জাহানারার ‘গোল্ডেন ডে’ তে রোমাঞ্চিত রুমানা, সালমারা

জাহানারার 'গোল্ডেন ডে' তে রোমাঞ্চিত রুমানা, সালমারা

২০১১ সালে ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়া বাংলাদেশ নারী দল এবার টেস্ট স্ট্যাটাসও অর্জন করলো। গতকাল (১ এপ্রিল) আইসিসির ভার্চুয়াল বোর্ড ও ক্রিকেট কমিটির বৈঠকে পূর্ণ সদস্য নারী দলগুলোকে স্থায়ীভাবে ওয়ানডে ও টেস্ট স্ট্যাটাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এমন খবরে উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশ নারী দলের ক্রিকেটাররা। পেসার জাহানারা আলমের চোখে এমন দিন  ‘গোল্ডেন ডে’। নিজেকে টেস্ট ক্রিকেটার ভেবে রোমাঞ্চিত হচ্ছেন রুমানা আহমেদ।

দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষে সিরিজ সামনে রেখে বর্তমানে সিলেটে অবস্থান করছে বাংলাদেশ নারী দল। পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়াবে আগামী ৪ মার্চ। ইতোমধ্যে সিলেটে পৌঁছে অনুশীলন করছে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং নারী দলও।

বাংলাদেশ নারী দলের টেস্ট মর্যাদা লাভের খবরে অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ এখন থেকে নিজেদের টেস্ট খেলোয়াড় হিসেবে ভাবছেন এবং রোমাঞ্চিত হচ্ছেন। সালমা খাতুন, নাহিদা আকতার, নিগার সুলতানা জ্যোতিদের প্রত্যাশা এমন কিছু অর্জনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট অন্য উচ্চতায় পৌছাবে।

বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশ নারী দলের অন্যতম অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সালমা খাতুন বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ টেস্ট ক্রিকেটের মর্যাদা পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত। আশা করি মেয়েদের ক্রিকেটে এটা আমাদের অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

পেসার জাহানারা আলম নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন,

‘আলহামদুলিল্লাহ আজকে আমাদের গোল্ডেন ডে, আইসিসির কাছ থেকে টেস্ট মর্যাদা পেলাম। আমার বিশ্বাস বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে যাবে সামনের দিকে। আমার মনে হয় বাংলাদেশ নারী দল যখন টেস্ট ক্রিকেট খেলবে… টেস্ট ক্রিকেট ছাড়া ক্রিকেটের পূর্ণতা আসেনা। আমরা আজ পূর্ণতা পেলাম। আমরা সামনে এগিয়ে যাবো এবং বাংলাদেশকে আরও অনেক দূর এগিয়ে নিব ইন শা আল্লাহ।’

তবে অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ এখন থেকেই নিজেদের টেস্ট ক্রিকেটার ভাবা শুরু করেছেন। টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট পূর্ণতা পেয়েছে উল্লেখ করে রুমানা জানান তার অনুভূতির কথা।

রুমানা বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, নিঃসন্দেহে এটা আমাদের জন্য ভালো নিউজ। এই টেস্ট স্ট্যাটাসের মাধ্যমে আমাদের নারী ক্রিকেট পূর্ণতা পেয়েছে। সত্যি কথা নিজেদের টেস্ট খেলোয়াড় হিসেবে ভাবতে অন্যরকম অনুভূতি হচ্ছে। এই টেস্ট স্ট্যাটাসের মাধ্যমে আমাদের ক্রিকেটটাকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’

টেস্ট মর্যাদার বদলৌতে দেশের নারী ক্রিকেট বদলে যাবে, উঠবে অন্য উচ্চতায় এমনটাই বিশ্বাস নাহিদা আকতার ও নিগার সুলতানা জ্যোতিদের।

দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ নারীদের নেতৃত্ব দিতে যাওয়া উইকেট রক্ষক জ্যোতি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ টেস্ট ক্রিকেটের ঐতিহ্যবাহী ফরম্যাটে অন্তর্ভূক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত ও গর্বিত। আশা করি অবশ্যই এটি বাংলাদেশ ক্রিকেটকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে যাবে।’

অনেকটা একই সুর নাহিদার কণ্ঠেও,

‘আলহামদুলিল্লাহ আমরা খুবই আনন্দিত টেস্ট মর্যাদা পেয়ে। আশা করি এটা ভবিষ্যতে মেয়েদের ক্রিকেটকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

জাতীয় চার নেতাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করল বিসিএসএ

Read Next

বাবরের সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাল পাকিস্তান

Total
6
Share