উন্নতিতে মন ভরছেনা ক্লান্ত তামিমের

উন্নতিতে মন ভরছেনা ক্লান্ত তামিমের

দফায় দফায় নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে খালি হাতেই ফিরেছে বাংলাদেশ। কোন ফরম্যাটেই কিউই মুল্লুকে জয় না পাওয়া টাইগাররা এবার অন্তত খালি হাতে ফিরতে চায়না। তবে প্রথম দুই ওয়ানডে শেষে এখনো জয় শূন্য অবস্থানেই আছে বাংলাদেশ। ডানেডিনে প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ৮ উইকেটের হারের পর আজ ক্রাইস্টচার্চে দারুণ সুযোগ পেয়েও হেরেছে ৫ উইকেটে। ব্যাটে-বলে বেশ ভালো করলেও ফিল্ডিং ও ক্যাচ মিসে হারই হয়েছে সঙ্গী।

আপাতদৃষ্টিতে ডানেডিন ম্যাচের চেয়ে বেশ উন্নতি হলেও অধিনায়ক তামিম ইকবাল জানালেন উন্নতি করতে নয় এবার জিততেই নিউজিল্যান্ড গিয়েছেন। ফলে উন্নতির চিন্তা না করে ভালো সুযোগ পেয়েও স্বাগতিকদের হারাতে না পারার আক্ষেপে পুড়ছেন।

প্রথম ওয়ানডেতে ১৩১ রানে অলআউট হওয়া বাংলাদেশ আজ (২৩ মার্চ) ৬ উইকেটে ২৭১ রানের পুঁজি পায়। তামিমের ৭৮ রানের সাথে মোহাম্মদ মিঠুন খেলেছেন অপরাজিত ৭৩ রানের ইনিংস। হেগলি ওভালের উইকেট বিবেচনায় এই পুঁজি জয়ের জন্য যথেষ্ট। ৫৩ রানে নিউজিল্যান্ডের তিন উইকেট তুলে নিয়ে সে পথে এক ধাপ এগিয়েও গিয়েছিল বাংলাদেশ।

কিন্তু টম ল্যাথাম ও ডেভন কনওয়ের শতরানের জুটি কিছুটা বিপাকে ফেলে। তবে কনওয়েকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙার পর ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ। এরপর টম ল্যাথাম ও জিমি নিশামের সহজ ক্যাচ ছেড়ে  জয়ের দারুণ সুযোগ হাতছাড়া করতে হয়। ল্যাথাম হাঁকিয়েছেন অপরাজিত সেঞ্চুরি। ফিরতে পারতেন ৬০ রানের মধ্যেই।

সুযোগ পেয়ে কাজে লাগাতে না পারা প্রসঙ্গে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, ‘এর চেয়ে ভাল সুযোগ কোন সময় আমরা পাই নাই। এটা আমাদের অবশ্যই জেতা উচিত ছিল। দেশের বাইরে এমন সুযোগ সব সময় আসেনা। আজ আমরা যেভাবে ব্যাটিং করেছি..উইকেটটা একটু স্লো ছিল কঠিন ছিল। ২৭১ অবশ্যই ভাল স্কোর। সেই সঙ্গে ৫০ রানে ওদের তিনটা উইকেট নিয়ে আমরা যেভাবে শুরু করেছি…’

‘তারপর খেলাটা প্রায় আয়ত্বে ছিল কিন্তু দুইটা সুযোগ যেটা মিস করলাম…এই চান্সগুলো (ক্যাচগুলো) যদি নিতে পারতাম তাহলে এই ম্যাচটা আমাদের জেতা উচিত ছিল। অন্য কোন চিন্তা নাই, জেতা উচিত ছিল। সত্যি হতাশ যে আমরা এরকম সুযোগ কাজে লাগাতে পারি নাই।’

আগের ম্যাচের চেয়ে ঢের উন্নতি করলেও ম্যাচ জেতার লক্ষ্যে মাঠে নামা তামিমের মন ভরছে না, ‘ডানেডিন থেকে এটা অনেক বড় উন্নতি। হ্যা, এটা হয়ত বড় উন্নতি কিন্তু আমি ব্যাক্তিগত ভাবে মনে করি আমরা এখানে উন্নতি করতে আসিনি। আমরা এখানে ম্যাচ জিততে এসেছি। আজ আমাদের জন্য সেই সুযোগটা ছিল যা আমরা কাজে লাগাতে পারি নাই।’

‘তবে হ্যা উন্নতির দিকে বলতে পারেন যে ১৩০ করেছিলাম এখন ২৭১ করেছি। এটা আমার জন্য অত বড় বিষয়টা, আমার মনে হয় এখানে জিততে এসেছি। আজ সেরা সুযোগ ছিল যা আমরা মিস করেছি।’

এই হারা ম্যাচ থেকে ইতিবাচক হিসেবে নেওয়ার অনেক কিছু থাকলেও জয় ছাড়া এসব কথা বলে অধিনায়ক কেবল ক্লান্তই হতে পারে বলে মত তামিমের।

তার মতে, ‘এখান থেকে অনেক কিছুই ইতিবাচক নেয়ার আছে। এই কথাগুলো বলতে বলতে যেই অধিনায়ক থাকে তার জন্য ক্লান্তিকর হয়ে যাচ্ছে। ম্যাচে এটা-ওটা ভাল হচ্ছে, আমি আপনাকে তিন-চারটা বিষয় দেখাতে পারি যা ইতিবাচক ছিল।’

‘কিন্তু এটা আমাদের উদ্দেশ্য না। আমাদের উদ্দেশ্য ম্যাচ জেতা, যার জন্য আমরা এখানে এসেছি এবং এরকম সুযোগ বারবার আসে না। তো উন্নতির দিক থেকে চিন্তা করলে হ্যা ঠিক আছে, কিন্তু আমার কাছে এটা গুরুত্ব রাখে না। গুরুত্বটা হল বাংলাদেশের ম্যাচ জেতা উচিত, যা আমরা পারিনি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘ফিল্ডিংয়ে ভুলের জন্য মূল্য দিতে হয়েছে’

Read Next

বিকেএসপিতে সেঞ্চুরির পথে নাসির

Total
4
Share