কন্ডিশন পক্ষে, ফিল্ডারদের হয়ে বাজি ধরলেন মুমিনুল

ভালো প্রস্তুতিতে ড্র কিংবা জয়েই বিশ্বাসী মুমিনুল

‘ফর্ম ইজ টেম্পোরারি, বাট ক্লাস ইজ পার্মানেন্ট’, এই বাক্যাংশটা বাস্তবিকভাবেই মানেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। তবে একটু অন্যভাবে, প্লেয়িং দেশ বিবেচনায় নাকি বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ফর্ম খারাপ হয়। মুমিনুলের মতে, নিউজিল্যান্ডের অপরিচিত কন্ডিশনের কারণেই বিবর্ণ বোলিং আর বাজে ফিল্ডিংয়ের প্রদর্শনী ছিল। তবে এমনটা ঘটবে না শ্রীলঙ্কার মাঠে, কারণ এখানকার কন্ডিশন আর মাঠ যে টাইগারদের পরিচিত বা নিজ দেশের মতই।

ক্যান্ডির পাল্লেকেলে স্টেডিয়ামে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার টেস্ট সিরিজ। আজ সিরিজ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক গণমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন,

‘দেখুন, যেটা সবসময় বলি, এখানকার (শ্রীলঙ্কা) কন্ডিশন আর নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন ভিন্ন। শ্রীলঙ্কার কন্ডিশন অনেকটা আমাদের মতই। ফিল্ডিংয়ের কথা যে বললেন, একটা সিরিজে ভুল ফিল্ডিং হতেই পারে। আমার মনে হয় না প্রত্যেকটা সিরিজে এরকম হচ্ছে। খেলোয়াড়রা সবাই অনেক কষ্ট করছে। আমার কাছে মনে হয় আমরা এই সিরিজে আরও ভালো বোলিং-ফিল্ডিং করতে পারব।’

নিউজিল্যান্ডে পুরো সফর জুড়েই বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের ছিল না দেখার মতো কোন পারফরম্যান্স। বাংলাদেশের প্রাপ্তির খাতা একেবারেই শূন্য। নিউজিল্যান্ডের উইকেটে স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলা যে কোনো বিদেশি দলের জন্যই কঠিন। উইকেট কিংবা কন্ডিশন কোনটাই উপমহাদেশের সঙ্গে মিলবে না। বরাবরই নিউজিল্যান্ডের মাঠে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয় বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের।

তবে শ্রীলঙ্কার মাঠ বাংলাদেশ দলের কাছে বেশ পরিচিতই। ২০০১ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাঁদের মাঠে মোট ১২টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ দল। এমন পরিচিত কন্ডিশন হওয়ার পরও পথচলার পুরোটাই হতাশায় ভরা টাইগারদের। ১০ পরাজয়ের বিপরীতে বাংলাদেশ জিতেছে কেবল একটিতে, ড্র ১টি।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

পাল্লেকেলের স্পিন স্বর্গে পেস ভেলকি দেখাবে বাংলাদেশ

Total
4
Share