ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করল ওয়েস্ট ইন্ডিজ
Vinkmag ad

আকিল হোসেনের ইকোনমিকাল বোলিং এবং ড্যারেন ব্রাভোর ৪র্থ সেঞ্চুরির (ওয়ানডে) সুবাদে শ্রীলঙ্কাকে শেষ ম্যাচে হারিয়ে ৩ ম্যাচের ওয়ানডের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২৭৫ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ক্যারিবিয়ানরা। একইসাথে সিরিজ থেকে মূল্যবান ৩০ পয়েন্টও (আইসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগ) অর্জন করেছে তারা।

সিরিজে তৃতীয়বারের মত ব্যাটিং সূচনায় এসে দারুণ শুরু করে লঙ্কানরা। দিমুথ করুনারত্নে এবং ধানুশকা গুনাথিলাকা উদ্বোধনী জুটিতে ৬৮ রানের জুটি গড়েন। দুইজনই ১ ওভারের ব্যবধানে বিদায় নেন। এরপর পাথুম নিশাঙ্কা এবং দীনেশ চান্দিমালের ৫০ রানের জুটির পরও আকিল হোসেনের চমৎকার বোলিংয়ে ১১৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে শ্রীলঙ্কা।

তবে আসেন বান্দারা এবং ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার দাপুটে ব্যাটিংয়ে ২৭৪ রানের লড়াকু স্কোর দাঁড় করায় শ্রীলঙ্কা। এ দুইজন ৭ম উইকেট জুটিতে অবিচ্ছিন্ন থেকে ১১১ বলে ১২৩ রান স্কোরবোর্ডে যোগ করেন। বান্দারা ধৈর্যের সাথে ব্যাটিং করে ৫৫ রানে অপরাজিত থাকলেও হাসারাঙ্গা আক্রমণাত্নক ভঙ্গিতে ব্যাটিং করেন। ১৩০ এরও বেশি স্ট্রাইক রেটে ৮০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

ক্যারিবিয়ানদের পক্ষে আকিল হোসেন ১০ ওভারে মাত্র ৩৩ রান খরচায় ৩টি মূল্যবান উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান এভিন লুইস দ্রুত ফিরে গেলেও শাই হোপ ছিলেন সপ্রতিভ। ৩য় উইকেটে ড্যারেন ব্রাভোর সাথে ১০৯ রানের জুটি গড়ে দলের জয়ের ভীত গড়ে দেন হোপ। ৬৪ রান করে সাজঘরে ফিরে যান তিনি।

হোপ ফিরে গেলেও ব্রাভো তার ব্যাটিং ঝলক অব্যাহত রাখেন। অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের সাথে জুটি বেঁধে দলের জয়ে বড় অবদান রাখেন তিনি। নিজেও তুলে নেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪র্থ শতরান। সেঞ্চুরির পরই দ্রুত বিদায় নেন তিনি। বাকি কাজটুকু নির্বিঘ্নে সারেন পোলার্ড ও জেসন হোল্ডার। ৯ বল হাতে রেখে দলের জয় নিশ্চিত করেন তারা। পোলার্ড ৫৩ এবং হোল্ডার ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন।

লঙ্কানদের পক্ষে সুরাঙ্গা লাকমাল ২টি উইকেট নেন।

ম্যাচ সেরা হন ড্যারেন ব্রাভো। সিরিজ জুড়ে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের জন্য সিরিজ সেরা হন শাই হোপ।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

শ্রীলঙ্কাঃ ২৭৪/৬ (৫০), হাসারাঙ্গা ৮০*, বান্দারা ৫৫*, গুনাথিলাকা ৩৬; আকিল ১০-০-৩৩-৩, জেসন ১০-০-৪৯-১

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ ২৭৬/৫ (৪৮.৩), ব্রাভো ১০২, হোপ ৬৪, পোলার্ড ৫৩*; লাকমাল ৯.৩-১-৫৬-২, পেরেরা ৫-০-২৭-১

ফলাফলঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৫ উইকেটে জয়ী, ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ ড্যারেন ব্রাভো (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

সিরিজ সেরাঃ শাই হোপ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

যেকারণে প্রস্তুতি ম্যাচের দুই একাদশে নেই মোসাদ্দেকের নাম

Read Next

ভারতীয় দলকে শাস্তি দিল আইসিসি

Total
16
Share