‘ট্রেমেন্ডাস’ তামিম-শান্তদের নিয়ে সন্তুষ্ট মিনহাজুল আবেদিন নান্নু

'ট্রেমেন্ডাস' তামিম-শান্তদের নিয়ে সন্তুষ্ট মিনহাজুল আবেদিন নান্নু

শ্রীলঙ্কাতে তিনদিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে অনুশীলন শুরু করা বাংলাদেশ আজ (১৭ এপ্রিল) মাঠে নেমছে নিজেদের মধ্যে দুইদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে। ২১ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া প্রথম টেস্টের আগে নিজেদের পুরোপুরি প্রস্তুত করার ব্যাপারে আশাবাদী প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্ন। রেড ও গ্রিন দলে ভাগ হওয়া ম্যাচে প্রথমদিনে রাজত্ব করেছে ব্যাটসম্যানরা।

কলম্বোর অদূরে নিগোম্বোর কাতুনায়েকে চলছে টাইগারদের অনুশীলন ম্যাচটি। তামিম ইকবালের নেতৃত্বাধীন রেড দলের বিপক্ষে সুবিধা করতে পারছেনা মুমিনুল হকের গ্রিন দলের বোলাররা। প্রথম দিনে ফিফটি তুলে নিয়েছেন তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম দিন শেষে):

টিম রেড ৩১৪/৬ (৭৯.২), তামিম ৬৩ (রিটায়ার্ড আউট), সাইফ ৫২ (রিটায়ার্ড আউট), শান্ত ৫৩ (রিটায়ার্ড আউট),মুশফিক ৬৬ (রিটায়ার্ড আউট), সোহান ৪৮ (রিটায়ার্ড আউট), মিরাজ ২৪*, তাইজুল ২; এবাদত ১০-৩-২৪-০, শরিফুল ১০-৩-৪২-০, মুগ্ধ ১৩-০-৬১-০, হোম ১১.২-০-৪৬-১, নাইম ১৬-২-৭২-০, মুমিনুল ৮-০-৩১-০।

প্রথমদিনে ব্যাটসম্যানদের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে সন্তুষ্ট দলের সাথে শ্রীলঙ্কায় যাওয়া প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তার মতে আগামীকাল ম্যাচের দ্বিতীয় ও শেষ দিনে নিজেদের অনেকটাই প্রস্তুত করে নিতে পারবে টাইগাররা। পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজটি। যার প্রথমটি ২১ ও দ্বিতীয়টি ২৯ এপ্রিল মাঠে গড়াবে।

কন্ডিশন, উইকেট সম্পর্কে ধারণা পেতে প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ সাহয্য করছে উল্লেখ করে বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচটা আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল কারণ আমরা শ্রীলঙ্কায় আসার পর অনুশীলন ম্যাচের যে আয়োজন এই আয়োজনে আমরা ফ্যাসিলিটিজগুলো পুরোপুরি ব্যবহার করতে পেরেছি। আমাদের খেলোয়াড়েরা দুইদিন অনুশীলনের পরই এই প্র্যাকটিস ম্যাচটা পেয়েছে, এটা আমাদের জন্য যথেষ্ট উপকার হয়েছে।’

‘বিশেষ করে ওয়েদার, কন্ডিশন সবকিছুর সাথে মানিয়ে নেয়ার জন্য। উইকেট এবং যে হিউমিড এখানে তার সাথে পুরোপুরি অভ্যস্ত হওয়ার জন্য খেলোয়াড়দের জন্য এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। দুইদিনের ম্যাচের প্রথমদিন আমরা শেষ করতে যাচ্ছি আজ, আমার মনে হয় খেলোয়াড়েরা যথেষ্ট অভ্যস্ত হয়েছে কন্ডিশন ও উইকেটের সাথে। এবং যথেষ্ট ভালো প্র্যাকটিস হয়েছে। আমাদের টপ অর্ডাররা ভালো ব্যাটিং করেছে, বোলাররা যথেষ্ট চেষ্টা করেছে লাইন লেংথ ও ভালো জায়গায় বল করার।’

‘সবমিলিয়ে আমি বলবো এটা খুব ভালো প্রস্তুতিতে সহায়তা করছে, আগামীকাল আরও একদিনের খেলা আছে। আমি মনে করি এরপর আমরা টেস্ট ক্রিকেটের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হয়ে যাবো।’

দিনের প্রথম ঘন্টায় ব্যাটসম্যানরা খানিক সংগ্রাম করলেও ধীরে ধীরে ফ্ল্যাট উইকেটের দেখা মেলে। উইকেটে যথেষ্ট বাউন্স থাকলেও মূল মায়চেও এমন স্পোর্টিং উইকেট পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী প্রধান নির্বাচক।

তিনি বলেন, ‘উইকেটের যে কন্ডিশন ছিল প্রথম ঘন্টায় ব্যাটিং করা কঠিন ছিল। আমাদের ওপেনার তামিম, সাইফ এরা ট্রেমেন্ডাস ব্যাটিং করেছে, শান্ত, মুশফিক ট্রেমেন্ডাস ব্যাটিং করেছে। বোলাররাও হার্ড অ্যান্ড সোল চেষ্টা করেছে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য। আমার বিশ্বাস এই প্র্যাকটিস ম্যাচ থেকে আমরা যথেষ্ট ভালো কিছু ফিডব্যাক পেয়েছি। এটা আগামী দিন খেলা শেষ হওয়ার পর টেস্ট ক্রিকেটের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হতে পারবো।’

‘বোলারদের জন্য খুব কঠিন একটা সেশন গিয়েছে। যে উইকেট ও কন্ডিশন…বাউন্স যথেষ্ট ভালো, যেহেতু এটা অনেকটা ফ্ল্যাট ট্র্যাকের মত। হয়তো টেস্টেও এরকম কন্ডিশন হতে পারে, এই গরমের মধ্যে ভালো জায়গায় বল করা, মনযোগ থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয় আগামী দিন আরও একটা দিন বাকি আছে ম্যাচ প্র্যাকটিসে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য। আমার বিশ্বাস যে আমাদের বোলাররা খুব তাড়াতাড়ি অভ্যস্ত হতে পারবে, টেস্ট ক্রিকেটের আগে প্রস্তুতির জন্য যথেষ্ট কাজে লাগবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

রমজান ও শুক্রবারকে ‘লাকি’ মানছেন কাউন্টি রাঙানো আব্বাস

Read Next

শ্রীলঙ্কাতেও কন্ডিশনই ইস্যু হচ্ছে শান্তদের

Total
5
Share