রুবেল-নাসুমদের তুলোধুনো করে নিউজিল্যান্ডের রান পাহাড়

রুবেল-নাসুমদের তুলোধুনো করে নিউজিল্যান্ডের রান পাহাড়

অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে বৃষ্টি কেড়ে নিয়েছে ম্যাচের অর্ধেক দৈর্ঘ্য। তবে ১০ ওভারে নেমে আসা শেষ টি-টোয়েন্টিতে টস হেরে আগে ব্যাট করে চার-ছক্কার বৃষ্টি নামিয়েছেন নিউজিল্যান্ড ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও ফিন অ্যালেন। অ্যালেনের ব্যাট থেকে আসে ক্যারিয়ার সেরা ৭১ রানের ঝড়ো ইনিংস। যে ঝড়ে এলোমেলো বাংলাদেশ শিবির, জয়ের জন্য লক্ষ্য ১০ ওভারে ১৪২।

নেপিয়ারে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি চলাকালীন ‘স্ট্রেইনড’ চোটে পড়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আজ মাঠে নামতে না পারাতেই অধিনায়ক করা হয় লিটন দাসকে। কাঁধের চোটে প্রথম দুই ম্যাচ না খেলা মুশফিকুর রহিম খেলার মত অবস্থায় ছিলেন না এদিনও। ফলে ২০০৬ সালের পর প্রথমবার পঞ্চ পান্ডবের সবাইকে ছাড়াই মাঠে নামলো বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরে মাশরাফি বিন মর্তুজা, ছুটি নিয়েছেন তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান।

তিন পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নামে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিঠুন ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের জায়গায় একাদশে ঢুকেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও রুবেল হোসেন। নিউজিল্যান্ড একাদশে পরিবর্তন দুইটি। লকি ফার্গুসন ও টড অ্যাস্টল একাদশে ফেরায় বাদ পড়েছেন হামিশ বেনেট ও ইশ সোধি।

আবহাওয়া পূর্বাভাস অনুসারে এদিন বৃষ্টির শঙ্কা ছিল ভালোভাবেই। সকাল থেকে অকল্যান্ডের আকাশ থেকে ঝরা বৃষ্টিতে পন্ড হয় একই ভেন্যুর নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া নারী দলের মধ্যাকার তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের টসের জন্যও ম্যাচ শুরুর নির্ধারিত (সন্ধ্যা ৭ টা) সময়ের পরও দুই ঘন্টা অপেক্ষা করতে হয়। শেষ পর্যন্ত স্থানীয় সময় ৮ টা ৫৫ মিনিটে টস শেষে ৯ টা ১০ মিনিটে খেলা মাঠে গড়ায়।

পাওয়ার প্লের ৩ ওভারেই কিউইদের স্কোরবোর্ডে ৪৩ রান তোলেন দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও ফিন অ্যালেন। নাসুম আহমেদের করা ইনিংসের প্রথম ওভারে ৯, তাসকিনের করা দ্বিতীয় ওভারে ১৪ এবং নাসুমের তৃতীয় ওভার থেকে আসে ২০ রান।

তবে শুধু পাওয়ার প্লে নয় দুজনের একসাথে তান্ডব চলেছে ৫.৪ ওভার পর্যন্ত। বরং পাওয়ার প্লের পরই যেন বেশি আক্রমণাত্মক হন গাপটিল- অ্যালেন। ১৯ বলে ৫ ছক্কার সাথে ১ চারে ৪৪ রান করে গাপটিল আউট হলে ভাঙে ৮৫ রানের জুটি।

গাপটিল থামলেও থামেনি অ্যালেন ঝড়, তাসকিন, নাসুম, শেখ মেহদী হাসান, রুবেল হোসেনদের স্রেফ দর্শক বানিয়ে ১৮ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ফিফটি। তার সাথে আগের ম্যাচে ফিফটি হাঁকানো গ্লেন ফিলিপস যোগ দিলে ৬.৫ ওভারেই দলীয় সংগ্রহ পেরোয় ১০০। শরিফুলের বলে অবশ্য ১৪ রান করে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ফিলিপস।

ইনিংসের শেষ ওভারে অ্যালেন ফিরেছেন তাসকিনের বলে মেহেদী হাসান মিরাজকে ক্যাচ দিয়ে। ততক্ষণে ২৯ বলে নামের পাশে ১০ চার ৩ ছক্কায় ৭১ রান। ৪ উইকেটে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ১৪১ রান। শেষ বলে রান আউট হওয়া ড্যারিল মিচেলের ব্যাট থেকে আসে ১১ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম ইনিংস শেষে):

নিউজিল্যান্ড ১৪১/৪ (১০), গাপটিল ৪৪, অ্যালেন ৭১, ফিলিপস ১৪, মিচেল ১১, চ্যাপম্যান ০*; তাসকিন ২-০-২৪-১, শরিফুল ২-০-২১-১, মেহেদী ২-০-৩৪-১।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অকল্যান্ডে টস জিতলেন লিটন দাস

Read Next

নিউজিল্যান্ডে ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করল বাংলাদেশ

Total
6
Share