লিটনের ব্যাটে রান, স্বস্তি মিরাজ-তাইজুলদের বোলিংয়ে

লিটনের ব্যাটে রান, স্বস্তি মিরাজ-তাইজুলদের বোলিংয়ে

ক্যান্ডির পাল্লেকেলে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মূল লড়াইয়ে নামার আগে নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে দুইদিনের এক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ দল। কাতুনায়েকের চিলো মারিয়ান্স ক্রিকেট ক্লাব গ্রাউন্ডে (সিএমসিজি) টিম গ্রিন ও টিম রেড নাম নিয়ে মাঠে নেমেছিল তামিম ইকবাল, মুমিনুল হকরা। টিম গ্রিনের অধিনায়ক ছিলেন মুমিনুল হক, টিম রেডের তামিম ইকবাল।

প্রস্তুতি ম্যাচে প্রস্তুতিটাই মুখ্য, জয়-পরাজয় গৌণ। দুই দিনের ম্যাচে প্রথম দিনে যেমন ফিফটি করে স্বেচ্ছা অবসরে গিয়েছিলেন তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম। ১ম দিনে ছিল টিম রেডের ব্যাটসম্যানদের দাপট। ৭৯.২ ওভারে ৩১৪ রান স্কোরবোর্ডে জমা করেছিল টিম রেড। দিনে বোলারদের পক্ষে একমাত্র সাফল্য এসেছিল দিনের শেষ বলে, তাইজুল ইসলামকে ফিরিয়েছিলেন শুভাগত হোম।

দ্বিতীয় দিনের ১ম সেশনে ২৭ রান করে স্বেচ্ছা অবসরে গিয়েছিলেন লিটন। তবে দ্বিতীয় সেশনে ভিন্ন পজিশনে আবার ব্যাট করতে নামেন তিনি। প্রথমে নেমে কোন রান না করতে পারা মুমিনুল হকও পুনরায় ব্যাট করতে নামেন।

৬৪ রান করে রিটায়ার্ড আউট হন লিটন, মুমিনুলের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রান। প্রথম দিনে বোলাররা উইকেটের জন্য হাপিত্যেশ করেছেন। তবে দ্বিতীয় দিনে একাই তিনটি উইকেট নেন মেহেদী হাসান মিরাজ, ১ টি করে উইকেট নেন আবু জায়েদ রাহি ও তাইজুল ইসলাম।

২২৫ রানে শেষ হয় টিম গ্রিনের ইনিংস। ২০ রান করে অপরাজিত থাকেন শরিফুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

টিম রেড ৩১৪/৬ (৭৯.২), তামিম ৬৩ (রিটায়ার্ড আউট), সাইফ ৫২ (রিটায়ার্ড আউট), শান্ত ৫৩ (রিটায়ার্ড আউট),মুশফিক ৬৬ (রিটায়ার্ড আউট), সোহান ৪৮ (রিটায়ার্ড আউট), মিরাজ ২৪*, তাইজুল ২; এবাদত ১০-৩-২৪-০, শরিফুল ১০-৩-৪২-০, মুগ্ধ ১৩-০-৬১-০, হোম ১১.২-০-৪৬-১, নাইম ১৬-২-৭২-০, মুমিনুল ৮-০-৩১-০

টিম গ্রিন ২২৫, লিটন ৬৪ (রিটায়ার্ড আউট), সাদমান ১৯, মুমিনুল ০ ও ৪৭, রাব্বি ১৫, মিঠুন ২৮, শরিফুল ২০*; মিরাজ ৩/৪১, রাহি ১/২৮, তাইজুল ১/৩০।

টিম রেড-

তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ রাহি, খালেদ আহমেদ, সাপোর্ট স্টাফ।

টিম গ্রিন-

সাদমান ইসলাম অনিক, লিটন কুমার দাস, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি, শুভাগত হোম, নাইম হাসান, শরিফুল ইসলাম, এবাদত হোসেন, শহিদুল ইসলাম ও মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

পুনরায় ব্যাটিংয়ে নামলেন লিটন-মুমিনুল

Read Next

ম্যাক্স ও’ডাউডের রেকর্ডগড়া সেঞ্চুরিতে নেদারল্যান্ডসের জয়

Total
8
Share