শেষ ওভারের নাটকীয়তায় জিতল ব্যাঙ্গালোর

c97 4 10

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বোলিং দাপটের দিন গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের অর্ধশত রান। চেন্নাইয়ে ১৪৯ রানের লড়াকু সংগ্রহ স্কোরবোর্ডে তুলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (আরসিবি)। লড়াইটা আসল অর্থেই জমিয়ে তোলে আরসিবির বোলাররা। শেষ ওভারের নাটকীয়তায় ৬ রানে ম্যাচ জিতল ব্যাঙ্গালোর। টানা দুই জয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে আরসিবি।

শেষ ওভারে হায়দ্রাবাদের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। ২ বলে ৮ রান এরপরও দুই উইকেট নিয়ে (এক রান আউট) ব্যাঙ্গালোরকে ম্যাচ জেতালেন হারশাল প্যাটেল। শেষ ওভারে হারশাল দিলেন মাত্র ৯ রান।

২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৩ রানে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে বেঁধে ফেলল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। বোলারদের দুর্দান্ত পারম্যান্সে স্কোরবোর্ডে মাত্র ১৪৯ রান তুলেও ৬ রানে ম্যাচ জিতে নিল কোহলির আরসিবি।

২ ওভারে ৭ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নিলেন শাহবাজ আহমেদ। মোহাম্মদ সিরাজ ও হারশাল প্যাটেলের শিকার দুই উইকেট করে। কাইল জেমিসনের দখলে ১ উইকেট।

সানরাইজার্সের দাপুটে বোলিংয়ের সামনে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের ব্যাটসম্যানদের অসহায় আত্মসমর্পণ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান সংগ্রহ করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। অধিনায়ক ভিরাট কোহলি (৩৩) এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৫৯) ছাড়া বাকি ক্রিকেটাররা দাঁড়াতেই পারেনি হায়দ্রাবাদের বোলিংয়ের সামনে।

আরসিবির হয়ে ওপেন করতে নামেন কোহলি ও পাডিকাল। ওপেনার দেবদূত পাডিকাল (১১) এবং তিন নম্বরে ব্যাট করতে আসা শাহবাজ আহমেদ (১৪) দ্রুত ফেরত যান। ৪৭ রানে দুই উইকেট হারানোর পর অবশ্য কামব্যাক করে ভিরাটরা। ম্যাক্সওয়েল-কোহলি জুটি দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। তবে ভিরাট ৩৩ রান করে ফিরে যাওয়ার পর অন্যদিকে ম্যাক্সওয়েল দাঁড়িয়ে থাকলেও মিডল অর্ডারে তাঁকে কোন ব্যাটসম্যান সঙ্গ দিতে পারেনি।

ডি ভিলিয়ার্স মাত্র ১ রানেই ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। ওয়াশিংটন সুন্দর করেন ৮ রান। ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ানের ব্যাট থেকেও ১ রানের বেশি আসেনি। কাইল জেমিসন ৯ বলে ১২ রান যোগ করেন। তবে একা লড়াই চালিয়ে যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে দলকে সম্মানজনক জায়গায় নিয়ে যান তিনি। ৫টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ৪১ বলে ৫৯ রান করেন ম্যাক্সওয়েল।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে বল হাতে জেসন হোল্ডার ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে তুলে নিলেন ৩ উইকেট। জোড়া উইকেট শিকার করেন রাশিদ খান। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার, শাহবাজ নাদিম এবং থাঙ্গারাসু নটরাজন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরঃ ১৪৯/৮ (২০ ওভার) কোহলি ৩৩, পাডিকাল ১১, শাহবাজ ১৪, ম্যাক্সওয়েল ৫৯, সুন্দর ৮, জেমিসন ১২; হোল্ডার ৩/৩০, রাশিদ ২/১৮, ভুবনেশ্বর ১/৩০, শাহবাজ ১/৩৬, নটরাজন ১/৩২

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদঃ ১৪৩ /৯ (২০ ওভার) ঋদ্ধিমান ১, ওয়ার্নার ৫৪,  পান্ডে ৩৮, বেয়ারস্টো ১২, রাশিদ ১৭, হোল্ডার ৪; সিরাজ ২/২৫, হারশাল ২/২৫, শাহবাজ ৩/৭, জেমিসন ১/৩০

ফলাফলঃ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ৬ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

করোনা টেস্টে পজিটিভ আনরিখ নরকিয়া

Read Next

আচরণবিধি ভঙ্গ করা কোহলিকে ম্যাচ রেফারির ভর্ৎসনা

Total
2
Share