা হবে। এখন এটা যেকোনো টাইপের প্লেয়ার…আল্টিমেটলি একদম বাইরে থেকে আসতে হলে তাকে এক্সট্রা অর্ডিনারি করা লাগে। যেমন কেউ আমাদের রাডারে নাই এমন কেউ… মূলত যারা পারফর্ম করছে তাদেরই আমরা নজরে রাখছি।’

জাতীয় দলের জন্য কাউকে বিবেচনায় নিতে মাত্র কয়েক ম্যাচের পারফরম্যান্স মূল্যায়ণ করাকে রাজ্জাক বলছেন উদ্ভট ভাবনা।

তিনি যোগ করেন, ‘আসলেই অল্প ম্যাচ হয়েছে (ডিপিএলে)। এই চার, ছয় ম্যাচে কোনো প্লেয়ারকে জাতীয় দলের জন্য বিবেচনা করে ফেললাম, এটা আসলে একটু কঠিন। আর আমার কাছে উদ্ভট লাগে ব্যাপারটা।’

‘জাতীয় দলের জন্য কাউকে বিবেচনা করবো, জাতীয় দলে সে খেলবে। কিন্তু সে দুই, চার-পাঁচ বাঁ ছয়টা ম্যাচের মধ্যে দুই একটা ম্যাচ অতি অসাধারণ কিছু করে ফেলবে এমন মনে করে নিব আমি, এটা ঠিক হবেনা।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার নির্বাচক প্যানেলে নয়া দুই সদস্য

Read Next

উসমান খাজার মিশনঃ অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে বৈচিত্র্য আনা

Total
1
Share