সাকিব-মাশরাফির মন্তব্য, বেশি গুরুত্ব না দিতে বলছেন সুজন

সাকিব-মাশরাফির মন্তব্য, বেশি গুরুত্ব না দিতে বলছেন স্যজন

সাম্প্রতিক সময়ে বিসিবির পরিচালকদের বিরুদ্ধে সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মর্তুজার উগরে দেওয়া ক্ষোভ নিয়ে কোন মন্তব্য করেননি বিসিবির কেউই। তবে আজ (২৮ মার্চ) বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন কথা বলেছেন এ বিষয়ে। তার মতে সাকিব-মাশরাফিরা হয়তো কোন দুঃখ থেকে এসব বলছেন। তাদের মন্তব্যকে যতটা গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে ততটা গুরুত্ব না দেওয়ার পরামর্শ এই পরিচালকের।

সাকিব-মাশরাফি বোর্ড পরিচালক, নির্বাচকদের বিপক্ষে নানা অভিযোগ তুললেও ভূয়সী প্রশংসা করেছেন খালেদ মাহমুদ সুজনের। বিশেষ করে গেম ডেভেলপমেন্ট চেয়ারম্যান হিসেবে বয়সভিত্তিকে তার সাফল্য তুলে ধরেন দুজনেই। এমনকি ক্রিকেটারদের আস্থার জায়গা হিসেবে সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য লোক হিসেবেই তুলে ধরেন তাকে।

আজ (২৭ মার্চ) গণমাধ্যম এড়িয়ে গেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান। তবে সাংবাদিকদের সাথে আলাপে মিরপুরে খালেদ মাহমুদ সুজন জানান সাকিব-মাশরাফির ইস্যুকে খুব একটা গুরুত্ব না দিতে। যে বোর্ডে নাজমুল হাসান পাপনের মত লোক আছে সেখানে সমস্যা বড় হবেনা বলে ধারণা তার, সমাধান হবে দ্রুতই।

খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আমি আসলে এটার ব্যাপারে মন্তব্য করতে চাইনা। আমি আসলে বলতে চাই, বিব্রতকরতো একটু লাগবেই। দুজনেই আমাদের দেশের ক্রিকেটের আইকন। মাশরাফি আইকন, অন্যতম সফল অধিনায়ক, কিংবদন্তি বলবো আমি। বাংলাদেশ ক্রিকেটকে খাদের কিনারা থেকে তুলে আনা অধিনায়ক। সাকিবতো বিশ্বসেরা, ওর কথা বলতে গেলে…। বাংলাদেশের সেরা পারফর্মার। যে ব্যাপারটা ওরা বলেছে কেন বলেছে এটা আসলে…সবারই ভালোবাসা থাকে ক্ষোভ থাকে, দুঃখ থাকে।’

‘খুব দুঃখ থেকে কথাগুলো আসছে কিনা আমি জানিনা। ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকরা সবাই সম্মানী, যারা কাজ করে চেষ্টা করে। তারা তাদের সর্বোচ্চটা চেষ্টা করে। হয় কি কখনো সফল জয় কখনো ব্যর্থ। আলাদা করে কেউ এখানে সময় কাটাতে আসেনা। সবাই চেষ্টা করে। ওরা ওদের ব্যক্তিগত অভিমত জানিয়েছে। আমি মনে করি যতটা গুরুত্ব দিচ্ছি ততটা গুরুত্ব দেওয়ার কিছুনা। এটা যত দ্রুত সঠিক দিক নির্দেশনার মাধ্যমে ঠিক করে ফেলা যায়। এটা নিয়ে কথা বাড়ানো ঠিক না, গসিপ করাটাও উচিত না। যার যার মনের কথাটা হয়েছে। সত্যি মিথ্যা কথা না।’

‘কেন বলেছে এটা বোর্ডের আলোচনার মাধ্যমে…সবচেয়ে বড় কথা যে বোর্ডে পাপন ভাইয়ের মত লোক আছে সে বোর্ডে আসলে সমস্যা থাকার কথা না। কারণ বাংলাদেশ ক্রিকেটের খুটিনাটি সবই জানেন। যেকোন পরিস্থিতি উনি সামাল দিতে পারেন খুব ভালো করে। পাপন ভাই এখন খুব বেশি কোন কারণে বের হচ্ছেন না। উনি বের হলে আশা করি খুব দ্রুতই এসব ছোটখাটো বিষয় সমাধান হয়ে যাবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠেও তামিমের সুর

Read Next

শ্রীলঙ্কার সফরের জন্য ‘এক্সট্রিম টিম’ গঠনের কাজ করছেন রাজ্জাকরা

Total
59
Share