প্রয়োজনে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই চলবে ঘরোয়া ক্রিকেট

প্রয়োজনে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই চলবে ঘরোয়া ক্রিকেট

করোনার প্রভাব শেষে দেশের ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ব্যস্ততা শুরু হয়েছে। ফলে আন্তর্জাতিক সিরিজ ও ঘরোয়া ক্রিকেট বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সাংঘর্ষিক হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা। বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট কাঠামো মূলত জাতীয় দলের খেলোয়াড় নির্ভর হলেও ব্যস্ত সূচি বিবেচনায় সেটি এড়িয়ে যেতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রয়োজনে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই যথানিয়মে চলবে ঘরোয়া ক্রিকেট।

দেশের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ঘরোয়া টুর্নামেন্টের সূচিই নির্ধারিত হয় জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের পাওয়া যাবে এমন সময় বিবেচনায় নিয়ে। বিশেষ করে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) ক্লাবগুলোর মূল চাহিদাই জাতীয় দলের ক্রিকেটার। এর বাইরে জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল), বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) সহ অন্যান্য টুর্নামেন্টেও পরিস্থিতি অনেকটা একই রকম।

তবে আইসিসি ইভেন্ট ও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ মিলিয়ে ২০২৩ সাল পর্যন্ত বেশ ব্যস্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সূচি টাইগারদের। ফলে এমন পরিস্থিতিতে ঘরোয়া ক্রিকেটের সরব আয়োজন নিয়ে কিছুটা শঙ্কা জাগলেও তা উড়িয়ে দিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন।

আজ (২ জুন) মিরপুরে সাংবাদিকদের তিনি জানান কোনো টুর্নামেন্টের সাথে আন্তর্জাতিক সূচি সাংঘর্ষিক হলে জাতীয় দলের বাইরের খেলোয়াড়দের নিয়েই চলবে ঘরোয়া ক্রিকেট।

নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেট আয়োজনে প্রভাব পড়বে না। আমরা একটা নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছি যে, আগামীতে যদি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সাথে ঘরোয়া ক্রিকেটের সংঘর্ষ হয় তাহলে আমাদের আন্তর্জাতিক খেলার বাইরের খেলোয়াড়দের নিয়েই ঘরোয়া ক্রিকেট করতে হবে। আমাদের এই সীমাবদ্ধতার মধ্যেই খেলা চালিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সূচি একসাথে পড়ে গেলে জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের ঘরোয়া ক্রিকেটে পাওয়া যাবে না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

র‍্যাংকিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে চামিরা, পেরেরার বড় লাফ

Read Next

র‍্যাংকিংয়ে এগিয়েছেন তাসকিন, রিয়াদ, মোসাদ্দেক

Total
9
Share