দুই সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন সফরকারী পাকিস্তানের

c97 4 4
Vinkmag ad

জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তানি ওপেনার আবিদ আলি ও আজহার আলির জুটিতেই এলো দুশোর বেশি রান, দুজনই করলেন সেঞ্চুরি। আর তাতেই হারারে টেস্টের প্রথম দিন সফরকারীদের দখলে। জিম্বাবুয়ের হয়ে বল হাতে লড়াই চালিয়েছেন কেবল ব্লেসিং মুজারাবানি।

প্রথম দিন শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২৬৮ রান। ১১৮ রানে অপরাজিত আছেন ওপেনার আবিদ আলি। তাঁর সঙ্গে ক্রিজে আছেন সাজিদ খান (১)।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। বোলিংয়ে জিম্বাবুয়ের শুরুটা হয় ভালো; রিচার্ড এনগারাভা এনে দেন প্রথম ব্রেকথ্রু। রিচার্ড এনগারাভার বলে ডোনাল্ড টিরিপানোর হাতে ক্যাচ তুলে ফেরার আগে ইমরান বাট করেন ২০ বলে ২ রান।

এরপর আবিদ আলি ও আজহার আলির ব্যাটে দুইশ ছাড়ানো জুটি। এরমধ্যেই আজহার ১৯৮ বল মোকাবিলায় ক্যারিয়ারের ১৮তম সেঞ্চুরির দেখা পান। এছাড়া ওপেনার আবিদ আলি শতরান পূর্ণ করেন ২২৪ বলে। তবে আজহারকে ফিরিয়ে ২৩৬ রানের জুটি ভাঙেন পেসার ব্লেসিং মুজারাবানি। ২৪০ বলে ১৭ চার ও এক ছক্কায় সাজান তাঁর ১২৬ রানের ইনিংস।

ব্যাট হাতে আবারও ব্যর্থ পাক অধিনায়ক বাবর আজম। ২ রানের বেশি আসেনি তাঁর ব্যাট থেকে। মুজারাবানির দ্বিতীয় শিকার হয়ে বাবর দ্রুতই ফিরলেন প্যাভিলিয়নে। এরপরের ওভারে আবারও মুজারাবানির আঘাত পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপে। এবার বোল্ড করে ফাওয়াদ আলমকে ফেরালেন। এদিন মাত্র ৫ রানেই থেমে যায় ফাওয়াদের ইনিংস। মুজারাবানি তুলে নিলেন নিজের তৃতীয় উইকেট। পরপর ৩ ওভারে ৩ উইকেট শিকার করে জিম্বাবুয়ে শিবিরে স্বস্তি ফেরালেন মুজারাবানি।

তবে এরপর আর কোনো বিপদ হতে দেননি আবিদ আলি ও নাইটওয়াচম্যান হিসাবে খেলতে নামা সাজিদ খান। প্রথম দিন শেষে পাকিস্তানের রান ৪ উইকেটে ২৬৮। ১১৮ রানে অপরাজিত আছেন ওপেনার আবিদ আলি।

প্রথম দিনে বল হাতে জিম্বাবুয়ের হয়ে ব্লেসিং মুজারাবানি ১৯ ওভার খরচায় ৪১ রানে তুলে নেন তিন উইকেট। এছাড়া রিচার্ড এনগারাভা শিকার করেন ১ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (প্রথম দিন শেষে)

পাকিস্তান ১ম ইনিংসেঃ ২৬৮/৪ (৯০ ওভার) ইমরান ২, আবিদ ১১৮*, আজহার ১২৬, বাবর ২, ফাওয়াদ ৫, সাজিদ ১*; মুজারাবানি ১৯-৪-৪১-৩, এনগারাভা ১৭-৪-৩৫-১

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাইফউদ্দিনের কণ্ঠে সৌম্য’র সুর

Read Next

শুরুর ১০ ওভারে পার্থক্য গড়ে দিতে চান সাইফউদ্দিন

Total
1
Share