মাগুরা ছাড়া আর কোথাও ঈদ স্পেশাল মনে হয়না সাকিবের

আইপিএল খেলতে ভারতে পৌঁছেছেন সাকিব

ক্রিকেটীয় ব্যস্ততায় সাকিব আল হাসানের দেশের বাইরে ঈদ করার অভ্যাস বেশ ভালোভাবেই হয়েছে। সাথে স্ত্রী সন্তান যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাসের ফলে বাংলাদেশে, বিশেষ করে জন্মস্থান মাগুরাতে খুব একটা ঈদের ফুরসত মেলেনা সাম্প্রতিক সময়ে। কিন্তু এবার দেশে থেকেও মাগুরাতে ঈদ করা সম্ভব হয়নি সাকিবের। সাকিব বলছেন মাগুরার মত অন্য কোথাও ঈদ উপভোগ করেন না।

মাঝপথে স্থগিত হওয়া আইপিএল ফেরত সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান আছেন সরকারী নির্দেশনা অনুসারে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে। ভারতের করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নেওয়া সময়ে দেশে ফেরায় তাদের জন্য এই কঠোর বিধিনিষেধ। দুজনেই রাজধানীর দুটো ভিন্ন পাঁচ তারকা হোটেলে রুম বন্দী আছেন। ফলে দেশে থাকা সত্ত্বেও গ্রামের বাড়ি যাওয়ার সুযোগ হয়নি সাকিব-মুস্তাফিজের। ঈদ কেটেছে পরিবারবিহীন হোটেল রুমে।

হোটেলে অবস্থান কালেই ঈদের দ্বিতীয় দিন (১৫ মে) ইয়ামাহা মোটরসাইকেল বাংলাদেশ এর একটি লাইভ প্রোগ্রামে এসে ঈদ নিয়ে আক্ষেপের কথা জানান।

সাকিব বলেন, ‘গত কয়েক বছর মাগুরাতে ঈদ পালন করা হচ্ছে না। কিন্তু মাগুরাতে ঈদ পালন করা আমি সবথেকে বেশি উপভোগ করি। স্বাভাবিকভাবে সব বন্ধুর সঙ্গে দেখা হওয়া…সকালবেলা নামাজ থেকে শুরু করে খাওয়া-দাওয়া… আসলে ঈদের দিন ঘুম থেকে উঠার পর থেকে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত প্রতিটি সময় মজার হয়। সেটা মাগুরাতে থাকলে। আর কোথাও এটা হয় না। সেজন্য মাগুরার ঈদ বাদে অন্য কোনটা আমার কাছে স্পেশাল না।’

‘এবারও মাগুরাতে ঈদ করতে পারলে খুবই ভালো লাগত। আমি মিস করি। বন্ধুরাও মিস করে। শুধু ওরাই নয়, অনেক আত্মীয় আছেন যারা আশে-পাশে থাকেন। এই ঈদের সময় তাদের সঙ্গে দেখা হওয়ার সুযোগ থাকে। সেই সুযোগও নেই করোনার কারণে। অনেক বেশি সাদামাটা ঈদ গেছে।’

উল্লেখ্য, কোয়ারেন্টাইন শেষে সাকিব-মুস্তাফিজের মুক্তি মেলার কথা ১৯ মে। কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়া পেয়েই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের আগে অনুশীলনে যোগ দেয়ার কথা দুজনের। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়াবে ২৩ মে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ফিক্সিং নিয়ে আল জাজিরার অভিযোগ তদন্ত শেষে যা বলছে আইসিসি

Read Next

১০ দলের আইপিএলে একাদশে ৫ বিদেশি চান সঞ্জয় মাঞ্জরেকার

Total
1
Share