উইলোর পরিবর্তে বাঁশের ব্যাট, যা বলছে এমসিসি

উইলোর পরিবর্তে বাঁশের ব্যাট, যা বলছে এমসিসি

উইলোর পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহারে তৈরি ব্যাটের সুবিধা তুলে ধরে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণা। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও রীতিমত এ নিয়ে তোলপাড় ,তবে কি চার ছক্কার আরও বেশি ঝড় তুলতে বাঁশের তৈরি ব্যাট ব্যবহারের দিকে হাঁটবে ক্রিকেট? কিন্তু ক্রিকেটের আইন প্রণেতা সংস্থা এমসিসি বিষয়টিকে এখনো পর্যন্ত আইন ইনুসারে অবৈধ বলছে।

তবে নতুন এই বিকল্পকেও স্বাগত জানিয়ে এমসিসি বলছে উইলোর পরিবর্তে বাঁশের তৈরি ব্যাটের পরীক্ষা নীরিক্ষা করা যেতে পারে। ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে বাঁশের তৈরি ব্যাট প্রচলিত উইলোর ব্যাটের চাইতে বেশি টেকসই।

গবেষক দারশিল শাহের মতে, ‘বাঁশের তৈরি ব্যাট উইলোর চেয়ে মজবুত, শক্ত ও শক্তিশালী। যদিও তুলনামূলক বেশি ভঙ্গুর। উইলো ব্যাটের চেয়ে কিছুটা ভারী আর আমরা এটিকে অনুকূলে আনতে চাই।’

তবে এমসিসি আইন ৫.৩.২ অনুসারে ব্যাট কেবল উইলো দিয়েই তৈরি করা যাবে। সে ক্ষেত্রে বাঁশের তৈরি ব্যাটকে প্রাশান্য দিতে হলে আইনে পরিবর্তন আবশ্যক। এমসিসির দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয় এমসিসির পরবর্তী উপ কমিটির বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে।

বিবৃতিতে এমসিসি জানিয়েছে, ‘আইনের যেকোনো সম্ভাব্য সংশোধনীর ক্ষেত্রে এটিকে সাবধানতার সাথে বিবেচনা করতে হবে। বিশেষ করে ব্যাট অনেক শক্তি উৎপাদন করবে এই ধারণাটির ক্ষেত্রে। ক্লাবটি ব্যাটের শক্তি যেন খুব বেশি পরিমাণে না হয় সেটা নিয়ে কাজ করছে। ২০০৮ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত সময়কালে ব্যাট তৈরির উপকরণ ও সাইজেও সীমাবদ্ধতা এনেছিল।’

‘টেকসই এমসিসির জন্য একটা প্রাসঙ্গিক বিষয় এবং প্রকৃত পক্ষে ক্রিকেটের জন্যই। উইলোর এই বিকল্পকে বিবেচনা করাও যায়। গবেষকরা বলছে এ ধরণের বাঁশ চীন অঞ্চলে প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়। স্বল্প ব্যয়ে বানানো বাঁশের ব্যাট উলোর উপযুক্ত বিকল্প হিসেবে গ্রহণ যোগ্যতা পেতে পারে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

তাসকিন আহমেদ ২.০; নেপথ্যে আছেন যারা

Read Next

আইপিএলের পরবর্তী অংশে পাওয়া যাবেনা ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের

Total
2
Share