আত্মবিশ্বাসী সাকিব বলছেন হতে হবে ‘ওপেন মাইন্ডেড’

আত্মবিশ্বাসী সাকিব বলছেন হতে হবে 'ওপেন মাইন্ডেড'

কোলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) হয়ে আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) খেলতে এই মুহূর্তে ভারতে অবস্থান করছেন সাকিব আল হাসান। এর আগে দুই দফা কেকেআরের শিরোপাজয়ী দলের সদস্য সাকিব যেকোন দায়িত্ব পালনেই প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন।

আইসিসির নিষেধাজ্ঞার কারণে গেলবারের আইপিএলে খেলা হয়নি সাকিব আল হাসানের। ৯ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলের ১৪ তম আসরে ঘরের ছেলে ঘরে ফিরেছে। ২০১২ ও ২০১৪ সালে শিরোপা জিতেছিল কেকেআর, দুই আসরেই দলের অংশ ছিলেন সাকিব। ২০১৯ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলা সাকিব জানিয়েছেন কেকেআরের সঙ্গে দ্বিতীয় ইনিংসে যেকোন দায়িত্বের জন্য উন্মুক্ত।

নিউজ এজেন্সি পিটিআই (প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া) কে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি যেকোন কিছুর জন্য তৈরি। আমি খুবই আত্মবিশ্বাসী, কেবল একটা ভালো ম্যাচের দরকার সেটা চালিয়ে নিতে। আমি যদি শুরুটা ভাল করতে পারি, আমি মনে করি আমি দলের জন্য ভাল করতে পারব।’

গেলবার হায়দ্রাবাদের পক্ষে কেবল ৩ ম্যাচ খেলেছিলেন সাকিব, এবারে কোলকাতার হয়ে যে খুব বেশি ম্যাচ পাবেন তা নিশ্চিত নয়। প্রাথমিকভাবে তাকে ভাবা হচ্ছে সুনীল নারাইনের ব্যাকআপ। বাস্তবতা মেনে সাকিব বলছেন তিনি থাকবেন ওপেন মাইন্ডেড। তবে পরিশ্রম করবেন, যাতে সুযোগ এলেই তা লুফে নিতে পারেন।

সাকিব বলেন, ‘প্রতিটি দলেই ৮-১০ জন ওভারসিজ ক্রিকেটার আছে যেখান থেকে কেবল ৪ জন খেলবে। আপনি তাই টিম সিলেকশনে দায় দিতে পারবেন না। আপনাকে ওপেন মাইন্ডেড হতে হবে, কঠোর ট্রেনিং করতে হবে এবং নিশ্চিত করতে হবে যখনই আপনি সুযোগ পান সেটা যেনো আপনি দুহাত ভরে নিতে পারেন।’

কেকেআরের সঙ্গে গৌতম গম্ভীরের সম্পর্ক চুকেবুকে যাবার পর দুদফা দলটি প্লেঅফ খেলতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে সাকিব মনে করেন এবার দলের সুযোগ আছে অনেক।

‘বাইরে থেকে আপনি এটাকে ভিন্নভাবে দেখতে পারেন। গত দুই বছরে এই দলটা তৈরি হয়েছে। এটা এমন এক বছর যেখানে আমি মনে করি ভক্ত-সমর্থকরা যা চান দল তা দিতে পারবে। আমি খুবই আশাবাদী, কোলকাতা নাইট রাইডার্স ভালো ফল করবে।’

গতদিন কেকেআর দলপতি এউইন মরগান দাবি করেছেন তাদের দলের স্পিন আক্রমণই টুর্নামেন্টের সেরা।

দলের স্পিন আক্রমণ নিয়ে মরগান বলেছিলেন, ‘আমার মনে হয় আপনি যখন আমাদের পুরো স্পিন বিভাগের দিকে তাকাবেন কাগজে কলমে এটি টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা স্পিন আক্রমণ এবং এটিই সত্য।’

‘আমাদের হাতে থাকা বিকল্পগুলো আপনি দেখতে পারেন। আমরা যেসব পিচে খেলবো বিশেষ করে চেন্নাইয়ের উইকেটে স্পিনাররা দারুণ কার্যকর হবে। এটা এমন একটা জায়গা যেখানে আমরা যদি টুর্নামেন্টে ভালো খেলি নিশ্চিতভাবেই আমাদের স্পিনাররা নিজেদের মেলে ধরতে পারবে।’

সাকিবের কণ্ঠেও মরগানের সুর। সাকিব অবশ্য মনে করেন স্পিন ও পেস দুই বিভাগেই তাদের বোলিং লাইনআপ দুর্দান্ত।

সাকিব বলেন, ‘আমাদের খুবই ভাল স্পিন ডিপার্টমেন্ট আছে। এটা যখন বলছি তখন আমাদের পেস বোলিং লাইনআপও দারুণ। সবমিলিয়ে আমাদের বোলিং লাইনআপটা খুব ভাল।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এমন সিরিজ ভুলে যেতে চান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

Read Next

শুভাগত হোমের ম্যাচ ড্রয়েই সমাপ্তি

Total
8
Share