১১ বলের আক্ষেপ লুকালেন না মুশফিক

১১ বলের আক্ষেপ লুকালেন না মুশফিক

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথমবারের মত ওয়ানডে সিরিজ জেতা ম্যাচে ২৫ মে বাংলাদেশের হয়ে ব্যাট হাতে একাই লড়েছেন মুশফিকুর রহিম। তার অনবদ্য ১২৫ রানের ইনিংসে ভর করে পাওয়া ২৪৬ রানের পুঁজিকে জয়ের জন্য যথেষ্ট প্রমাণ করে বোলাররা। তবে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মুশফিক যখন আউট হন তখনো ইনিংসের ১১ বল বাকি। ঐ ১১ বল খেলতে না পারার আক্ষেপের কথা ম্যাচ শেষে জানালেন মুশফিক।

প্রথম ওয়ানডের পর দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও বাংলাদেশ ইনিংসের চালক মুশফিক। প্রথম ওয়ানডেতে ৯৯ রানে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ৮৪ রানের ইনিংসে দলকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দেন মুশফিক, ৩৩ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। গতকাল পরিস্থিতি আরও খারাপ, ৭৪ রানেই নেই ৪ উইকেট। সেখান থেকে তার ব্যাটে চড়েই ২৪৬ রানের সংগ্রহ।

আউট হওয়ার আগে খেলেছেন ১২৭ বলে ১০ চারে ১২৫ রানের ইনিংস। অন্য প্রান্তে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৪১) ছাড়া যোগ্য কোনো সঙ্গী পাননি। এরপরও যতক্ষণ ক্রিজে ছিলেন দলের রানের চাকা সচল রেখেছেন। আউট হয়েছেন শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে, ১১ বল বাকি থাকতে আউট না হলে দলের রানও আরও বাড়তো।

ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতা মুশফিক সেই আক্ষেপ লুকালেন না। ১০৩ রানের বড় জয়ের পরও বলছেন উন্নতির জায়গা আছে, বিশেষ করে ব্যাটসম্যানদের ভয়ডরহীন সিলেক্টিভ ক্রিকেট খেলার পরামর্শ দিলেন।

তিনি বলেন, ‘সামনে থেকে দলে অবদান রাখা দারুণ ব্যাপার। কিন্তু আমি শেষ ১১ বল খেলতে না পেরে হতাশ। মাহমুদউল্লাহ ভালো ব্যাট করেছে আর কিছু ছেলে বেশ ভালো চেষ্টা করেছে এবং আজকে রাতে বোলারদের প্রচেষ্টা বিশেষ কিছু।’

‘আমাদের উন্নতির জায়গা আছে। আমাদের ভয়ডরহীন হতে হবে, কিন্তু ভয়ডরহীন ও সিলেক্টিভ ক্রিকেটের মধ্যে দারুণ রেখা আছে। আশা করি আমাদের ব্যাটসম্যানরা এই ম্যাচ থেকে কিছু জিনিস নিবে এবং পরের ম্যাচে ভালোভাবে কামব্যাক করবে। কারণ এটা ব্যাট করার মত সহজ পিচ না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয়

Read Next

হতাশ পেরেরা বসবেন ব্যাটসম্যানদের সঙ্গে

Total
3
Share