যেমন গেল মিরপুরে ওয়ানডে দলের প্রথম দিনের অনুশীলন

যেমন গেল মিরপুরে ওয়ানডে দলের প্রথম দিনের অনুশীলন

শ্রীলঙ্কার ক্যান্ডিতে চলছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্ট। অন্যদিকে আজ (২ মে) থেকে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে লঙ্কানদের বিপক্ষে টাইগারদের ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতি।

চলতি মাসের মাঝামাঝিতে বাংলাদেশ সফরে আসবে শ্রীলঙ্কা, টাইগারদের বিপক্ষে খেলবে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ। ইতোমধ্যে সিরিজ সামনে রেখে বাংলাদেশের ২৩ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করেছে নির্বাচকরা।

জাতীয় দল বর্তমানে শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজে ব্যস্ত থাকায় দেশে থাকা স্কোয়াডের ক্রিকেটারদের নিয়ে আজ থেকে শুরু হয়েছে অনুশীলন। যারা আগামী ৫ মে পর্যন্ত অনুশীলন করার পর ৬ মে বিশ্রাম করবে। এরপর শ্রীলঙ্কা থেকে দেশে ফেরা ক্রিকেটারদের নিয়ে ৭ মে থেকে ৯ মে পর্যন্ত চলবে মূল অনুশীলন ক্যাম্প।

১০ মে থেকে ১৬ মে পর্যন্ত চলবে ঈদের ছুটি। ১৭ মে লঙ্কানদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ সামনে রেখে টিম হোটেলে ঢুকবে ক্রিকেটাররা। ততদিনে অবশ্য ঘোষণা হয়ে যেতে পারে মূল স্কোয়াডও।

আজ স্কোয়াডে থাকা ৬ ক্রিকেটার অনুশীলনে আসেন নির্ধারিত সময় দুপুর দুইটায়। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন ২০১৮ সালের পর ওয়ানডে দলে ফেরার অপেক্ষায় থাকা ইমরুল কায়েস। বাকিরা হলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোহাম্মদ নাইম শেখ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও সৌম্য সরকার।

সবার আগে মাঠে ঢুকতে দেখা যায় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। বেশ কিছুক্ষণ একা একাই রানিং করেছেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার। পরে একে একে যোগ দেন ইমরুল, আফিফ, সৈকতরা। স্কোয়াডে না থাকলেও নেটে পর্যাপ্ত বোলার রাখতে তাদের সাথে অনুশীলনে সঙ্গ দেন পেসার মেহেদী হাসান রানা ও আল আমিন হোসেন।

বিসিবি কোচ মিজানুর রহমান বাবুল ও বিসিবির পেস বোলিং কোচ তালহা জুবায়ের ছিলেন ক্রিকেটারদের অনুশীলন তত্বাবধানে। মিরপুরে মূল মাঠে এই দুজন ছাড়াও  ক্রিকেটারদের সাথে মিনিট দশেকের মিটিংয়ে অংশ নেন নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক এবং ম্যানেজার সাব্বির হোসেন।

নিজেদের মধ্যে মিটিং শেষেই ইমরুল, সৌম্য, আফিফরা চলে যান মিরপুরের ইনডোরের নেটে। শুরুতে সেখানে ব্যাটিং অনুশীলন করেন আফিফ ও নাইম শেখ। দুজনকে বল করেছেন রানা, আল আমিন, সৈকতরা। একদম পূর্ব প্রান্তের নেটে আফিফকে লম্বা সময় বল করে হাতের কাজ সেরে নেন ইমরুল কায়েস। কায়েসের অফ স্পিন ছাড়াও থ্রোয়ারকে আধা ঘন্টার মত সামলেছেন আফিফ।

রানা, আল আমিন আর মোসাদ্দেককে সাবলীলভাবেই খেলতে দেখা যায় নাইমকে। এক পর্যায়ে একই নেটে স্ট্রাইক রোটেট করার আদলে অনুশীলন করেন ইমরুল কায়েস ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ইমরুল ব্যাট করেছেন প্রায় ৪০ মিনিটের মত। পাশাপাশি নেটে তখন সৌম্য সরকার।

ইনডোরের এক পাশে তালহা জুবায়েরের সাথে আল আমিন ও রানাকে অনেক্ষণ আলাপ করতে দেখা যায়। ইমরুল-সৌম্যের ব্যাটিং খুঁটিনাটি নিয়ে কাজ করেছেন মিজানুর রহমান বাবুল। অনুশীলনের শেষভাগে বল হাতে দেখা যায় সৌম্যকেও। অনুশীলনের পুরো সময়টাই নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন সদ্য নিয়োগ পাওয়া জাতীয় দলের নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক।

প্রথম দিন দেশে থাকা প্রাথমিক স্কোয়াডের মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, হাসান মাহমুদ, নাসুম আহমেদদের দেখা না মিলেনি অবশ্য। আগামী ৫ মে পর্যন্ত চলা প্রথম ধাপের অনুশীলন প্রতিদিনই শুরু হবে দুপুর দুইটায়, শেষ হবে বিকেল সাড়ে চারটায়।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

৩ উইকেট হারিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ

Read Next

আলোক স্বল্পতায় পাল্লেকেলে টেস্ট গড়াল ৫ম দিনে

Total
26
Share