পিসিবির অভিনব পিতৃ-মাতৃত্বকালীন সমর্থন আইন

পিসিবির অভিনব পিতৃ-মাতৃত্বকালীন সমর্থন আইন

পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের পিতা বা মাতা হওয়াকালীন সময়ে ছুটি ও বেতনের ক্ষেত্রে সম্প্রতি নতুন আইন নির্ধারণ করেছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

নারী ক্রিকেটাররা মাতৃত্বকালীন ছুটির পূর্ব পর্যন্ত খেলা ব্যতীত অন্য কাজে নিয়োজিত থাকতে পারবে।

নারীদের জন্য ১২ মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটি ধার্য করা হয়েছে। এক্ষেত্রে তারা চলতি বছরের চুক্তি অনুযায়ী ১২ মাসের পূর্ণ বেতন পাবে এবং পরের বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হবে।

পুরুষ ক্রিকেটাররা ৩০ দিনের বেতনসহ পিতৃত্বকালীন ছুটি পাবে।

যদি কোন নারী ক্রিকেটারকে ক্রিকেটীয় কার্যক্রমের কারণে দেশের বাইরে যেতে হয়, তবে তাদের সন্তানদের জন্য শিশু পরিচর্যা কেন্দ্র থেকে সর্বাত্নক সহায়তা দিবে পিসিবি।

অধিনায়ক বিসমাহ মারুফ পাকিস্তানের প্রথম নারী ক্রিকেটার হিসেবে এ সুবিধা প্রাপ্ত হবেন। মা হওয়ার কারণে এ বছরের শুরুতে ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতি নিয়েছেন তিনি।

‘ক্রিকেটারদের প্রতি যত্ন নেওয়া এবং তাদের জীবনে বিভিন্নভাবে সমর্থন দেওয়া পিসিবির দায়িত্ব,’ বলেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

‘খেলোয়াড়দের জন্য পিতৃ-মাতৃত্বকালীন সমর্থন আইন আমরা চালু করেছি। এতে করে আমাদের পেশাদার ক্রিকেটাররা তাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সময়টিতে আমাদের পূর্ণ সহযোগিতা পাবে। নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়ে তাদের দুশ্চিন্তা করার কোন প্রয়োজন নেই।’

‘আমি আশা করি এ আইনের মধ্য দিয়ে অনেক নারী ও মেয়েরা ক্রিকেটে আসবে। কেননা এ আইন তাদের সামাজিক জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সাম্যতা আনবে,’ ওয়াসিম খান জানান।

নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রলিয়া ইতিমধ্যে তাদের নারী ক্রিকেটারদের জন্য এমন আইন নিয়ে এসেছে।

নিউজিল্যান্ডের অ্যামি স্যাটারওয়াইট প্রথম নারী ক্রিকেটার যিনি ২০১৯ সালে প্রথমবারের মত গর্ভবতী থাকা অবস্থায় নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট ব্বোর্ড থেকে সুবিধাপ্রাপ্ত হয়েছিলেন এবং ঐ মৌসুমে পূর্ণ বেতন পাওয়ার সাথে সাথে চুক্তিও ফিরে পান।

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার’স অ্যাসোসিয়েশনের সাথে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ৩ বছর আলোচনা-পর্যালোচনা করে ২০১৯ সালে পিতৃ-মাতৃত্বকালীন আইন প্রণয়ন করে।

এ বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝপথে পিতৃত্বকালীন ছুটি নেওয়ার কারণে সমালোচনার শিকার হয়েছিলেন ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। প্রথম সন্তান জন্মদান উপলক্ষে স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকার জন্যই তিনি ভারতে চলে এসেছিলেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিবের সাথে আরেক অলরাউন্ডারের খোঁজে ডোমিঙ্গো

Read Next

এমসিসির আজীবন সদস্যপদ পেয়ে গর্বিত আফ্রিদি

Total
13
Share