বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের টাইটেল স্পন্সর ওয়ালটন

বঙ্গবন্ধু ডিপিএল- স্পন্সর্ড বাই ওয়ালটন

টানা নবমবারের মতো ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের (ডিপিএল) টাইটেল স্পন্সর হলো ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে এবারের ডিপিএলের নাম ‘বঙ্গবন্ধু ডিপিএল, স্পন্সর্ড বাই ওয়ালটন’।

দেশের ক্রিকেটের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে ওয়ালটনের নাম। ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিয়মিত পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছে ইলেক্ট্রনিক্স পন্য উৎপাদনকারী দেশের অন্যতম এই প্রতিষ্ঠান। ২০২৩ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের হোম সিরিজে পাওয়ার স্পন্সর হয়েছে ওয়ালটন।

দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে জৌলুসপূর্ণ ও মর্যাদার আসর ডিপিএলে টানা ৯ বছর এবং জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) টানা দশ আসরের স্পন্সর ওয়ালটন।

পাশাপাশি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকও কোম্পানিটি। এরই মধ্যে তারা প্রতিযোগিতার প্রথম ও চতুর্থ আসরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

রোববার (৩০ মে) বেলা ১২টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু ডিপিএলের স্পন্সর হিসেবে ওয়ালটন গ্রুপের নাম ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিসিবির পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস, বিসিবির পরিচালক ও ঢাকা লিগের আয়োজক সিসিডিএমের চেয়ারম্যান কাজী ইনাম, বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন, ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম, ওয়ালটনের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা ফিরোজ আলম, অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর মিলটন আহমেদ এবং সিসিডিএমের সমন্বয়ক আলী হোসেন।

সিসিডিএমের চেয়ারম্যান কাজী ইনাম ওয়ালটন গ্রুপকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘সোমবার থেকে ডিপিএল শুরু হচ্ছে। গত বছর করোনার কারণে এক রাউন্ডের পর লিগ স্থগিত হয়েছিল। এবার সেই লিগটি আবার শুরু হচ্ছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে মাথায় রেখে এবার আমরা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে লিগ আয়োজন করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘বরাবরের মতো এবারও আমরা লিগের স্পন্সর হিসেবে ওয়ালটনকে পেয়েছি। ওয়ালটন আমাদের গত আট বছর স্পন্সর করেছে। শুধু ডিপিএল নয় জাতীয় ক্রিকেট লিগের স্পন্সরও ওয়ালটন। এছাড়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তারা বিসিবিকে অবিশ্বাস্যভাবে সহযোগিতা করে আসছে। শুধু ক্রিকেট নয়, তারা দেশের অন্যান্য স্পোর্টসে সহযোগিতা করে আসছে।’

ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম বলেন, ‘আমি বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তারা এক যুগ ধরে আমাদের পৃষ্ঠপোষকতার সুযোগ করে দিয়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেট হচ্ছে আমাদের ক্রিকেটের মূল ভিত্তি। আমরা চাই সব সময় ক্রিকেটের পাশে থাকতে, সব সময় ক্রিকেটের উন্নয়নে বিসিবির পাশে থাকতে।’

বিসিবির পরিচালক জালাল ইউনুস বলেন, ‘ওয়ালটন গ্রুপকে নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। কোভিডের এ পরিস্থিতিতে অনেক প্রতিষ্ঠান স্পন্সর করতে চান না। সেখানে এ বিপদেও মধ্যেও কিন্তু ওয়ালটন আমাদের ছেড়ে যায়নি। আমাদের সাথেই আছে। তারা অতীতেও ছিলেন। বর্তমানেও আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।’

১২ দল নিয়ে ঢাকা লিগ শুরু হবে সোমবার (৩১ মার্চ) থেকে। মিরপুর ও বিকেএসপির দুটি মাঠে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে নামবে ঢাকার সেরা ক্লাবগুলো। ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে জৌলুসপূর্ণ ও মর্যাদার আসর ঢাকা লিগ। এবার পুরো মৌসুমে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের পাওয়া যাবে। ফলে মাঠের লড়াইয়ে থাকবে উত্তেজনা, রোমাঞ্চ।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কোহলি বলছেন ওয়াসিম আকরাম ভোগাতে পারতেন তাকে

Read Next

অনুরোধ করে হলেও আবাহনীতে উপরের দিকে খেলতে চান সাইফউদ্দিন

Total
16
Share