অমিত মিশ্র’র স্পিন ভেল্কিতে মুম্বাইকে হারাল দিল্লি

অমিত মিশ্র'র স্পিন ভেল্কিতে মুম্বাইকে হারাল দিল্লি

অমিত মিশ্রর স্পিন ভেল্কিতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। লো স্কোরিং ম্যাচে রিশাব পান্টের দল জয়ে পেয়েছে ৬ উইকেটের ব্যবধানে।

দলে ফিরেই স্পিন বিষে মুম্বাইকে জর্জরিত করেছেন অমিত মিশ্র। ৪ ওভারে ৬ ইকোনমিতে ৪টি মূল্যবান উইকেট নিয়েছেন তিনি, পেয়েছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

১৩৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শিখর ধাওয়ান (৪৫) ও স্টিভ স্মিথের (৩৩) ব্যাটের উপর ভর করে জয়ের পথেই এগিয়ে যাচ্ছিল। মাঝে এ দুইজন ও পান্টের বিদায়ের পর কিছুটা চাপ সৃষ্টি করে মুম্বাই। তবে ললিত যাদব (২২*) এবং শিমরন হেটমেয়ার (১৪*) অবিচ্ছিন্ন থেকে ৬ উইকেট ও ৫ বল হাতে রেখে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নামা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স শুরুতে কুইন্টন ডি ককের উইকেট হারায়। এরপর অধিনায়ক রোহিত শর্মা ও সুরিয়াকুমার যাদবের জুটিতে ভালো সংগ্রহের দিকে যাচ্ছিল। তবে অমিত মিশ্রর স্পিন জাদুতে ১৭ রানের ব্যবধানে ৫ উইকেট হারিয়ে বড় রানের সম্ভাবনা নস্যাৎ হয়ে যায় মুম্বাইয়ের। একে একে ফিরে যান সুরিয়াকুমার (২৪), রোহিত (৪৪), হার্দিক পান্ডিয়া (০), ক্রুনাল পান্ডিয়া (১) এবং কাইরন পোলার্ড (২)।

এরপর ইশান কিশান (২৬) এবং এবারের আইপিএলে প্রথম খেলতে নামা জয়ন্ত যাদবের (২৩) ব্যাটে চড়ে ৯ উইকেটে ১৩৭ রান করতে সমর্থ হয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

দিল্লি ক্যাপিটালসের অমিত মিশ্র ৪টি এবং আবেশ খান ২টি উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সঃ ১৩৭/৯ (২০), রোহিত ৪৪, ডি কক ২, সুরিয়া কুমার ২৪, ইশান ২৬, হার্দিক ০, ক্রুনাল ১, পোলার্ড ২, জয়ন্ত ২৩, রাহুল ৬, বুমরাহ ৭*, বোল্ট ১*; স্টয়নিস ৩-০-২০-১, অশ্বিন ৪-০-৩১-০, রাবাদা ৩-০-২৫-১, মিশ্র ৪-০-২৪-৪, আবেশ ২-০-১৫-২, ললিত ৪-০-১৭-১

দিল্লি ক্যাপিটালসঃ ১৩৮/৪ (১৯.১), পৃথ্বী ৭, ধাওয়ান ৪৫, স্মিথ ৩৩, ললিত ২২*, পান্ট ৭, হেটমেয়ার ১৪* ; বোল্ট ৪-০-২৩-০, জয়ন্ত ৪-০-২৫-১, বুমরাহ ৪-০-৩২-১, ক্রুনাল ২-০-১৭-০, রাহুল ৪-০-২৯-১, পোলার্ড ১.১-০-৯-১

ফলাফলঃ দিল্লি ক্যাপিটালস ৬ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ অমিত মিশ্র (দিল্লি ক্যাপিটালস)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নিষেধাজ্ঞার ভয় কাটছে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়কদের

Read Next

আইপিএলের মাঝপথে দল ছাড়লেন রাজস্থানের লিভিংস্টোন

Total
2
Share