হ্যাডলির চোখে সর্বকালের সেরা সোবার্স, বর্তমানে স্টোকস

হ্যাডলির চোখে সর্বকালের সেরা সোবার্স, বর্তমানে স্টোকস

৭০ ও ৮০ এর দশকে ছিল অলরাউন্ডারের ছড়াছড়ি। চার বিশ্বমানের অলরাউন্ডারের একজন ছিলেন নিউজিল্যান্ডের রিচার্ড হ্যাডলি। কিউইদের হয়ে ৮৬ টেস্ট ও ১১৫ ওয়ানডে খেলা হ্যাডলি ছিলেন নিউজিল্যান্ডের অনেক জয়ের নায়ক।

টেস্টে ৩১২৪ রানের মালিক হ্যাডলির উইকেট ৪৩১। ওয়ানডেতে ১৭৫১ রানের সাথে ১৫৮ উইকেট। বোলিং ছিল হ্যাডলির মূল শক্তির জায়গা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২ সেঞ্চুরি ও ১৯ ফিফটির মালিক ব্যাট হাতেও দলে ভূমিকা রাখতেন।

৬৯ বছর বয়সী এই কিউই অলরাউন্ডার সম্প্রতি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অলরাউন্ডারদের নিয়ে কথা বলেছেন। নিজের সময়ে ইমরান খান, ইয়ান বোথাম, কপিল দেবদের সঙ্গে লড়াই, জ্যাক ক্যালিস পরবর্তী সময়ে বর্তমানে অলরাউন্ডারদের কেমন দেখছেন তা জানিয়েছেন তিনি।

নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের সময় নিয়ে হ্যাডলি বলেন, ‘৭০ ও ৮০ এর দশকে অলরাউন্ডারদের লড়াই ছিল স্পেশাল সময়। আমরা একে অপরের বিপক্ষে প্রতিযোগিতায় নামতাম এবং সবার মাঝে সাফল্যের জন্য তীব্র ক্ষুধা ও সংকল্প ছিল। দলে (নিউজিল্যান্ড) আমার ভূমিকা থাকত ইমরান খান, ইয়ান বোথাম বা কপিল দেবদের চেয়ে ভালো পারফর্ম করা। আমাদের চারজনের মধ্যে অসাধারণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল, সাথে পারষ্পারিক শ্রদ্ধাবোধও ছিল।’

‘আমি বোলিং অলরাউন্ডার ছিলাম, বোলিং আমার শক্তি ছিল, ব্যাটিং টা একটু দুর্বল। ওয়ানডে ক্রিকেটে অলরাউন্ডারদের প্রায়শই বলা হয় ‘বিটস অ্যান্ড পিসেস’ প্লেয়ার যারা একটু বোলিং ও ব্যাটিং করবে। এটা একটা তর্কের বিষয় যে তারা জেনুইন অলরাউন্ডার কি না, তবে তাদের ভূমিকা পালন করতে হয়। টেস্ট ক্রিকেটে অবশ্য একজন অলরাউন্ডার চূড়া।’

পরসংখ্যানগত ভাবে হ্যাডলি মানছেন ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা অলরাউন্ডার জ্যাক ক্যালিস। তবে হ্যাডলির মতে এখন অব্দি সর্বকালের সেরা স্যার গ্যারি সোবার্স। বর্তমানের অলরাউন্ডারদের মধ্যে রবীন্দ্র জাদেজা, সাকিব আল হাসানদের নাম নিলেও বেন স্টোকসকে সেরা বলে মত দিয়েছেন হ্যাডলি।

‘জ্যাক ক্যালিস একজন অসাধারণ খেলোয়াড়। একজন উচ্চ গুণমান সম্পন্ন ও বিপুলভাবে অনুপ্রাণিত। সে দুর্দান্ত এক ব্যাটসম্যান ছিল যেটা তার প্রধান শক্তি ছিল এবং তার বোলিং দক্ষিণ আফ্রিকার পেস অ্যাটাককে কমপ্লিমেন্ট করত। পরিসংখ্যানগতভাবে সে ইতিহাসের সেরা অলরাউন্ডার।’

‘এটা নিয়ে তর্ক হতে পারে যে সর্বকালের সেরা কে। এখন অব্দি স্যার গ্যারফিল্ড সোবার্স সেই ব্যক্তি। বিভিন্ন সময়ে কেইথ মিলার, টনি গ্রেইগ, অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ, শন পোলকরা ডমিনেট করেছে। আজকের সময়ে যখন আমি অলরাউন্ডারদের দিকে তাকাই, বেন স্টোকসই এক নম্বর- সে একজন প্রতিদ্বন্দ্বী, একজন গুণসম্পন্ন ব্যাটসম্যান ও কুশলী বোলার যে কিনা একা হাতে ইংল্যান্ডকে ম্যাচ জিতিয়েছে। রবীন্দ্র জাদেজা, সাকিব আল হাসান, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মইন আলি, ক্রিস ওকস ও জেসন হোল্ডার- এরা সবাই নিজস্ব অধিকার দিয়ে যোগ্য অলরাউন্ডার।’ ‘

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

প্রটোকল ভেঙে ছিটকে গেলেন নাসিম শাহ

Read Next

একাদশে দুই পরিবর্তন নিয়ে আগে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

Total
12
Share