আইপিএলে আম্পায়ারিংয়ের নিয়মে বড় পরিবর্তন

'আম্পায়ার্স কল' রাখতে আইসিসি ক্রিকেট কমিটির সুপারিশ

এবারের আইপিএলে আম্পায়ারিং সংক্রান্ত নিয়মে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বদল আসছে। সফট সিগনালের ফলে সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হওয়ার বদলে বরং ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়েছে। অনেক সময় মাঠের আম্পায়ারের আপাত দৃষ্টিতে নেওয়া সিদ্ধান্ত বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছে। সেই কারণে এবারের আইপিএল আসরে মাঠের আম্পায়াররা কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে না পারলে তাঁরা সরাসরি তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে বিষয়টি পাঠিয়ে দেবেন। অন-ফিল্ড আম্পায়াররা ‘সফট সিগনাল’ও দিতে পারবেন না।

আগামী ৯ এপ্রিল থেকে শুরু হতে চলা ১৪তম আইপিএল আসরে সফট সিগনালের কোনও ভূমিকা থাকবে না। ভারত অধিনায়ক কোহলির আবেদনের পরই বিষয়টি নিয়ে গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করে বড়সড় সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।

আসন্ন ২০২১ আইপিএল মৌসুমে কোনও আউটের সিদ্ধান্ত যদি মাঠের আম্পায়াররা নিতে না পারেন, তাহলে তৃতীয় আম্পায়ারের দ্বারস্থ হতে হলে মাঠের আম্পায়াররা ‘সফট সিগনাল’ দিতে পারবেন না। এ বিষয়ে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেবেন তৃতীয় আম্পায়ারই।

সম্প্রতি ভিরাট কোহলি ‘সফট সিগনাল’ নিয়ে সরব হয়েছেন। অসন্তোষ প্রকাশ করে কোহলি বলেছেন,

‘বল যদি স্টাম্পে লাগে বা স্টাম্পের বাইরে দিয়ে চলে যায়, তাহলে কতটা বাইরে যাচ্ছে বা কত শতাংশ স্টাম্পে লাগছে, সেটা বিচার করা উচিত নয়। কারণ, সেক্ষেত্রে সংশয় তৈরি হচ্ছে। ফিল্ডিং টিম আউটের আবেদন জানালে তারা কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে, সেটাও বিচার করা জরুরি। সেই কারণেই সফট সিগনাল নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। ভারতীয় দলের ক্ষেত্রে স্পিরিট নিয়ে যেটা বলা হয়, বিদেশি দলগুলির ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ অন্য কথা বলা হয়। বড় প্রতিযোগিতাগুলিতে এই বিষয়টি নিয়ে আরও বেশি সমস্যা হতে পারে। তাই এ বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা থাকা জরুরি।’

ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজে ‘সফট সিগনাল’ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। এরপর কোহলির পরামর্শের পর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সফট সিগনাল বিষয়ে আলোচনা করে এবং সেই অনুযায়ী বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, এবারের আইপিএলে ‘সফট সিগনাল’ থাকবে না।

আইপিএল গর্ভনিং কাউন্সিলের বৈঠকে সব ফ্রাঞ্চাইজিদের এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

এছাড়া শর্ট-রানের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়ার দায়িত্বও দেওয়া হচ্ছে তৃতীয় আম্পায়ারদের। ম্যাচের মধ্যে শর্ট রান নিয়ে মাঠে উপস্থিত আম্পায়রই সিদ্ধান্ত নেন৷ যদি তাঁরা দেখতে পান, মাঠের আম্পায়াররা শর্ট-রানের বিষয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাহলে তাঁরা সেই সিদ্ধান্ত বদলে দিতে পারবেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দুইটি হ্যাটট্রিক মিস, সোধি বললেন আদর্শ ছিল না

Read Next

আগে না দেখা বাংলাদেশিরা নেপিয়ার, ইডেন পার্কে চ্যালেঞ্জ হতে পারে

Total
3
Share