দলের পারফরম্যান্স ফেরাতে নিজের মন্ত্র কাজে লাগাবেন সুজন

দলের পারফরম্যান্স ফেরাতে নিজের মন্ত্র কাজে লাগাবেন সুজন

খালেদ মাহমুদ সুজন, বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের অন্যতম আস্থার জায়গা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবির) পরিচালক, গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান, দেশের অন্যতম সেরা কোচ সহ নানা ভূমিকায় ক্রিকেটারদের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছেন। শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ দলের সাথে গেলেন টিম লিডার হিসেবে। নিজের পূর্ব অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ক্রিকেটারদের দল হিসেবে পারফর্ম করানোর চেষ্টা করবেন বলে জানান সাবেক এই অধিনায়ক।

লম্বা সময় ধরে জাতীয় দলের ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেছেন খালেদ মাহমুদ সুজন। মাঝে খানিক বিরতি পড়লেও আবারও জাতীয় দলের কাছাকাছি থাকার সুযোগ এসেছে। আজ (১২ এপ্রিল) দুপুর ১২ টা ৪০ মিনিটের একটি ফ্লাইটে শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে রওয়ানা করার আগে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন বিসিবির এই পরিচালক।

বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স কথা বলছেনা টাইগারদের হয়ে। ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ধবল ধোলাই। নিউজিল্যান্ডে ওয়ান ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে ধবল ধোলাই হওয়া বাংলাদেশকে পথ দেখানোর ব্যাপারে আশাবাদী খালেদ মাহমুদ সুজন।

মাঝের সময়টা, বিশেষ করে কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর আমলে খালেদ মাহমুদ সুজনকে জাতীয় দলের কোন দায়িত্বে দেখা যায়নি। আর সেটা ডোমিঙ্গোর অনিচ্ছাতেই। কিন্তু দলের পারফরম্যান্স যখন হতাশাজনক তখনই বিদেশ সফরে একজন করে বোর্ড পরিচালককে টিম লিডার হিসেবে যুক্ত করার ঘোষণা বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের। নিউজিল্যান্ড সফরে যে দায়িত্বে ছিলেন জালাল ইউনুস।

এবার শ্রীলঙ্কা সফরে সে দায়িত্ব পালন করতে যাওয়া খালেদ মাহমুদ সুজন বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার নিজস্ব আইডিয়া আছে, নিজস্ব চিন্তাভাবনা আছে। আমি মনে করি সেভাবেই চিন্তা করবো। তাদের সাথে কীভাবে কথা বলতে হয় জানি। সবাই আমার কাছে পুরোনো, নতুন কেউ নাই। সবার সাথেই আমি কোন না কোনভাবে কাজ করেছি। সুতরাং আমি চেষ্টা করবো আমার পন্থা অবলম্বন করতে। আমি মনে করি ইন শা আল্লাহ আমি সেটা পারবো। যদিও সময় খুব বেশিনা, তারপরও যথেষ্ট সময় আছে। আশা করি ভালো কিছু করতে পারবো।’

সাম্প্রতিক সময়ের বাজে পারফরম্যান্সের পেছনে ফিটনেস কিংবা স্কিলের কোন ঘাটতি দেখেননা খালেদ মাহমুদ সুজন। তবে পারফরম্যান্স কেন ভালো হচ্ছে না সেটা তার নিজেরও অজানা। শ্রীলঙ্কা সফরে দলের এই টিম লিডার অবশ্য আস্থা রাখছেন ক্রিকেটারদের উপর। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজটিতে ভালো করার ব্যাপার আশাবাদী তিনি।

তার মতে, ‘খেলোয়াড়রা অনেক ফিট, অনেক চেষ্টা করে তারা। ‌মাঠে গিয়ে পারফরম্যান্সটা কেন হচ্ছে না সেটি একটা বড় ব্যাপার। প্রক্রিয়াগুলো কিন্তু খারাপ বলব না আমি। দল হিসেবে খেলতে হবে আমাদের, ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স অনেক দেখেছি আমরা। এখনই সময় আমরা বাংলাদেশ দল হিসেবে খেলতে চাই।’

‘শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনের শ্রীলঙ্কা বেশ শক্ত প্রতিপক্ষ, কিন্তু আমরা বিশ্বাস করি আমরা স্কিলের দিক থেকে পিছিয়ে নেই, ভালো দল। আমরা যদি আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারি, প্রক্রিয়াটা ঠিক রাখতে পারি, তবে আশা করি ভালো করব।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

রাজস্থানের হয়ে মুস্তাফিজের আইপিএল অভিষেক

Read Next

সতীর্থ সাকিবকে নিয়ে হরভজনের মূল্যায়ন

Total
9
Share