তামিমের যে ইনিংসে বদলে গিয়েছিল ড্রেসিং রুমের পরিবেশ

৬ বলে ডাক, ৭ বলের ওভার ও তামিম-শান্ত জুটি
Vinkmag ad

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ড্র হওয়ার পর স্বস্তির সাথে সন্তুষ্টির কথাও জানালেন বাংলাদেশ দলের সাথে টিম লিডার হিসেবে যাওয়া খালেদ মাহমুদ সুজন। ব্যাট হাতে তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হকদের পাশাপাশি পেসার তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেনদেরও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন। তামিমের আক্রমণাত্মক ইনিংস ড্রেসিং রুমের পরিবেশ বদলে দিয়েছে বলেও মত তার। তবে এক ইনিংস দিয়েই মূল্যায়ন করতে চান না ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স।

ক্যান্ডির ফ্ল্যাট উইকেটে টস জিতে আগে ব্যাট করা বাংলাদেশ ৭ উইকেটে ৫৪১ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে। ইনিংসের প্রথম ওভার থেকেই সাবলীল তামিম, ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে আরেক ওপেনার সাইফ হাসান (০) ফিরলেও তামিম ছিলেন ছন্দে। শান্তর সাথে ১৪৬ রানের জুটিতে তার অবদান ৮২। ৫৩ বলে ফিফটি ছোঁয়া তামিম আউট হয়েছেন ১০১ বলে ৯০ রান করে। পরে এই ভীত কাজে লাগিয়ে শান্ত (১৬৩), মুমিনুল (১২৭) পেয়েছেন সেঞ্চুরির দেখা। ফিফটির দেখা লিটন (৫০), মুশফিকের (৬৮*)।

দ্বিতীয় ইনিংসেও তামিমের একই ঘরানার আরও একটি এইনিংস। ৩৩ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের করা ১০০ রানের ৭৪ রানই আসে তামিমের ব্যাট থেকে। ২৭ রানে ২ উইকেট হারালেও তামিম ফিফটি তুলেছেন ৫৬ বলে, বৃষ্টি বাঁধায় খেলা বন্ধ হয়ে ম্যাচ ড্রয়ের আগে তার ৯৮ বলে ১০ চার ৩ ছক্কায় অপরাজিত ছিলে ৭৪ রানে।

তামিমের ব্যাটেই বাংলাদেশ ইনিংসের টোন সেট হয়েছিল ম্যাচ শেষে বলেছেন অধিনায়ক মুমিনুল। আজ (২৬ এপ্রিল) দলের সাথে যাওয়া টিম লিডার খালেদ মাহমুদ সুজনও বললেন তামিমের প্রথম ইনিংসের ব্যাটেই বদলে গিয়েছিল ড্রেসিং রুমের পরিবেশ।

বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘যেভাবে ছেলেরা ব্যাট করেছে তাতে আমি খুব খুশি। সত্যি কথা বলতে তামিমের দুইটা ইনিংসই দুর্দান্ত। প্রথম ইনিংসের নক টাতো আমাদের পুরো ড্রেসিংরুমের আবহই পরিবর্তন করে দিয়েছে।’

দলের বাকিদের ব্যাটিং নিয়েও সন্তুষ্ট সুজন যোগ করেন, ‘আমি খুব খুশি যে চাপের মুখে শান্ত যেভাবে নিজেকে মেলে ধরেছে, যেভাবে ব্যাট করেছে প্রথম ইনিংসে তা নিঃসন্দেহে ব্রিলিয়ান্ট। মুমিনুলকে নিয়ে কথা দেশের মাটিতে ছাড়া রান করতে পারে না। সেক্ষেত্রে আমি মনে করি মুমিনুলও দারুণ ব্যাট করেছে। মুশফিক, লিটন দুজনেও ভালো সাপোর্ট দিয়েছে দলকে। আমি মনে করি একটা ইনিংস দেখেই আমার মূল্যায়ন করাটা ঠিক হবেনা। আমি বিশ্বাস করি ব্যাটিংয়ের এই ধারাবাহিকতাটা ধরে রাখতে পারবো।’

পাল্লেকেলের ফ্ল্যাট উইকেটে বোলারদের জন্য ছিল না কিছুই। টাইগারদের ৫৪১ এর জবাবে ৮ উইকেটে ৬৪৮ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা শ্রীলঙ্কার। টাগারদের হয়ে ৩০ ওভার বল করে ৩ উইকেট পেসার তাসকিন আহমেদের। এক উইকেট নিলেও কিছুটা ভোগাতে পেরেছেন এবাদত হোসেনও।

তাদের প্রশংসায় খালেদ মাহমুদ সুজনের ভাষ্য, ‘আমি খুব খুশি তাসকিন যেভাবে বল করেছে, এবং এবাদত, আমি মনে করি জোরে বল করেছে, এফোর্ট দিয়েছে। এই গরমে এত সহজ ছিল না। তাসকিনতো প্রায় ৩০ ওভার বল করেছে, গ্রেট এফোর্ট। সবসময় যেটা হয় ৩০ ওভার বল করলে বোলিং এর মত বোলিং হয়না, কিন্তু তাসকিন পুরো এফোর্ট দিয়েছে, আমি খুব খুশি।’

দল হিসেবেও টানা ব্যর্থতার পর স্বস্তির ড্র পেল বাংলাদেশ। খালেদ মাহমুদ সুজনের মতে বাংলাদেশ এর চেয়েও ভালো করতে পারে এবং ভবিষ্যতে সেটা করবে। তবে তার আগে সময় চেয়েছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

তিনি বলেন, ‘আমি খুব খুশি, যেভাবে আমরা চাপের মধ্যে ছিলাম, বাংলাদেশ দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হোম সিরিজে ভালো করতে পারিনি, সেখান থেকে কতটুকু ভালো করবো প্রশ্ন ছিল। কিন্তু আমি খুব খুশি যেভাবে তারা এখানে আসার পর ট্রেনিং সেশন, অনুশীলন ম্যাচ ও অবশ্যই টেস্ট ম্যাচের শুরু থেকে যে এফোর্ট দিয়েছে, গরমকে যেভাবে জয় করেছে আমি খুব খুশি মাথে তাদের অ্যাটিচিউড, প্রয়োগ দেখে।’

‘হ্যাঁ আমরা হয়তো এর চেয়ে ভালো করতে পারি। অবশ্যই আমি এই কথাটা বলবো এর চেয়ে ভালো করতে পারি, আমরা ভালো করবো। তবে আমাদের সময় দিতে হবে। আমি মনে করি এই দলটা অনেক দূর যাবে বলে আমার বিশ্বাস।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেট, নেই বাংলাদেশ

Read Next

পাঞ্জাবকে হারিয়ে জয়ে ফিরেছে কোলকাতা

Total
1
Share