হেসেখেলে ভারতের রান পাহাড় টপকে গেল ইংল্যান্ড

হেসেখেলে ভারতের রান পাহাড় টপকে গেল ইংল্যান্ড

পুনেতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ১ম ম্যাচে সম্ভাবনা তৈরি করেও শেষ পর্যন্ত হারতে হয়েছিল সফরকারী ইংল্যান্ডকে। একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য জয় পেয়েছে ইংলিশরা। কঠিন কাজ সহজে সেরে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে তারা।

নিয়মিত অধিনায়ক এউইন মরগান ইনজুরির কারণে ছিটকে যাওয়ায় এদিন ইংল্যান্ডের হয়ে টস করতে নামেন জস বাটলার। পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠান তিনি।

আগের ম্যাচের ম্যাচসেরা হওয়া শিখর ধাওয়ান এদিন আউট হন মাত্র ৪ রান করে, রিস টপলের বলে স্লিপে বেন স্টোকসকে ক্যাচ দেন তিনি। বেশিক্ষণ টেকেননি অপর ওপেনার রোহিত শর্মাও। ২৫ বলে ২৫ রান করে স্যাম কারেনের বলে আদিল রশিদকে ক্যাচ দেন তিনি।

৩৭ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলা ভারতকে উদ্ধার করেন অধিনায়ক ভিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুল। দুজন মিলে ৩য় উইকেট জুটিতে তোলেন ১২১ রান। ৭৯ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৬৬ রান করে ফেরেন কোহলি।

কোহলির সেঞ্চুরি হাতছাড়া হলেও ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নেন লোকেশ রাহুল। ১১৪ বলে ৭ চার ও ২ ছক্কায় ১০৮ রান করেন তিনি। তাকে দারুণ সঙ্গ দেন শ্রেয়াস আইয়ারের জায়গায় দলে ঢোকা রিশাব পান্ট। ৪০ বলে ৩ চার ও ৭ টি ছক্কায় ৭৭ রান করেন তিনি।

এছাড়া হার্দিক পান্ডিয়া ১৬ বলে ৩৫ রান করলে ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩৩৬ রান স্কোরবোর্ডে জমা করতে পারে ভারত।

পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই কাজ সহজ করে ফেলে জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো। উদ্বোধনী জুটিতে ১৬.৩ ওভারে ১১০ রান তোলে তারা। ৫২ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় ৫৫ রান করে জেসন রয় রান আউট হলে ভাঙে জুটি।

তাতে অবশ্য ইংলিশদের রানের চাকা থামেনি। তিন নম্বরে নেমে বরং রানের গতি আরো বাড়ান স্টোকস । প্রথম ৫০ বলে ৪০ রান করা স্টোকস শেষ ৪৯ রান করতে খেলেন মাত্র ১২ বল! ৫২ বলে ৪ চার ও ১০ ছক্কায় ৯৯ রান করে আউট হন তিনি, ভাঙে বেয়ারস্টোর সঙ্গে তার ১৭৫ রানের জুটি।

স্টোকসের ফেরার পরেই দ্রুত ফেরেন বেয়ারস্টো ও বাটলার। ১১২ বলে ১১ চার ও ৭ ছক্কায় ১২৪ রান করেন বেয়ারস্টো, কোন রান না করে সাজঘরে ফেরেন বাটলার।

বাকি কাজটা সহজেই সারেন ডেভিড মালান ও নবাগত লিয়াম লিভিংস্টোন। ৩৯ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করে ইংল্যান্ড। দাপুটে শতকের জন্য ম্যাচসেরা হন জনি বেয়ারস্টো।

সিরিজের ৩য় ও শেষ ওয়ানডে মাঠে গড়াবে আগামী ২৮ মার্চ, একই ভেন্যুতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ভারত ৩৩৬/৬ (৫০), রোহিত ২৫, ধাওয়ান ৪, কোহলি ৬৬, রাহুল ১০৮, পান্ট ৭৭, হার্দিক ৩৫, ক্রুনাল ১২*, শারদুল ০*; স্যাম কারেন ৭-০-৪৭-১, টপলে ৮-০-৫০-২, টম কারেন ১০-০-৮৩-২, আদিল ১০-০-৬৫-১

ইংল্যান্ড ৩৩৭/৪ (৪৩.৩), রয় ৫৫, বেয়ারস্টো ১২৪, স্টোকস ৯৯, মালান ১৬, বাটলার ০, লিভিংস্টোন ২৭*; ভুবনেশ্বর ১০-০-৬৩-১, কৃষ্ণা ১০-০-৫৮-২

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ জনি বেয়ারস্টো (ইংল্যান্ড)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

যেকারণে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের সুযোগ দেখছেন তামিম

Read Next

অবসরের আগেই জাতীয় দলের কোচের ভূমিকায় পোর্টারফিল্ড

Total
2
Share