বোলারদের জন্য সহানুভূতি দেখাচ্ছেন জন লুইসও

বোলারদের জন্য সহানুভূতি দেখাচ্ছেন জন লুইসও
Vinkmag ad

পাল্লেকেলের উইকেট বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্টে আদর্শ মানের বাইরে ছিল। পঞ্চম দিনেও উইকেট ছিল ব্যাটিং করার জন্য দারুণ ফ্ল্যাট। যে কারণে ম্যাচ শেষে নামের পাশে ডিমেরিট পয়েন্টও বসেছে। তবে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনও একই আচরণের আভাস দিচ্ছে পাল্লেকেলের উইকেট। টস জিতে আগে ব্যাট করা শ্রীলঙ্কা ১ উইকেটে ২৯১ রান তুলে দিন শেষ করেছে। টাইগারদের ব্যাটিং কোচ জন লুইস বলছেন দিনটি হতাশার তবে উইকেট বিবেচনায় তার সহানুভূতি কাজ করছে বোলারদের জন্য।

সিরিজে ৬ ব্যাটসম্যান ৫ বোলারের কম্বিনেশনে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। এমন উইকেটে টানা বল করার জন্য ৫ জন বোলার খেলানোর সিদ্ধান্তকে এখনো পর্যন্ত ভালো সিদ্ধান্ত বলে মানছেন টাইগার ব্যাটিং কোচ।

প্রথম টেস্টে এই উইকেটে রান উঠেছে ১২৮৯, যেখানে পাঁচ দিনে উইকেট পড়েছে মাত্র ১৭ টি। যার ১৬ টি নিতে পেরেছিল দুই দলের বোলাররা, একটি রান আউট। প্রথম টেস্টের পরই টাইগারদের টিম লিডার সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমদু সুজন দুই দলের বোলারদের জন্যই দুঃখ প্রকাশ করেছেন। কারণ এমন ফ্ল্যাট উইকেটে বোলারদের করণীয় ছিলনা খুব বেশি।

আজ ৯০ ওভার বল করে একটির বেশি উইকেট তুলতে পারেনি বাংলাদেশ। অভিষিক্ত পেসার শরিফুল ইসলাম যখন লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নেকে সাজঘরে ফেরান ততক্ষণে তার নামের পাশে ১১৮ রান। সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে অপরাজিত আছেন লাহিরু থিরিমান্নেও (১৩১)।

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে প্রথম দিনকে মূল্যায়ন করতে গিয়ে টাইগারদের ব্যাটিং কোচ জন লুইস বলেন, ‘এটা হতাশাজনক, তবে বোলারদের জন্য আমার সহানুভূতি থাকছে। তাদের প্রচেষ্টায় কোন ঘাটতি ছিল না। কোন ধরণের বোলিংয়ের জন্যই এখানে সাহায্য ছিল না। আমরা ভাগ্যবান যে পাঁচ জন বোলার ছিল। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে এই সিরিজে পাঁচ জন বোলার ব্যবহার করবো। এই কন্ডিশন দেখে মনে হচ্ছে এখনো পর্যন্ত এটা একটা ভালো সিদ্ধান্ত ছিল। এটা এখনো কঠিন। আবহাওয়াও দুর্বল করছে। এখানে খানিকটা বেশি গরম।’

‘ছেলেরা যেভাবে নিজেদের কাজে সেরাটা দিতে চেষ্টা করছে তাতে আমি মুগ্ধ। কিন্তু আমাদের কিছু ছেলে আছে যারা টেস্ট ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে মাত্র, বিশেষ করে পেসাররা। তারা সবসময় শিখছে কিন্তু আমরা টেস্ট জিততে চাই। টেস্ট ম্যাচ সম্পর্কে শিখছিনা। তবে আজকের মত দিন থেকেও আমরা কিছুটা সামনে এগোনোর উৎসাহ পেতে পারি।’

এদিকে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষেই পাল্লেকেলের উইকেট নিয়ে মন্তব্য করতে চান না বলে জানালেন লুইস, ‘আমি ম্যাচ শেষে এটাকে (উইকেট) বিচার কতে চাই। আমি প্রথম দিনেই পিচকে বিচার করতে চাইনা। যদি এটা প্রথম টেস্টের মত হয় তবে অবশ্যই আদর্শ মানে পৌঁছানো উচিৎ। যেখানে ব্যাট ও বলের মধ্যে সমানভাবে লড়াই হবে। কিন্তু যদি আস্তে আস্তে উইকেট ভাঙতে থাকে এবং ধীরে ধীরে স্পিনারদের সাহায্য করে তবে আপনি এটাকে দারুণ টেস্ট পিচ হিসেবে বর্ণনা করতে পারেন। আমাদেরকে অপেক্ষা করতে হবে এবং দেখতে হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আগের ম্যাচে লঙ্কানদের দেখানো পথে হাঁটবে বাংলাদেশ

Read Next

পৃথ্বীর ব্যাটে কোলকাতাকে উড়িয়ে দিল দিল্লি

Total
26
Share