সাকিব-মাশরাফি ইস্যু নিয়ে ভাবতে পারেননি বাশাররা

সাকিব-মাশরাফি ইস্যু নিয়ে ভাবতে পারেননি বাশাররা

সাম্প্রতিক সময়ে মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাকিব আল হাসানের বোর্ড নিয়ে করা নানা অভিযোগ দেশের ক্রিকেটাঙ্গন অস্থির করেছে। আইপিএল খেলতে শ্রীলঙ্কা সফর থেকে ছুটি ইস্যুতে বোর্ডের সাথে ভুল বোঝাবুঝি সাকিবের, অভিযোগ তুলেছেন বোর্ডের কার্যক্রম নিয়েও। দল থেকে বাদ দেওয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে মাশরাফির অভিযোগের তীর দুই নির্বাচকের দিকে।

তবে এসব অস্থিরতা নিউজিল্যান্ডে থাকা টাইগারদের ছুঁয়ে যায়নি খুব একটা। দলের বাজে পারফরম্যান্সে নিউজিল্যান্ডে বসে বাইরের বিষয় নিয়ে ভাবার পরিস্থিতি ছিলনা বলে দাবি নির্বাচক হাবিবুল বাশারের।

দুঃস্বপ্নের এক সফর শেষে গতকাল (৪ এপ্রিল) নিউজিল্যান্ড থেকে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। সফরে সমান তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলা বাংলাদেশ হেরেছে সবকটিতেই। ফলে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সব ফরম্যাট মিলিয়ে টানা ৩২ ম্যাচ হারলো বাংলাদেশ। কিউই মুল্লুকে জয়ের স্বপ্ন থেকে গেল অধরাই।

একদিকে দলের বাজে পারফরম্যান্স অন্যদিকে সাকিব-মাশরাফির বোর্ড নিয়ে সমালোচনা। দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিবিকে করেছে বিব্রত। বিশেষ করে মাশরাফিকে বাদ দেওয়ার প্রক্রিয়া অস্বচ্ছ ছিল বলে অভিযোগ খোদ মাশরাফির। যা দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও হাবিবুল বাশারকেও নিশ্চিতভাবে করেছে বিব্রত। তবে নিউজিল্যান্ডে দলের সাথে থাকা হাবিবুল বাশার এসব নিয়ে ভাবার পরিস্থিতিই পাননি দলের বাজে দশায়।

আজ (৫ এপ্রিল) নিজ বাসভবনে সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপে হাবিবুল বাশার বলেন, ‘এখনো পর্যন্ত না (সাকিব-মাশরাফি ইস্যুতে আলোচনা), আমরা আসলে আমাদের পারফরম্যান্স নিয়ে এতটাই চিন্তিত ছিলাম যে, ভালো করার বিষয়েই আমাদের মনযোগ ছিল। আমাদের নিয়ে কিংবা অন্য কাউকে নিয়ে বাইরে কি কথা হচ্ছে সেসবে মনযোগ দেওয়ার মত পরিস্থিতি ছিল না। আমরা আসলে আমাদের পারফরম্যান্স নিয়েই চিন্তিত ছিলাম।’

এদিকে বেশ হতাশাজনক নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের প্রাপ্তি কি সেটা জানাতে গিয়ে জাতীয় দলের এই নির্বাচক বলছেন পরবর্তী সিরিজেই তা জানা যাবে। সাদা বল আর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধ কন্ডিশনে খেলে আসা বাংলাদেশ টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে। তবে ভিন্ন ফরম্যাট ভিন কন্ডিশন হলেও নিউজিল্যান্ড সফরের প্রাপ্তি সম্পর্কে জানা যাবে এই সফরেই বলছেন হাবিবুল বাশার।

তার মতে, ‘এটা (নিউজিল্যান্ড সফরের প্রাপ্তি) বোঝা যাবে আমাদের পরবর্তী সিরিজে, শ্রীলঙ্কা সফরে। সাধারণত একটা কঠিন সিরিজ পার করে আসার পর পরের সিরিজটা একটু সহজ হয়। আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলা। ভিন্ন ফরম্যাট হলেও কন্ডিশনও আলাদা। প্রাপ্তি বলতে আমাদের উপলব্ধিটা। আমরা কোথায় দাঁড়িয়ে আছি, আমাদের কোন কোন জায়গায় উন্নতি করতে হবে। নিজেদের সম্পর্কে উপলব্ধি করাটাই এই সফরের বড় প্রাপ্তি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সেদিনের এই দিনেঃ দুই যমজ ভাইয়ের একসঙ্গে প্রথম টেস্ট

Read Next

যে কারণে শ্রীলঙ্কা সফরের স্কোয়াড ছোট রাখতে চান নির্বাচকরা

Total
19
Share