আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থঃ মনোনয়ন পেলেন ভুর্তেল

আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ- মনোনয়ন পেলেন ভুর্তেল
Vinkmag ad

দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সম্প্রতি চালু করেছে প্লেয়ার অব দ্য মান্থ প্রথা। পুরুষ ও নারীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পারফরম্যান্সের বিচারে আইসিসি বেছে নেয় মাসের সেরা ক্রিকেটার। তিন ফরম্যাটই আসে বিবেচনায়।

২০২১ সালের এপ্রিল মাসের জন্য মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করেছে আইসিসি।

পুরুষ বিভাগের মনোনয়ন তালিকায় রয়েছেন- ফখর জামান, বাবর আজম (পাকিস্তান) ও কুশল ভুর্তেল (নেপাল)।

নারী বিভাগের মনোনয়ন তালিকায় রয়েছেন- অ্যালিসা হিলি, মেগান শাট (অস্ট্রেলিয়া ও লেই ক্যাসপারেক (নিউজিল্যান্ড)।

এপ্রিল মাসে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থানে পৌঁছেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮২ বলে ৯৪ রানের ইনিংস খেলে ভিরাট কোহলির দীর্ঘদিনের রাজত্বের অবসান ঘটান বাবর। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ১২২ রানের ইনিংস ও খেলেন বাবর।

ফর্মের তুঙ্গে ছিলেন বাবরের সতীর্থ ফখর জামানও। ওয়ানডেতে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ২ টি সেঞ্চুরি করেন তিনি, যার মধ্যে ছিল ১৯৩ রানের ইনিংসও।

তিন মনোনীতের মধ্যে বাকি জন নেপালের কুশল ভ্রুতেল। নেদারল্যান্ডস ও মালয়েশিয়ার সাথে ত্রিদেশীয় সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন নেপালের এই ব্যাটসম্যান। ৫ ম্যাচে ৪ ফিফটিতে ২৭৮ রান করেন এই ব্যাটসম্যান।

নারীদের ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার অ্যালিসা হিলি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ওয়ানডেতে ৫১.৬৬ গড় ও ৯৮.৭২ স্ট্রাইক রেটে ১৫৫ রান করেন।

তার সতীর্থ মেগান শাট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সেই সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট নেন। ১৩.১৪ গড়ে তুলে নেন ৭ উইকেট।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ক্যারিয়ার সেরা ফিগার (৪৬/৬) অর্জন করা দক্ষিণ আফ্রিকার লেই ক্যাসপারেক সিরিজে নেন ৭.৭৭ গড়ে ৯ উইকেট।

আইসিসি প্লেয়ার অব দ্য মান্থ এর ভোটিং প্রসেসঃ

দুই ক্যাটাগরিতে (নারী ও পুরুষ) মনোনীতরা শর্টলিস্টেড হন এক মাসে অন ফিল্ডে তাদের পারফরম্যান্স ও মাসে তাদের অর্জন দিয়ে।

মনোনীতরা আইসিসির স্বাধীন ভোটিং অ্যাকাডেমি ও বিশ্বজুড়ে সমর্থকদের ভোট পান। সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া ক্রিকেটার হন আইসিসি ক্রিকেটার অব দ্য মান্থ। ভোটিং অ্যাকাডেমি তাদের ভোট দেন ই-মেইলের মাধ্যমে, ভোটের ৯০ শতাংশ নির্ধারিত হয় তাদের ভোটের মাধ্যমে। বাকি ১০ শতাংশ থাকে সমর্থকদের আওতায়।

আইসিসি প্রতি মাসের দ্বিতীয় সোমবার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে তাদের ডিজিটাল চ্যানেলে।

আইসিসি ভোটিং অ্যাকাডেমিঃ

আফগানিস্তান- হামিদ কাইয়ুমি ও জাভেদ হাকিম, অস্ট্রেলিয়া- মেলিন্দা ফারেল ও লিসা স্থালেকার, বাংলাদেশ- তারেক মাহমুদ ও মোহাম্মদ ইসাম, ইংল্যান্ড- এলিজাবেথ এমন ও ক্লেয়ার টেইলর, আয়ারল্যান্ড- ইয়ান চালেন্ডার ও ইসোবেল জয়েস, ভারত- অন্বেষা ঘোষ ও ভিভিএস লক্ষণ, নিউজিল্যান্ড- মার্ক গিন্টি ও জন রাইট, পাকিস্তান- ফাইজান লাখানি ও রমিজ রাজা, দক্ষিণ আফ্রিকা- ফিরদোস মুন্ডা ও মাখায়া এনটিনি, শ্রীলঙ্কা- নেভিল ভিক্টর অ্যান্থনি ও রাসেল আরনল্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ইয়ান বিশপ ও মেরিসা অ্যাগুইলেইরা, জিম্বাবুয়ে- ট্রিস্টান হোম ও পুমেলেলো এম্বাঙ্গুয়া, অন্যান্য- পল রেডলি ও ডার্ক ন্যানেস।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আইপিএল স্থগিতে ‘২২০০’ কোটি রুপি ক্ষতি ভারতীয় বোর্ডের

Read Next

সেরা দশের খুব কাছে করুনারত্নে, তামিম-মুশফিকদের উন্নতি

Total
2
Share