লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা নেটের প্রতাপ ধরে রাখতে পারছেন না মাঠে

লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা নেটের প্রতাপ ধরে রাখতে পারছেন না মাঠে

উপমহাদেশের দল বলে বাংলাদেশের স্পিনারদের সামলাতে শ্রীলঙ্কা খুব বেশি ভুগবেনা বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। তবে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দু’টিতে যেন দাঁড়াতেই পারেনি সফরকারীরা। মেহেদী হাসান মিরাজ, সাকিব আল হাসানদের সামনে কুশল পেরেরার দলকে অসহায় দেখে অবাক লঙ্কান কোচ মিকি আর্থারও। অন্তত স্পিন খেলার দিক থেকে এমনটা আশা করেননি, বিশেষ করে নেটে সাবলীল দেখা ব্যাটসম্যানদের মাঠের পারফরম্যান্স আশ্চর্যই করেছে তাঁকে।

প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের ২৫৮ রান তাড়া করতে নেমে ৩৩ রানে হেরেছে শ্রীলঙ্কা। যেখানে লোয়ার মিডল অর্ডারের ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার ৭৪ রান ছাড়া বলার মত স্কোর ছিল না কারও। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩০ রান আসে অধিনায়ক কুশল পেরেরার ব্যাট থেকে। ২২৪ রানে অল আউট হওয়া শ্রীলঙ্কার টপ অর্ডার ধসানো টাইগার স্পিনাররা নিয়েছেন ৫ উইকেট। মেহেদী হাসান মিরাজের ৪ উইকেটের সাথে সাকিব আল হাসানের ১ উইকেট।

দ্বিতীয় ম্যাচে ২৪৭ রান তাড়া করতে নেমে বৃষ্টি আইনে ১০৩ রানে হারা ম্যাচেও স্পিনারদের সামনে সংগ্রাম করেছে লঙ্কানরা। তাদের হারানো ৯ উইকেটের ৫ টি নিয়েছে স্পিনাররা। মিরাজের ৩ উইকেটের সাথে সাকিবের দুইটি। দুই ম্যাচে সফরকারীদের ১৯ উইকেটের ১০টিই মিরাজ-সাকিবের।

এমন কিছু অবশ্য প্রত্যাশা করেননি দলটির কোচ মিকি আর্থার। তার মতে লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা নেটে দারুণভাবে সামলায় স্পিন।

আজ (২৭ মে) মিরপুরে অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন,

‘স্পিনারদের সামলাতে আমাদের সংগ্রাম করতে হচ্ছে। যা আমাকে বেশ আশ্চর্য করেছে। নেটে আমি যেসব ব্যাটসম্যানদের দেখি তারা সম্পূর্ণ আলাদা যারা কিনা দারুণ সাবলীল। হতে পারে চাপ কিংবা ব্যর্থতার ভয় থাকতে পারে তাদের মনে, এসব মন থেকে দূরে সরাতে হবে।’

তবে শিষ্যদের উপর থেকে আস্থা হারাচ্ছেন না আর্থার। আগামীকাল (২৮ মে) শেষ ওয়ানডেতে খুব ভালো পারফরম্যান্স আশা করছেন।

আর্থারের প্রত্যাশা,

‘তারা বেশ দক্ষ ব্যাটসম্যান বিশেষ করে স্পিনের বিপক্ষে। তারা এখনো পর্যন্ত সেটা দেখাতে পারেনি কিন্তু আমি আগামীকাল সত্যি খুব ভালো পারফরম্যান্সের দিকে তাকিয়ে আছি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ডিপিএলের আগে করোনা টেস্টে পজিটিভ ‘৯’ জন

Read Next

ক্যারিয়ার সেরা ফিটনেস লেভেলে আছেন রিয়াদ, সাফল্য পেতে যেভাবে নেন প্রস্তুতি

Total
1
Share