মুশফিকের উইকেট কিপিং নিয়ে খালেদ মাহমুদ সুজনের ভাবনা

মুশফিকের উইকেট কিপিং নিয়ে খালেদ মাহমুদ সুজনের ভাবনা

ব্যাট হাতে মুশফিকুর রহিম যতটা আস্থার জায়গা ঠিক ততটাই অনাস্থার জায়গা গ্লাভস হাতে উইকেটের পেছনে। কিছু নির্দিষ্ট হারের জন্য গ্লাভস হাতে তার করা ভুল কাঠগড়ায় উঠবে নিশ্চিতভাবে। নিউজিল্যান্ডে সদ্য সমাপ্ত ওয়ানডে সিরিজে সহজ ক্যাচ, রান আউটের সুযোগ মিস করে আবারও হচ্ছেন প্রশ্নবিদ্ধ। বিশেষ করে দলে যখন লিটন দাসের মত উইকেট রক্ষক থাকে তখন চাইলেই গ্লাভস জোড়া তুলে দিতে পারেন তার হাতে। বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন বলছেন সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য মুশফিকই সেরা ব্যক্তি।

উইকেট রক্ষক হিসেবে কখনোই মুশফিক সেরাদের কাতারে ছিলেন না। তবে কাজটা দারুণ উপভোগ করেন বলেই সহজে ছাড়তে চান না। নানা বিতর্কের পর টেস্ট ক্রিকেটে কিপিংটা ছেড়েছেন নিজে থেকেই। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে এখনো আগলে রেখেছেন।

২০১৯ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে কেন উইলিয়ামসনের সহজ রান আউট মিস করেন একদমই আনাড়ি উইকেট রক্ষকের মতো ভুল করে। ৮ রানে বেঁচে যাওয়া উইলিয়ামসন সেদিন করেছেন ৪০ রান। জয়ের সুবাস পেয়েও হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। যে জয়ে সেমিফাইনালের পথটা হতে পারতো জোরালো।

২০১২ সালে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম আক্ষেপ হয়ে থাকা এশিয়া কাপের ফাইনালেও শহীদ আফ্রিদির স্টাম্পিং মিস মুশফিকের। পাকিস্তানের বিপক্ষে ২ রানে হারা ম্যাচে আফ্রিদির ব্যাট থেকে আসে ২২ বলে ৩২ রান। এমন ক্যাচ, স্টাম্পিং মিসের সাথে বেশ কয়েকবারই জড়িয়েছে মুশফিকের নাম।

সর্বশেষ গত ২৩ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জিমি নিশামের সহজ ক্যাচ ছাড়লেন। ৩ রানে জীবন পাওয়া নিশাম ৩০ রান না করলে ম্যাচের ফল বদলের সমূহ সম্ভাবনা ছিল। পরের ম্যাচে আবারও সহজ ক্যাচ মিস করলেন, এবার ওপেনার হেনরি নিকোলস। নিকোলস এদিন খুব বেশিক্ষণ না টিকলেও উইকেট রক্ষক মুশফিক নিজের ব্যর্থতার তালিকাটা করলেন লম্বা।

এমনকি নিউজিল্যান্ড ইনিংসের শেষ বলে সেঞ্চুরিতে পৌঁছানো ড্যারিল মিচেলকে রান আউটের সুযগ পেয়েও বল রিসিভে দেখিয়েছেন ঢিলেঢালাভাব। অথচ নিয়মিত একাদশে আছেন লিটন দাসের মত পরীক্ষিত উইকেটরক্ষক।

এখনো সব ফরম্যাটে মুশফিকের গ্লাভস ছাড়া নিয়ে অবশ্য ভিন্নভাবে উত্তর দিলেন বিসিবি পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন। তার মতে সিদ্ধান্তটা মুশফিকের কাছ থেকেই আসা উচিত। আর মুশফিককে চিন্তা ভাবনার দিক থেকেও অন্য অনেকের চাইতে আলাদা করে তুলে ধরলেন সুজন।

মিরপুরে আজ (২৭ মার্চ) গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি বাংলাদেশ দলের সবাই কিন্তু জেতার জন্যই খেলে। মুশফিকও এর অংশ। সেও জেতার জন্যই খেলে। আমি মনে করি, এ সিদ্ধান্তটা নেয়ার জন্য মুশফিকই সেরা ব্যক্তি যে সে এখন কিপিং গ্লাভসটা তুলে রেখে ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দেবে কি না। এই সিদ্ধান্তটা আমিও ওর কাছেই রাখতে চাই। এটা আমি ওভাবে আলাপ না করে বলতে চাই, হি ইজ আ ভেরি গুড থিংকার। ও খুব ভালো চিন্তা করে।’

‘বাংলাদেশ দলের জন্য চিন্তা করে, নিজের জন্য চিন্তা করে। এটা ও চিন্তা করবে যে, যেহেতু লিটন-মিঠুন আছে, আমার কিপিংটা আগের মতো হচ্ছে না, ওদের একজনকে গ্লাভসটা ছেড়ে দেবো কি না। এটার সিদ্ধান্ত ও নিলেই সবচেয়ে ভালো হবে। একজন সিনিয়র ক্রিকেটার, সাবেক অধিনায়ক হিসেবে ওর তো অনেক দায়িত্ব আছে। তো এই দায়িত্ব থেকেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে আসলে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শ্রীলঙ্কার সফরের জন্য ‘এক্সট্রিম টিম’ গঠনের কাজ করছেন রাজ্জাকরা

Read Next

সাকিবের আইপিএল খেলাতে খারাপ কিছু দেখেন না সুজন

Total
8
Share