এনসিএলে জাকিরের ‘ব্যাক টু ব্যাক’ সেঞ্চুরি

এনসিএলে জাকিরের 'ব্যাক টু ব্যাক' সেঞ্চুরি

জাকির হাসানের দাপুটে সেঞ্চুরিতে বিপর্যয় পেছনে ফেলে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে বড় সংগ্রহের পথে সিলেট বিভাগ। কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু ২২ তম জাতীয় লিগের (এনসিএল) দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম দিনে সিলেটের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৮২ রান। জাকির হাসানের ১৫৯ রানের সাথে জাকের আলি অনিক পেয়ছেন ফিফটির দেখা।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে সিলেট। পেসার সুমন খান ও সালাউদ্দিন শাকিলের তোপে ৫০ রানেই হারায় তিন উইকেট। ওপেনার সায়েম আলম ১১ ও তিন নম্বরে নামা অমিত হাসান ১৩ রান করলেও খালি হাতে ফিরেছেন আরেক ওপেনার শাহনাজ আহমেদ।

সেখান থেকে জাকের আলিকে নিয়ে জাকির হাসানের ১৫৪ রানের জুটি। এই জুটি গড়ার পথেই সেঞ্চুরি ছুঁয়েছেন জাকির হাসান, ফিফটির দেখা জাকের আলির। শুভাগত হোমের বলে নাদিফ চৌধুরীকে ক্যাচ দিয়ে জাকের ফিরলে ভাঙে জুটি। ১৮৯ মিনিট ক্রিজে কাটিয়ে ১৫৩ বলে ৭ চারে ৬৭ রান করেন উইকেট রক্ষক এই ব্যাটসম্যান।

জাকের ফিরলেও নিজের সেঞ্চুরিকে ১৫০ পেরোনো ইনিংসে রূপ দেন জাকির। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানও শুভাগত হোমের স্পিনে ধরা পড়েন সুমন খানের হাতে ক্যাচ দিলে। তার আগে ৫ ঘন্টার বেশি সময় ক্রিজে কাটিয়ে ২২৮ বলে ১৭ চার ২ ছক্কায় ১৫৯ রানের ইনিংস খেলেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

আগের ইনিংসেই (খুলনায় খুলনা বিভাগীয় দলের বিপক্ষে ২য় ইনিংসে) ১৪০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন ২৩ বছর বয়সী জাকির। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সেঞ্চুরি সংখ্যা এখন ৭।

এরপর রাহাতুল ফেরদৌস (৫) শুভাগতের তৃতীয় শিকার হয়ে দ্রুত ফিরলেও দিনের বাকি ৪.১ ওভার কোন বিপদ ছাড়াই কাটান আসাদুল্লাহ গালিব (২৪*) ও এনামুল হক জুনিয়র (০*)। ৬ উইকেটে ২৮২ রানেই দিন শেষ করে সিলেট।

ঢাকা বিভাগের হয়ে ৫৬ রান খরচায় সর্বোচ্চ ৩ উইকেট অফ স্পিনার শুভাগতের। ৪৮ রান খরচায় ২ উইকেট সুমন খানের, সমান রান খরচায় এক উইকেট সালাউদ্দিন শাকিলের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম দিন শেষে):

সিলেট ২৮২/৬ (৯০), সায়েম ১১, শাহনাজ ০, অমিত ১৩, জাকির ১৫৯, জাকের ৬৭, গালিব ২৪*, রাহাতুল ৫, এনামুল ০*; সুমন ১৫-২-৪৮-২, শাকিল ১৫-২-৪৮-১, শুভাগত ১৯-৩-৫৬-৩।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিকেএসপিতে ‘২১’ উইকেটের এক দিন!

Read Next

কক্সবাজারে পিনাকের অপরাজিত সেঞ্চুরি

Total
11
Share